এত জনপ্রিয়তার পরেও নোকিয়া ব্যর্থ হল কেন?

এত জনপ্রিয়তার পরেও নোকিয়া ব্যর্থ হল কেন?

একটা সময় ভারতে মোবাইল সেট মানেই নোকিয়া, এমন একটা মিথ চালু ছিল। তবে গোটা বিশ্বজুড়ে নোকিয়ার জনপ্রিয়তা থাকলেও উত্তর আমেরিকায় সেভাবে ছিল না। এই ব্যাপারটা জোর দিতে গিয়ে একটা বড় ভুল করে ফেলে নোকিয়া।

এবার থেকে নোকিয়া ফোনে এটাও পাবেন

এবার থেকে নোকিয়া ফোনে এটাও পাবেন

এতদিন নোকিয়ার সমস্ত ফোন অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে উইন্ডোজ ছিল। নোকিয়ার কোনও ফোনে অ্যান্ড্রয়েড পাওয়া যেত না। কিন্তু এবার থেকে নোকিয়ার ফোনেও আপনি অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম পাবেন।

জানেন সারা বিশ্বে কোন স্মার্টফোনের চাহিদা সবচেয়ে বেশি

জানেন সারা বিশ্বে কোন স্মার্টফোনের চাহিদা সবচেয়ে বেশি

এখন যুগটাই স্মার্টফোনের। বেসিক ফোনের সময় পেরিয়ে গিয়েছে। বেসিক ফোন এখন প্রায় ইতিহাসের পাতায়। সমীক্ষা বলছে, ১০০ জনের মধ্যে ৯৮ জন মানুষ স্মার্টফোন ব্যবহার করেন। অর্থাত্‌ মানুষের মধ্যে স্মার্টফোনের

জানুন কোন কোন ফোনে হোয়াটস অ্যাপ করতে পারবেন না

জানুন কোন কোন ফোনে হোয়াটস অ্যাপ করতে পারবেন না

সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটের পাশাপাশি আজকাল বেড়িয়েছে অনেক মেসেজিং সাইটও। যেখানে আপনি বিনামূল্যে মেসেজ পাঠাতে পারবেন। শুধু ফোনে ইন্টারনেটটা থাকলেই হল। তাহলেই কোনও রকম একস্ট্রা খরচ ছাড়াই যোগাযোগ করা

 ৮০০ বছর আগের মোবাইল ফোনটি একবার দেখবেন না?

৮০০ বছর আগের মোবাইল ফোনটি একবার দেখবেন না?

সবার আগে একটা প্রশ্ন জিজ্ঞেস করি আপনাকে। আচ্ছা, ক' বছর ধরে মোবাইল ফোন ব্যবহার করছেন আপনি? ২০ বছর তো আর হয়নি? সবথেকে বেশি হলে বড় জোর ১৫-১৬ বছর। কিন্তু আপনাকে দিচ্ছি বিশ্বের সবথেকে পুরনো মোবাইল ফোনের

মারা গেলেন এসএমএসের জনক মাটি ম্যাকনেন

মারা গেলেন এসএমএসের জনক মাটি ম্যাকনেন

প্রয়াত হলেন মাটি ম্যাকনেন। সারা বিশ্বে টেক্সট মেসেজ জনপ্রিয় হয়েছিল মাটি ম্যাকনেনের হাত ধরে। দুনিয়া তাকে চিনত এসএমএসের জনক হিসেবেই।

নোকিয়া মোবাইল কিনতে চলেছে মাইক্রোসফট

নোকিয়ার মোবাইল ফোন ব্যবসা কিনতে চলেছে মাইক্রোসফট। মঙ্গলবার মাইক্রোসফট কর্পের তরফে ঘোষনা করা হয়, ৫.৪৪ বিলিয়ন ইউরোয় নোকিয়ার মোবাইল ফোন ব্যবসা কিনতে চলেছে মাইক্রোসফট।

করে কারচুপির অভিযোগে আয়করের নোটিস নোকিয়াকে

করে কারচুপি করায় মোবাইল প্রস্তুতকারক সংস্থা নোকিয়াকে দু`হাজার কোটি টাকার জরিমানা করল আয়কর দফতর। প্রত্যুত্তরে নোকিয়ার দাবিগুলিতে স্থগিতাদেশ জারি করেছে দিল্লি আদালত। ফলে জরিমানা বাবদ ২০০০ কোটি টাকা