অতিথি পাখিদের দেখতে ভিড় বর্ধমানের কালনায়, থাকছে নৌকোভ্রমণও

অতিথি পাখিদের দেখতে ভিড় বর্ধমানের কালনায়, থাকছে নৌকোভ্রমণও

অতিথি ওরা। কেউ সূদূর সাইবেরিয়া, তো কেউ নিউজিল্যান্ড- অস্ট্রেলিয়া বা অন্যান্য দেশ থেকে প্রতিবছর আসে। ডেস্টিনেশন, বর্ধমানের পূর্বস্থলী। ভিনদেশী এই অতিথিদের ওপর নির্ভর করে স্থানীয় অর্থনীতির একটা বড়

পরিযায়ী অতিথির অপেক্ষায় সাজছে রত্নেশ্বর ঝিল

পরিযায়ী অতিথির অপেক্ষায় সাজছে রত্নেশ্বর ঝিল

বাধা কাটিয়ে সংস্কারের কাজ শুরু হয়েছে আবার। ঢেলে সাজছে আলিপুরদুয়ারের রত্নেশ্বর ঝিল। স্থানীয় বাসিন্দাদের আশা, সেখানে আবার ডানা মেলবে পরিযায়ী পাখির দল। নিউ লুকে এই ঝিলই হয়ে উঠবে পর্যটকদের ফেভারিট ডেস্

পরিযায়ী পাখির চোরাশিকার ঠেকাতে উদ্যোগী বনদফতর

পরিযায়ী পাখির চোরাশিকার ঠেকাতে উদ্যোগী বনদফতর

বাঁকুড়ায় পরিয়ায়ী পাখির চোরা শিকার ঠেকাতে এবার উদ্যোগী  হল বনদফতর। নজরদারির পাশাপাশি এবার এলাকায় শুরু হল সচেতনতা শিবির।

রোদ পোহাতে এসে চোরাশিকারিদের ফাঁদে অস্তিত্ব বিপন্ন পরিযায়ী পাখিদের

রোদ পোহাতে এসে চোরাশিকারিদের ফাঁদে অস্তিত্ব বিপন্ন পরিযায়ী পাখিদের

বাঁকুড়ায় চোরাশিকারের ফাঁদে পরিযায়ীরা। প্রতিদিন নির্বিচারে মেরে ফেলা হচ্ছে হাজার হাজার ব্রাহমিনি শিলডাক ও নর্দার্ন পিন্টেলকে। চড়া দামে বিকোচ্ছে সেই মাংস। আর মানুষের লোভের গুনাগার দিচ্ছে বাস্তুতন্ত

শীত পড়তেই পরিযায়ী পাখিদের রেকর্ড সাঁতরাগাছি ঝিলে

শীত পড়তেই পরিযায়ী পাখিদের রেকর্ড সাঁতরাগাছি ঝিলে

শীত পড়তে না পড়তেই সাঁতরাগাছির ঝিলে পরিযায়ী পাখিদের ভিড়। এবার এতই পাখি, যে গত কয়েক বছরের রেকর্ডকে তা ছাপিয়ে গিয়েছে। ভিড় জমাচ্ছেন পক্ষীপ্রেমীরা।    সাঁতরাগাছির ঝিলে সুদূর সাইবেরিয়া থেকে পাখিরা তো

এবছর আর পাখি এল না বড়জো গ্রামে

সংস্কারের জন্য শুকিয়ে ফেলা হয়েছে পুকুর। এর জেরে এবছর আর পরিযায়ী পাখি দেখা মিলছে না মন্তেশ্বরের বড়জো গ্রামে। হতাশ হয়ে ফিরে যাচ্ছেন পাখিপ্রেমীরা। পরিযায়ী পাখিদের আসার সময়ই এভাবে পুকুরের জল শুকিয়ে