টুকলি সাপ্লায়ারদের রামরাজত্ব, মাধ্যমিকে 'যত খুশি টোকো'

টুকলি সাপ্লায়ারদের রামরাজত্ব, মাধ্যমিকে 'যত খুশি টোকো'

আবার মাধ্যমিক। আবার সেই টোকাটুকি। গতবছরের পর এবারও, টুকলি সাপ্লায়ারদের রামরাজত্ব চলল। মাধ্যমিকের দ্বিতীয় দিনে, রাজ্যের বহু জেলায় ধরা পড়েছে গণটোকাটুকির ছবি। পরীক্ষাকেন্দ্রের আশেপাশে দেখা মেলেনি পুলিস কর্মীদের। রুখবে কে!

মাধ্যমিকের প্রথম দিন ঘটনাবহুল- পরীক্ষার্থীকে অপহরণ, শ্রীরামপুরে স্কুলে ভাঙচুর  মাধ্যমিকের প্রথম দিন ঘটনাবহুল- পরীক্ষার্থীকে অপহরণ, শ্রীরামপুরে স্কুলে ভাঙচুর

পরীক্ষা দিতে যাওয়ার পথে অপহরণ করা হল এক পরীক্ষার্থীকে। গতকাল সকালে এই ঘটনা ঘটেছে নদীয়ার শান্তিপুরের বড়গোস্বামী পাড়া এলাকায়। পরীক্ষার্থীর নাম সুস্মিতা দত্ত। তাঁর খোঁজে তল্লাসি শুরু করেছে পুলিস।

 কাল মাধ্যমিক, এখনও অ্যাডমিট কার্ডই হাতে আসেনি, পরীক্ষায় বসা নিয়ে সংশয় কাল মাধ্যমিক, এখনও অ্যাডমিট কার্ডই হাতে আসেনি, পরীক্ষায় বসা নিয়ে সংশয়

কাল থেকে শুরু এবছরের মাধ্যমিক পরীক্ষা। অথচ এখনও অ্যাডমিট কার্ড হাতে পায়নি হুগলির শ্রীরামপুর বিদ্যাপীঠের ২৩ জন ছাত্রছাত্রী। এঅবস্থায় আজ শ্রীরামপুর পুরসভার কাউন্সিলরের সঙ্গে মুখ্যম

মাধ্যমিকের ফলাফল সরাসরি আমাদের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে

মাধ্যমিকের ফলাফল সরাসরি আমাদের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে

একটু পরেই প্রকাশিত হতে চলেছে মাধ্যমিকের ফল

আজ প্রকাশিত হতে চলেছে মাধ্যমিক পরীক্ষার ফল। সকাল নটায় ফল প্রকাশ করবেন মধ্যশিক্ষা পর্ষদের প্রশাসক কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়। দশজনের মেধাতালিকাও প্রকাশিত হবে আজ। ওয়েবসাইট ও এসএমএসের মাধ্যমে ফল জানতে পারবেন পরীক্ষার্থীরা। এবছর পরীক্ষায় বসেছিলেন প্রায় সাড়ে দশ লক্ষ পরীক্ষার্থী।

মাধ্যমিকে ইংরাজীতে অন্যভাবে লিখলে তবেই নম্বর, পর্ষদের নির্দেশিকায় বিভ্রান্তি-বিতর্ক

খোদ পর্ষদের বইয়ে যেভাবে উত্তর দেওয়া হয়েছে সেভাবে উত্তর লিখলে চলবে না। অন্যভাবে উত্তর লিখলে তবেই নম্বর। মাধ্যমিকের ইংরাজীর একটি প্রশ্নের উত্তর হিসেবে পরীক্ষকদের কাছে এমনই নির্দেশিকা পাঠিয়েছে পর্ষদ। আর সেই নির্দেশ ঘিরেই তৈরি হয়েছে বিভ্রান্তি। কেন বইয়ের নিয়মে উত্তর দিলে নম্বর পাওয়া যাবে না উঠছে সেই প্রশ্ন।

আজ থেকে শুরু মাধ্যমিক, নকল রুখতে নজরদারি পর্ষদের

আজ থেকে শুরু হচ্ছে এবছরের মাধ্যমিক পরীক্ষা। লিখিত পরীক্ষা শেষ হবে ৬ মার্চ। পরীক্ষার্থীর সংখ্যা প্রায় দশ লক্ষ একান্ন হাজার। গত বছরের তুলনায় এবছর পরীক্ষার্থীর সংখ্যা প্রায় ১৪ হাজার বেড়েছে। মহিলা পরীক্ষার্থীর সংখ্যা গতবারের তুলনায় এবার প্রায় ১৪ হাজার বেশি। টোকাটুকির ঘটনা আটকাতে প্রতি জেলায় দশটি করে ভিডিও ক্যামেরার ব্যবস্থা রাখা হচ্ছে। মূলত ৫৬টি স্পর্শকাতর কেন্দ্র এবং অন্যান্য এলাকায় এই ক্যামেরাগুলি কাজে লাগানো হবে। সকাল ১১.৪৫টা থেকে বিকাল ৩টে পর্যন্ত পরীক্ষা চলবে।

এবার ভিডিও ক্যামেরার নজরদারিতে হবে মাধ্যমিক পরীক্ষা

এবার ভিডিও ক্যামেরার নজরদারিতে হবে মাধ্যমিক পরীক্ষা

মাধ্যমিকে প্রশ্নপত্র বিভ্রাট দ্বিতীয় দিনেও

মাধ্যমিকে প্রশ্নপত্রের বিভ্রাটের অভিযোগ উঠল আরও দুটি পরীক্ষাকেন্দ্রে।  বেলতলা গার্লস স্কুলের মতোই গতকাল নাকাল হতে হয়েছে ভবানীপুর আদর্শ হিন্দি হাইস্কুলের ছাত্রদের। ঘটনাটি ঘটেছে ন্যাশনাল হাইস্কুলে। প্রশ্নপত্র বিভ্রাটে নাকাল হতে হয়েছে আলিপুরদুয়ারের হিন্দি হাইস্কুল সেন্টারের পরীক্ষার্থীদেরও। ছাত্রছাত্রীরা সমস্যায় পড়েছে।  গোটা ঘটনার পর পেরিয়ে গেছে চব্বিশ ঘণ্টা। পর্ষদের কাছে এখনও স্পষ্ট নয় ঠিক কী ঘটেছে। ফলে ব্যবস্থা নেওয়া দূর অস্ত। 

মাধ্যমিকের প্রথম দিনেই গণটোকাটুকি জেলা জুড়ে

গতবছরের মতো এবারও মাধ্যমিক পরীক্ষার প্রথম দিনেই গণটোকাটুকি চলল উত্তর দিনাজপুরের জেলা জুড়ে। সব চেয়ে বেশি অভিযোগ এসেছে ইসলামপুর, চাকুলিয়া, করণদিঘি এলাকা থেকে। গণটোকাটুকি চলে চোপড়া ও গোয়ালপোখরেও। গ্রেফতার হয়েছে ৩৫ জন। অভিযোগ, ছিল না পর্যাপ্ত পুলিসি ব্যবস্থা। তাই নির্ভয়ে দেওয়াল বেয়ে উঠেই চলল টুকলির সাহায্য।

মাধ্যমিকের প্রথম দিনেই বিভ্রাট

ফের প্রশ্নপত্র বিভ্রাট মাধ্যমিকের প্রথম দিনেই । অভিযোগ, এক সিলেবাসের ছাত্রীদের দেওয়া হল অন্য সিলেবাসের প্রশ্নপত্র। ঘটনা রাসবিহারী এলাকার অন্ধ্র হাইস্কুলের। বেলতলা গার্লস স্কুলের সীট পড়েছিল এই স্কুলে। অভিযোগ, শুধুমাত্র দশম শ্রেনীর বিষয়ের ওপরেই যেসব ছাত্রীদের পরীক্ষা দেওয়ার কথা ছিল,  তাদের দেওয়া হয় দশম ও নবম শ্রেনীর পাঠ্য বিষয়ের ওপর তৈরি প্রশ্ন।

কাল শুরু মাধ্যমিক, চক্রান্তের আশঙ্কা খোদ শিক্ষামন্ত্রীর

মাধ্যমিক পরীক্ষার আগে চক্রান্ত আশঙ্কার কথা বললেন খোদ শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। আগামিকাল, সোমবার থেকে শুরু হতে চলেছে মাধ্যমিক। এত বড় পরীক্ষার আগে ব্রাত্য বসুর বিতর্কিত মন্তব্য, যা চলছে তাতে যা কিছু হতে পারে। সাংবাদিকদরা তখন তাঁকে প্রশ্ন করেন আপনি কি প্রশ্ন ফাঁস হওয়ার আশঙ্কা করছেন। ব্রাত্য বসু বলেন, বেকার ছেলেমেয়েদের চাকরির জন্য পরীক্ষা আটকাতে যদি আদালতে যাওয়া হয়, তাহলে মাধ্যমিকেও এমন হতেই পারে। তবে তিনি বলেন, সব রকম চক্রান্ত ঠেকাতে প্রশাসন তৈরি।