বনধে কড়া দাওয়াইয়ের পক্ষে মমতা, মানুষ বনধের পক্ষে, সওয়াল সূর্যর  বনধে কড়া দাওয়াইয়ের পক্ষে মমতা, মানুষ বনধের পক্ষে, সওয়াল সূর্যর

"কখনও ট্যাক্সি বনধ। কখনও বাংলা বনধ। আমি আপনাদের মারব না, এটা আমাদের কাজ নয়। দাঙ্গা করে আন্দোলন হয়না। বাংলার মানুষ বনধ সমর্থন করবে না", কড়া ভাষায় ২ সেপ্টেম্বর বামদের সাড়া ভারত বনধের ডাককে কটাক্ষ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পাল্টা জবাবে রাজ্যের বিরোধী দলনেতা সূর্যকান্ত মিশ্র বলেন, "সেদিনই দেখতে পাবেন, মানুষ কি চায়"। ২৮ অগাস্ট, তৃণমূল ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবস উদযাপনে এসে তিনি বাম জামানার কড়া নিন্দা করে বলেন, "ইট, বোমা নিয়ে যে রাজনীতি করে, মিছিল করে, আমি সেই রাজনীতিতে বিশ্বাস করি না। ৩৪ বছর সময় পেয়েছেন। কী করেছেন? ৭টা মেডিক্যাল কলেজ হয়েছে, আইটিআই হয়েছে। যা পরেননি তা স্বীকার করুন, একটু লজ্জা করুন। লরি বোঝাই করে পাথর নিয়ে এসছেন। কেন ৩৪ বছর ছেলে মেয়েদের চাকরি দেননি? একটা এফআইআর করতে দেননি"।  

বিরোধীদের ডাকা ধর্মঘটে রাজ্যে মিশ্র সাড়া বিরোধীদের ডাকা ধর্মঘটে রাজ্যে মিশ্র সাড়া

তৃণমূলের সন্ত্রাসের প্রতিবাদে বিরোধীদের ডাকা ধর্মঘটে রাজ্যে মিশ্র সাড়া। বনধ সমর্থকদের দফায় দফায় অবরোধে ট্রেন ও যান চলাচল ব্যাহত হয়। বেশিরভাগ জেলাতেই বেসরকারি বাস পথে নামেনি। সরকারি বাস চললেও ট্রেন ও বাসে যাত্রীর সংখ্যা তুলনায় কম। তথ্যপ্রযুক্তি  তালুকে বিভিন্ন অফিসে এদিন কর্মীদের হাজিরা ছিল তুলনায় কম।তবে শিল্পাঞ্চলে  বনধের তেমন প্রভাব পড়েনি। দূরপাল্লার ট্রেন ও মেট্রো চলাচলও স্বাভাবিক রয়েছে। পুরভোটে তৃণমূলের সন্ত্রাসের প্রতিবাদে আজ রাজ্যে বারো ঘণ্টার সাধারণ ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে বামফ্রণ্ট।  একই ইস্যুতে  বিজেপিও দশ ঘণ্টার বাংলা বনধ ডেকেছে।