নাতনিকে ২ মাস ধরে ধর্ষণের অভিযোগ দাদুর বিরুদ্ধে নাতনিকে ২ মাস ধরে ধর্ষণের অভিযোগ দাদুর বিরুদ্ধে

নাবালিকাকে দিনের পর দিন লাগাতার ধর্ষণের অভিযোগ উঠল এক পৌঢ়ের বিরুদ্ধে। সোনারপুরের এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। সোনারপুরের খুড়িগাছি গ্রামের বাসিন্দা ওই নাবালিকা। পাশের গ্রাম গঙ্গা জোয়ারায় সেলাই শিখতে যেত ওই পৌঢ়ের বাড়িতে। অভিযুক্ত সম্পর্কে নাবালিকার দাদু। অভিযোগ, ২ মাস ধরে ওই নাবালিকাকে লাগাতার ধর্ষণ করেছে ওই পৌঢ়। দিনের পর দিন তার ওপর নির্যাতন চালিয়েছে ওই পৌঢ়। মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে নির্যাতিতা। বুঝতে পেরে মেয়েকে চেপে ধরেন মা। সব কথা খুলে বলে মেয়ে। গোটা ঘটনা গ্রামে জানাজানি হতেই এলাকা ছেড়ে পালায় ওই পৌঢ়। সোনারপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে নির্যাতিতার পরিবার। অভিযুক্তের খোঁজে তল্লাসি শুরু করেছে পুলিস। 

সন্তানের সামনেই ধর্ষণ মাকে সন্তানের সামনেই ধর্ষণ মাকে

ফের পৈশাচিক ধর্ষণের ঘটনার সাক্ষী  নদিয়া। এবার সন্তানের সামনেই মাকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠল কৃষ্ণগঞ্জের  মুন্ডারী পাড়ায়।   নির্যাতিতা মহিলার অভিযোগ, দিনের পর দিন তাকে টাকার লোভ দেখানোর পাশাপাশি উত্যক্ত করত স্থানীয় যুবক তাপস সর্দার।  গত শুক্রবার মধ্যরাতে বেড়া ভেঙে বাড়িতে ঢোকে তাপস সর্দার। গামছা দিয়ে মুখ বেঁধে মহিলার ওপর চলে অকথ্য অত্যাচার।  ঘটনার পরে পালানোর সময়ে মহিলার চিত্কারে তাকে ধরে ফেলে গ্রামের বাসিন্দারা। তাঁরাই পুলিসের হাতে তুলে দেয় তাপসকে। নির্যাতিতার অভিযোগের ভিত্তিতেই অভিযুক্ত  যুবককে গ্রেফতারও করে কৃষ্ণগঞ্জ থানার পুলিস।

কনভেন্টের আবাসিকদের কাছে অচেনা রানাঘাটকাণ্ডে ধৃত সালিম শেখ  কনভেন্টের আবাসিকদের কাছে অচেনা রানাঘাটকাণ্ডে ধৃত সালিম শেখ

রানাঘাটকাণ্ডে ধৃত সালিম শেখকে গভীর রাতে নিয়ে যাওয়া হয় কনভেন্টে। আবাসিকদের সামনে নিয়ে যাওয়া হয় ধৃতকে। যদিও সালিমকে চিনতে  পারেননি কনভেন্টের আবাসিকরা। আজও গোপাল সরকার এবং সালিম শেখকে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করেছে সিআইডি। সকাল থেকেই ভবানী ভবনে চলে জেরা। সব দুষ্কৃতী বাংলাদেশে গা ঢাকা দেয়নি। কয়েকজন রয়ে গেছে এদেশে। দুষ্কৃতী দলটি ভিনরাজ্যেও অপারেশন চালায় বলে জেরায় জানিয়েছে সেলিম। এদিকে, খড়গপুরে গ্রেফতার হয়েছে শেখ সালিমের এক আত্মীয়। একটি ডাকাতির ঘটনায় জালালউদ্দিন নামে ওই ব্যক্তি গ্রেফতার হয়েছে। রানাঘাটকাণ্ডের সঙ্গে জালাউদ্দিনের কোনও যোগ আছে কিনা, তা খতিয়ে দেখছে পুলিস।