অভিমানী  মেহতাব, দলে জায়গা না পেয়ে ভারতীয় দল থেকে অবসরের সিদ্ধান্ত

অভিমানী মেহতাব, দলে জায়গা না পেয়ে ভারতীয় দল থেকে অবসরের সিদ্ধান্ত

স্টিভেন কনস্ট্যানটাইনের ২৬ জনের দলে জায়গা না পেয়ে কিছুটা অভিমানেই জাতীয় দল থেকে অবসর নিয়েছেন মেহতাব হোসেন। মালয়েশিয়ায় এএফসি কাপ খেলতে গিয়েই জাতীয় দল থেকে অবসরের ভাবনাচিন্তা শুরু করেছিলেন লাল-হলুদের এই মিডিও। ইচ্ছা ছিল নেপালের বিরুদ্ধে  দুটো ম্যাচ খেলেই অবসর নেবেন। কিন্তু চূড়ান্ত দলে জায়গা না পেয়ে সেই ইচ্ছা আর পূরণ করা হয়নি। তবে মেহতাব ফেডারেশনকে চিঠি জানাবেন যে কোনও একটা আন্তর্জাতিক প্রদর্শনী ম্যাচে অন্তত ১০ মিনিটের জন্য জাতীয় দলের জার্সি গায়ে মাঠে নামতে চান তিনি।

ভিসা সমস্যায় এএফসি কাপ সেমিফাইনালে যেতে পারলেন না ইস্টবেঙ্গল অধিনায়কসহ ৩ ফুটবলার

ভিসা সমস্যার কারণে শনিবার দলের সঙ্গে এএফসি কাপ সেমিফাইনাল খেলতে কুয়েত যেতে পারলেন না ইস্টবেঙ্গল অধিনায়কসহ দলের তিন ফুটবলার। ভিসা পাননি দলের ম্যানেজার সহ চার ক্লাব কর্তাও। চক্রান্তের গন্ধ পাচ্ছেন লালহলুদ কর্তারা। গোটা ঘটনার তদন্তের জন্য ফেডারেশনের হস্তক্ষেপ চেয়েছে ইস্টবেঙ্গল। কুয়েত যেতে পারলেন না অধিনায়ক মেহতাব হোসেন সহ তিন ফুটবলার।কুয়েত যাননি দুই ডিফেন্ডার অর্ণব মন্ডল আর গুরবিন্দর সিং।বিমানবন্দর থেকে ফিরতে হল তাদের।

"আটজনে মিলে ডিফেন্স করে ম্যাচ বাঁচাল মোহনবাগান"

ম্যাচ নিষ্ফলা হল, মাঠেও সেভাবে লোক হল না। তাতে কী! ম্যাচ শেষের পর দু দলের বাকযুদ্ধে জমজমাট থাকল ডার্বি। ম্যাচ ড্র করার পর মেহতাব হোসেনের কটাক্ষ,আটজনে মিলে ডিফেন্স করে ম্যাচ বাঁচিয়েছে মোহনবাগান। পাল্টা কটাক্ষ মোহন ডিফেন্সের ভরসা নির্মল ছেত্রীর। ফলাফলই সব,এসব অভিযোগ ধোপে টিকবে না। যুযুধান দুই পক্ষের ফুটবলাররা যখন বাকযুদ্ধে নেমেছে,তখন গোল না পাওয়ার আফশোস মাঠ ছাড়লেন ওডাফা।