শিয়রে শমন, মদন তামাং হত্যাকাণ্ডে চার্জশিটে গুরুং থেকে গিরি, এখনই পাহাড় অচল করছে না মোর্চা   শিয়রে শমন, মদন তামাং হত্যাকাণ্ডে চার্জশিটে গুরুং থেকে গিরি, এখনই পাহাড় অচল করছে না মোর্চা

প্রায় পাঁচ বছর পর গোর্খা লিগ নেতা মদন তামাং হত্যা মামলায় চার্জশিট জমা দিল সিবিআই। নগর দায়রা আদালতে বিমল গুরুং, রোশন গিরি, হরকা বাহাদুর ছেত্রীসহ মোর্চার শীর্ষ নেতাদের বিরুদ্ধে চার্জশিট জমা দেয় সিবিআইয়ের স্পেশাল ক্রাই ম ব্রাঞ্চ। নাম রয়েছে বিমল গুরুংয়ের স্ত্রী আশা গুরুংয়েরও। ২০১০, ২১ মে প্রকাশ্য দিবালোকে চকবাজারের জনবহুল রাস্তায় কুপিয়ে খুন করা হয় মদন তামাংকে। সিআইডি তদন্ত শুরু করলেও সেই তদন্তে আস্থা রাখতে পারেননি মদন তামাংয়ের স্ত্রী ভারতী তামাং। আদালতের নির্দেশে সিবিআই তদন্ত শুরু হয়। তবে প্রধান অভিযুক্তদের কাউকেই গ্রেফতার করতে পারেনি কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা। চার্জশিটে সিবিআই জানিয়েছে, সিআইডি হেফাজত থেকে পালানো অন্যতম অভিযুক্ত নিকল তামাং এখন নেপালে গা ঢাকা দিয়ে রয়েছে। চার্জশিটে মোর্চা নেতাদের বিরুদ্ধে খুন, ষড়যন্ত্র ও দাঙ্গা বাধানোর অভিযোগ আনা হয়েছে।

পাহাড়ের চিড় তেজ কমালো আন্দোলনের

অস্তিত্ব রক্ষায় পাহাড়ে এবার আরও আক্রমণাত্মক মোর্চা। পাঁচদিন নয়, ঘরের ভিতর জনতা আন্দোলন একদিন করার সিদ্ধান্ত হয়েছে আজকের সর্বদলীয় বৈঠকে। ১৯ থেকে ২৩-এর পরিবর্তে শুধুমাত্র ১৯ অগাস্ট ঘরের ভিতরে জনতা আন্দোলন হবে। ২০ থেকে ২৩ তারিখ পর্যন্ত জনতা রাস্তায় নেমে গোর্খাল্যান্ডের দাবিতে মিছিল করবে। ২৭ ও ২৮ তারিখ দিল্লিতে প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, সোনিয়া গান্ধী ও বিরোধী দলের নেতার কাছে ফ্যাক্সবার্তা পাঠাবেন পাহাড়ের মানুষ। সর্বদল বৈঠক শেষে আজ এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন গোর্খাল্যান্ড জয়েন্ট অ্যাকশন কমিটির চেয়ারম্যান ইনোস  প্রধান।