মেগা ডার্বির আগে এ যেন অচেনা মেহতাব হোসেন!

মেগা ডার্বির আগে এ যেন অচেনা মেহতাব হোসেন!

মেগা ডার্বির আগে এ যেন অচেনা মেহতাব হোসেন। মোহনবাগানের বিরুদ্ধে ম্যাচের আগে মেহতাবের গলায় নেই কোনও হুঙ্কার। দশ বছরেরও বেশি সময় ধরে দুই প্রধানের হয়ে বড় ম্যাচ খেলা মেহতাব এখনও অনেক অভিজ্ঞ। অনেক শান্ত। ইস্টবেঙ্গলের এই মিডফিল্ডার কিছুটা মাইন্ড গেম খেলে বড় ম্যাচে সবুজমেরুনকে এগিয়ে রাখছেন। চোটের জন্য আগেই ছিটকে গিয়েছেন শেহনাজ সিং। পুরো ফিট নন খাবরাও। বাগানের আক্রমণের ঝড় সামলাতে মাঝমাঠে ইস্টবেঙ্গলের বড় ভরসা মেহতাব।

 শনিবারই নতুন মরসুমে প্রথমবার মোহনবাগান জার্সিতে নামবেন সোনি শনিবারই নতুন মরসুমে প্রথমবার মোহনবাগান জার্সিতে নামবেন সোনি

হাইতিতে বসে ঘরোয়া লিগের ডার্বিতে নিজের দলের হার দেখেছিলেন সোনি নর্ডি। সেই ম্যাচে বিশ্বজিত ভট্টাচার্যের দলের কাছে কার্যত আত্মসমর্পন করতে হয়েছিল বাগানের তরুণ ব্রিগেডকে। সেই হার এখনও ভোলেননি হাইতিয়ান তারকা। শনিবারই নতুন মরসুমে প্রথমবার মোহনবাগান জার্সিতে নামবেন সোনি। সেটাও আবার বড়ম্যাচ। ঘরোয়া লিগের হারের ডার্বিতে হারের বদলা নেওয়ার জন্য মোহনবাগান জনতা তাকিয়ে আছেন সোনির দিকে। ডার্বিতে মাঠে নামার আগে হাইতিয়ান তারকা বলছেন,শনিবারই তো আসল ডার্বি। তবে বড়ম্যাচের থেকে আই লিগ খেতাবকেই বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন সোনি।

টিকিটের আকাশছোঁয়া দামে ফাঁকা গ্যালারি

বড়ম্যাচ মানেই যুবভারতীতে লক্ষাধিক দর্শক। শনিবারের ডার্বিতে অবশ্য একেবারে অন্য চিত্র। লক্ষাধিক যুবভারতীর অনেক সিটই ফাঁকা। একেবারেই ভরেনি মোহনবাগান গ্যালারি। এবার বড়ম্যাচে ন্যুনতম টিকিটের দাম দুশো টাকা করেছিল মোহনবাগান। তার পর থেকেই বিভিন্ন মহল থেকে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছিল যে,এবার হয়ত বড়ম্যাচে মাঠ ভরবে না।