ঠিক ৪ বছর পর সচিনকে মনে করিয়ে ডাবল সেঞ্চুরি গেইলের

ঠিক ৪ বছর পর সচিনকে মনে করিয়ে ডাবল সেঞ্চুরি গেইলের

২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১০  দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে জীবনের প্রথম  দ্বিশতরান করেছিলেন ক্রিকেট ঈশ্বর "দ্য মাস্টার' সচিন রমেশ তেন্ডুলকার।

সেওয়াগের শটে ভাঙল কাঁচ, জিভ কাটলেন বীরু সেওয়াগের শটে ভাঙল কাঁচ, জিভ কাটলেন বীরু

বিশ্বকাপের প্রাথমিক দলে সুযোগ মেলেনি। জাতীয় দলের দরজা আর কোনও দিন খুলবে কি না তা নিয়েও সন্দেহ আছে। অনেকে তো তাঁর অবসর নিয়েও আলোচনা করতে শরু করে দিয়েছেন। একসময় বিশ্ব ক্রিকেটকে নিজের ব্যাটের ছায়ায় আড়াল করে দেওয়া বীরেন্দ্র সেওয়াগ এখন যেন শুধুই অতীত। কিন্তু সেওয়াগ এখনও হাল ছাড়ছেন না। আগামিকাল, রবিবার দিল্লির জার্সি গায়ে সৌরাষ্ট্রে বিরুদ্ধে কেলতে নামছেন সেওয়াগ।

জম্মু-কাশ্মীরের বিরুদ্ধেও রান পেলেন না সেওয়াগ

জাতীয় দলে ফিরে আসার লড়াইয়ে ক্রমশ পিছিয়ে পড়ছেন বীরেন্দ্র সেওয়াগ। বিজয় হাজারে ট্রফিতে জম্মু কাশ্মীরের বিরুদ্ধে সেওয়াগ করলেন মাত্র ১৫ রান। দেশের জার্সি ফিরে পেতে তিন নম্বরে নামার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বীরু। কিন্তু তিনে নেমে বীরুর ১৫ রানের ইনিংস ছিল বেশ হতাশার।

সেওয়াগ সাইক্লোনে দিল্লির চমকপ্রদ জয়

চমক বোধহয় একেই বলে। ক্রিকেট বোধহয় একেই বলে। টি-টোয়েন্টি বোধহয় একেই বলে। রবিবার কোটলায় যা ঘটল তাকে আর ওভাবে কীভাবে ব্যাখা করা যাবে! স্যর ভিভ রিচার্ডসকে আনতেই বদলে গেল দিল্লি ডেয়ারডেভিলস।

অবসরকে বাউন্ডারির বাইরে পাঠিয়ে সেওয়াগ বললেন, কামব্যাক করবই

টেস্ট দল থেকে বাদ পড়ার পরই দেশের ক্রিকেটমহলে শুরু হল জল্পনা। ফিসফাস শুরু হল, ভারতীয় টেস্ট দলে আরও একটা উইকেট পড়তে চলেছে। দ্রাবিড়, লক্ষ্ণণ, সচিনের পর এবার হয়তো বীরেন্দ্র সেওয়াগও টেস্ট ক্রিকেটে নেই-এর দুনিয়ায় ঢুকতে চলেছেন। কিন্তু তাঁর ব্যাটিং স্টাইলের ঢঙেই সব জল্পনা উড়িয়ে বীরু পরিষ্কার বললেন, আমার কেরিয়ার শেষ হয়ে যায়নি। আমি দলে ফিরে আসবই।

বীরু-ঝড়ে বিশ্বরেকর্ড

২০০ রানের গন্ডি পেরোলেন ১৪০ বলে। এর মধ্যে রয়েছে সাতটি ৬ আর পঁচিশটি ৪। তবে শুধু ২০০ টপকে থমকে যাওয়া নয়। এরপরেও মাঠ জুড়ে ৪ আর ৬-এর বন্যা। শেষ পর্যন্ত বীরু-ঝড় থামল ২১৯ রানের মাথায়।