কৌশিক সেনের বই উদ্বোধন করে সমালোচনার বাউন্সারে ছক্কা হাঁকালেন ব্রাত্য বসু

কৌশিক সেনের বই উদ্বোধন করে সমালোচনার বাউন্সারে ছক্কা হাঁকালেন ব্রাত্য বসু

রাজনৈতিক মতাদর্শ আলাদা। কিন্তু দুই নাট্যব্যক্তিত্বকে মিলিয়ে দিল বইমেলা। কৌশিক সেনের বই উদ্বোধন করে সমালোচনার বাউন্সারে ছক্কা হাঁকালেন ব্রাত্য বসু। অন্যদিকে, যে কথা অনেক সাংবাদিকও জানেন না, তেমন কথাই নাকি নিজের বইতে লিখেছেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। ""নেত্রীর সাথে জনতার পাশে'' বইটি উদ্বোধন করলেন তৃণমূলের মহাসচিব। রাজ্যে পট পরিবর্তনের প্রাক্কালে নাগরিক আন্দোলনের জোয়ারে গা ভাসিয়েছিলেন দুই নাট্যব্যক্তিত্ব। তারপর? আলাদা হয়ে গেছে তাঁদের পথ। তৃণমূলের হয়ে ভোটে দাঁড়িয়েছেন একজন। জিতে মন্ত্রীও হয়েছেন। তিনি ব্রাত্য বসু।

২১ এর সাক্ষাৎ, মমতা-হাসিনায় মিলে গেলো দুই বাংলা ২১ এর সাক্ষাৎ, মমতা-হাসিনায় মিলে গেলো দুই বাংলা

আজ বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আনুষ্ঠানিক বৈঠক মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। তার আগে শুক্রবার মধ্যরাতে অমর একুশের অনুষ্ঠানে ঢাকার কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে বেশকিছুক্ষণ দুই নেত্রীর মধ্যে কথা হয়।

মণীশ, দেবেশ অর্পিতা, ব্রাত্য, নাট্যস্বজন নিয়ে নতুন চাপে তৃণমূল মণীশ, দেবেশ অর্পিতা, ব্রাত্য, নাট্যস্বজন নিয়ে নতুন চাপে তৃণমূল

নাট্যস্বজনে মুষলপর্ব। নতুন চাপে তৃণমূল। মণীশ মিত্র এবং দেবেশ চট্টোপাধ্যায়ের পর তৃণমূলপন্থী নাট্য সংগঠনের সচিব পদ থেকে ইস্তফা দিলেন অর্পিতা ঘোষ। তবে এখানেই শেষ নয়। স্বজন ছাড়লেন খোদ ব্রাত্য বসুও। যদ

নাট্যস্বজনের সভাপতি, সচিবের পদ থেকে যৌথ ইস্তফা ব্রাত্য, অর্পিতার নাট্যস্বজনের সভাপতি, সচিবের পদ থেকে যৌথ ইস্তফা ব্রাত্য, অর্পিতার

সকলেই ছেড়ে দিয়েছেন। কোনও বন্ধুই নেই। এই কারণ দেখিয়েই দেবেশ চট্টোপাধ্যায়, অর্পিতা ঘোষের পর নাট্যস্বজনের সবাপতির পদ থেকে এবার ইস্তাফ দিলেন ব্রাত্য বসু। বৃহস্পতিবার কর্মসমিতির বৈঠকে ইস্তফা দেন তিনি। এদিনই সচিবের পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন অর্পিতা ঘোষও। নাট্যস্বজনের সঙ্গে শুরু থেকে যুক্ত ছিলেন তিনি। দলতন্ত্রের কারণেই এই সিদ্ধান্ত বলে জানিয়েছেন অর্পিতা।

হতাশা থেকেই সরলেন ব্রাত্য! নাকি টেটের ধাক্কা?

কী কারণে শিক্ষার মত গুরুত্বপুর্ণ দফতর থেকে ব্রাত্য বসুকে সরতে হল তা নিয়ে শুরু হয়েছে নানা কানাঘুষো । অনেকের মতে টেটের ধাক্কা লেগেছে শিক্ষামন্ত্রীর ঘরে। কেন্দ্রীয়ভাবে অনলাইন ভর্তি প্রক্রিয়া চালু করার চেষ্টাও তাঁর কাল হয়েছে। ব্রাত্য বসু নিজে অবশ্য বলছেন, তিনি নাকি নিজে থেকেই সরে যেতে চেয়েছিলেন।

`বন্ধু`বুদ্ধিজীবীদের পেশাদার রুদালি বলে কটাক্ষ করলেন বুদ্ধিজীবী শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু

নিজের রাজনৈতিক জীবনের উত্থান শুরু বুদ্ধিজীবীদের মিছিলে পা মিলিয়েই। তখন ইস্যু ছিল সিঙ্গুর নন্দীগ্রাম। এখন ইস্যু কামদুনি-মধ্যমগ্রাম। এই ইস্যুতে তাঁর দলের সরকারের বিরুদ্ধে হাঁটতেই একেবারে রেগে গেলেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু।

বিতর্কিত ব্রাত্য; শিক্ষামন্ত্রী বললেন, "মার্কস- লেনিন এই শব্দগুলো আগে প্রাসঙ্গিক ছিল, কিন্তু এখন আর চর্চায় নেই``

বিতর্কিত মন্তব্য শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুর। তাঁর দাবি, মার্কস, লেনিন এখন আর কোনও চর্চার মধ্যে নেই।

উচ্চশিক্ষা সংসদের চেয়ারম্যানের পদ থেকে ইস্তফা সুগত মার্জিতের

উচ্চশিক্ষা সংসদের চেয়ারম্যানের পদ থেকে ইস্তফা দিলেন সুগত মার্জিত। বুধবার শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুর কাছে পদত্যাগ পত্র জমা দিয়েছেন তিনি। সাংবাদিক সম্মেলন করে মার্জিত জানিয়েছেন, পড়াশোনা ও গবেষণা সংক্রান্ত কাজে সময় দিতেই এই সিদ্ধান্ত।

পুলিসের ভূমিকায় ক্ষুব্ধ, ব্রাত্যর ভূমিকায় প্রশ্ন তুললেন আর্চ বিশপ

পুলিসের ভূমিকায় ক্ষুব্ধ আর্চ বিশপ থমাস ডিসুজা। ক্ষুব্ধ শিক্ষামন্ত্রীর ভূমিকাতেও। মুখ্যমন্ত্রীর আশ্বাসের পরেও প্রতিবাদের রাস্তা থেকে তাঁরা সরছেন না। ক্রাইস্ট চার্চ স্কুলে ভাঙচুরের প্রতিবাদে উনিশে সেপ্টেম্বর রাজ্যের সমস্ত মিশনারি স্কুল বন্ধ রেখে কালা দিবস পালনের ডাক দিয়েছেন মিশনারি স্কুলগুলির সংগঠন। ক্রাইস্ট চার্চ স্কুল কবে খুলবে, তা এখনও অনিশ্চিত। 

পদত্যাগ করলেন উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের সভাপতি

পদত্যাগ করলেন উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের সভাপতি মুক্তিনাথ চট্টোপাধ্যায়। সংসদ সভাপতি জানিয়েছেন, ব্যক্তিগত কারণেই এই সিদ্ধান্ত। শিক্ষামন্ত্রীকে লেখা চিঠিতে কারণ হিসেবে শারীরিক অসুস্থতার উল্লেখ রয়েছে।

যোগ্য প্রার্থী নেই, তাই পূরণ হবে না এসএসসির সিট

স্কুল শিক্ষক পদে প্রায় পঞ্চাশ হাজার নিয়োগের কথা বলা হলেও বাস্তবে তিরিশ হাজারের বেশি নিয়োগ হচ্ছে না। স্কুল সার্ভিস কমিশনের যুক্তি, যোগ্য প্রার্থী না পাওয়াতেই এমনটা হচ্ছে।

কাপুরুষ ব্রাত্যর অভিনয়টা বড় পাওনা

ছবির নাম: মহাপুরুষ ও কাপুরুষ রেটিং: ***1/2

ট্রেলরে এল মহাপুরুষ ও কাপুরুষ

মুক্তি পেল মহাপুরুষ ও কাপুরুষ ছবির ট্রেলর। অনিকেত চট্টোপাধ্যায় পরিচালিত ছবিতে রয়েছেন ব্রাত্য বসু, দীপঙ্কর দে, তনিমা সেন, ঋত্বিক চক্রবর্তী, লকেট চ্যাটার্জি, লামা, ভোলা তামাং ও সুজয় প্রসাদ চ্যাটার্জি।

কলেজ নির্বাচনে আলোচনার মাধ্যমেই সমাধানের পথ খুঁজছেন ব্রাত্য

কলেজে ছাত্র সংসদ নির্বাচনের যৌক্তিকতা নিয়ে প্রশ্ন উঠলেও এখনই তা বাতিলের রাস্তায় হাঁটতে নারাজ সরকার। সোমবার শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু বলেন, আলোচনার মাধ্যমেই বেরিয়ে আসতে পারে সমাধানের পথ।

সরকারি নির্দেশিকা উপেক্ষা, ধর্মঘটে বন্ধ অধিকাংশ স্কুলই

মুখ্যমন্ত্রীর অনুরোধ উপেক্ষা করেই ধর্মঘটের দিন বন্ধ থাকছে রাজ্যের অধিকাংশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। লিখিতভাবে কোনও নির্দেশিকা জারি না হলেও, অধিকাংশ স্কুল কর্তৃপক্ষই ছাত্রছাত্রীদের জানিয়ে দিয়েছে অসুবিধায় পড়লে ধর্মঘটের দিন স্কুল না আসতে।

ধর্মঘট প্রসঙ্গে ফের বিতর্কে ব্রাত্য

মুখ্যমন্ত্রী ধর্মঘটের বিরুদ্ধে বক্তব্য রাখলেও ধর্মঘটের অধিকার নিয়ে ফের একবার মুখ খুলললেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। সেন্ট লরেন্স স্কুলে একটি অনুষ্ঠানে শিক্ষা মন্ত্রী রবিবার বলেন, ধর্মঘট একটি গনতান্ত্রিক ব্যাপার। ধর্মঘটের দিন কাজে যাওয়া বা না যাওয়া যে কোনও ব্যক্তির ইচ্ছা। তাঁর সংযোজন, সরকার বা কর্তৃপক্ষ আগে থেকে আসার নির্দেশ দিলে যদি কেউ না মানে তাহলে সরকারেরও মাইনে কাটার অধিকার আছে। তবে শিক্ষামন্ত্রীর এই বক্তব্য ইতিমধ্যেই প্রশ্ন তুলেছে যা গনতান্ত্রিক অধিকার তার খর্ব করে সরকারই বা কেন নির্দেশ জারি করছে।