রাজীব গান্ধীর হত্যাকারীদের ফাঁসি খারিজের দাবি ডিএমকের

রাজীব গান্ধীর হত্যাকারী তিন অভিযুক্তের ফাঁসির আদেশ খারিজ করার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে আবেদন জানাল ডি এম কে সাংসদেরা। মনমোহন সিংয়ের সঙ্গে দেখা করে রাষ্ট্রপতির কাছে আবেদন জানাতে অনুরোধ করেছেন ডিএমকে প্রতিনিধি দল।

ইউপিএ প্রধানমন্ত্রী প্রার্থী ঘোষণা করুক, চান পাওয়ার

দেশের হবু প্রধানমন্ত্রী কে? আলোচনা আর জল্পনায় গা ভাসিয়ে দেশের অনেকেই রাহুল গান্ধী আর নরেন্দ্র মোদীকে নিয়েই আলোচনায় মত্ত। সেই জল্পনার মাঝেই ২০১৪-র সাধারণ নির্বাচনে কংগ্রেসের প্রধানমন্ত্রীকে তা জানতে চাইলেন ইউপিএ কৃষিমন্ত্রী শরদ পাওয়ার। শনিবার থানেতে ন্যাশানাল কংগ্রেস পার্টি (এনসিপি) প্রধান দাবি তোলেন, প্রধানমন্ত্রী নিয়ে অবিলম্বে বৈঠক করুক ইউপিএ।

কোনও ভাবেই ইউপিএ সরকারে ফিরে যেতে নারাজ করুণানিধি

অবস্থানে অনড় ডিএমকে। কোনও অবস্থাতেই ইউপিএকে সমর্থন না করার কথা স্পষ্ট করে দিলেন দলের প্রধান এম করুণানিধি। শুক্রবার তিনি আবারও বলেন, শ্রীলঙ্কার তালিম ইস্যুতে তাঁদের দাবি না মানায় ইউপিএ থেকে সরে এসেছে ডিএমকে। করুণানিধি বলেন, "শ্রীলঙ্কার তামিলদের জন্য কিছু না করার জন্যই আমরা সরকার ছেড়ে বেরিয়ে এসেছি।"

ডিএমকের সঙ্গে কোনও সংঘাত নেই: আলাগিরি

ডিএমকের সরকার ছেড়ে বেরিয়ে আসার সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ তিনি, একথা অস্বীকার করলেন এম কে আলাগিরি। শারীরিক অসুস্থতার কারণেই তিনি আজকের গুরুত্বপূর্ণ এক্সিকিউটিভ কমিটির বৈঠকে যেতে পারেননি বলে জানিয়েছেন আলাগিরি। দলীয় সংঘাতের কথাও উড়িয়ে দিয়েছেন তিনি। তবে শারীরিক অসুস্থতা সত্ত্বেও তিনি কীভাবে মাদুরাই গেলেন? সে বিষয়ে মুখ খুলতে নারাজ ডিএমকে নেতা তথা প্রাক্তন কেন্দ্রীয়মন্ত্রী।

সরকারের সঙ্কটের দিনলিপি

আচমকাই ইউপিএ ছাড়ার সিদ্ধান্ত ডিএমকের। কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএ জোট থেকে দ্বিতীয় বৃহত্তম শরিকের বেরিয়ে আসা চাপ বাড়িয়েছেন সরকারের স্থায়িত্ব নিয়ে। বিজেপি অনাস্থা আনার তোরজোড় শুরু করছে। যদিও সপা ও বসপা এখনই ইউপিএর হাত ছাড়তে রাজি নয়। চেন্নাই থেকে দিল্লি। এক বৃহত্তম রাজনৈতিক চলচিত্রের চিত্রনাট্যটা ঠিক কিরকম ছিল, দেখে নেব একনজরে---

এফডিআই বিতর্কে অচল হতে পারে শীতকালীন অধিবেশন

খুচরো ব্যবসায় বিদেশি বিনিয়োগ ইস্যুকে কেন্দ্র করে আবারও উত্তপ্ত হতে চলেছে সংসদের শীতকালীন অধিবেশন। এই ইস্যুতে আলোচনার জন্য নোটিস দিয়েছে বামেরা। বিজেপিও জানিয়ে দিয়েছে, এই ইস্যুতে সরকারের তীব্র বিরোধিতা করা হবে। বাম এবং বিজেপি, দুই শিবিরই এই ইস্যুতে অন্যান্য রাজনৈতিক দলের সহযোগিতা চেয়েছে। বিরোধী শিবিরের চাপের মুখে কংগ্রেস জানিয়েছে, যেকোনও ইস্যুতেই আলোচনায় রাজি তারা। তবে  এফডিআই নিয়ে সরকার যে অনড়, তাও স্পষ্ট করে দিয়েছে কংগ্রেস নেতৃত্ব।

অর্থনৈতিক সংস্কার: শরিকি সমালোচনার মুখে মনমোহন-চিদম্বরম

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ইউপিএ থকে সরে আসার পর রাজনৈতিক আঁচ বুঝে নিতে বৃহস্পতিবার ইউপিএ`র সবকটি শরিকদলের সঙ্গে বৈঠকে বসেন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং এবং কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী। বৈঠক শেষে একটি বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, সরকারের এই দুঃসময়ে প্রধানমন্ত্রীর পাশে থাকারই আশ্বাস দিয়েছেন সকলে।