ওয়ান টাচ খেলে ডান পা না ছুইয়ে 'বাঁ' পায়ে মেসির ম্যাজিকাল গোল

ওয়ান টাচ খেলে ডান পা না ছুইয়ে 'বাঁ' পায়ে মেসির ম্যাজিকাল গোল

এমন এক গোল যা নিয়ে ঝড় উঠছে গোটা বিশ্বে। ফুটবলের মহাতারকারা বলছেন, এই গোল একমাত্র মেসির 'বা' পা থেকেই সম্ভব। কোপা দেল রে কাপের ফাইনাল ম্যাচে ২০ মিনিটের মাথায় মাঝ মাঠ থেকে ৫ জনকে কাটিয়ে ডি বক্স থেকে বা পায়ের ইনসউইং কিক, বারের গা ঘেসে জালে জড়াল বল। গোটা স্টেডিয়াম উঠে দাড়িয়ে অভিবাদন জানালো একজনকে। সেই একজন আর কেও নন, একমাত্র লিও মেসি। আর এই ভাবেই বার্সেলোনার ১০ নম্বর আরও একবার ঢুকে পড়লেন সোনায় মোড়া ইতিহাসের পাতায়। এল এম টেনের এই গোলের পর, ফুটবল বিশ্ব বলছে সর্বকালের সেরা গোলের মধ্যে এটি একটি। কোপা দেল রেতে এমন গোল না কি এর আগে কেও করেনি। 

মেসি-সুয়ারেজ-নেইমারের 'সেঞ্চুরি' মেসি-সুয়ারেজ-নেইমারের 'সেঞ্চুরি'

২০০৮-২০০৯ মরশুমে ৯৯ টি গোল করে রেকর্ড গড়েছিলেন বার্সেলোনার তিন স্ট্রাইকার মেসি, এটো ও অরি। বার্সার ক্রিফলা স্ট্রাইক ফোর্সের সেই রেকর্ড ভেঙে দিলেন মেসি, সুয়ারেজ ও নেইমার। চলতি মরশুমে গোলের সেঞ্চুরি করে ফেললেন বার্সেলোনার এমএসএন। মেসি,সুয়ারেজ ও নেইমারের ত্রিফলা আক্রমণের সামনে চলতি মরশুমে ভেঙে পড়েছে বহু দল। মঙ্গলবার রাতে বাদ গেল না গেটাফেও। হাফডজন গোলে প্রতিপক্ষকে হারিয়ে লা লিগার খেতাবী দৌড়ে রিয়াল মাদ্রিদের থেকে আপাতত ৫ পয়েন্টে এগিয়ে গেল ক্যাটালিয়ান্সরা। ম্যাচের ২৮ মিনিটের মধ্যে গোল করে ফেলেন মেসি, সুয়ারেজ ও নেইমার। বার্সার ৪ নম্বর গোলটি করেন অভিজ্ঞ মিডফিল্ডার জাভি। দ্বিতীয়ার্ধে ফের গোল করেন সুয়ারেজ ও মেসি। চলতি মরশুমে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে বার্সার তিন তারকার গোলের সংখ্যা দাঁড়াল ১০৩।