যাদবপুরের আন্দোলনকারী ছাত্রীদের উদ্দেশ্যে কুরুচিকর মন্তব্য ফের বিতর্কে দিলীপ ঘোষ

যাদবপুরের আন্দোলনকারী ছাত্রীদের উদ্দেশ্যে কুরুচিকর মন্তব্য ফের বিতর্কে দিলীপ ঘোষ

যাদবপুরের আন্দোলনকারী  ছাত্রীদের উদ্দেশ্যে কুরুচিকর মন্তব্য..ফের বিতর্কে দিলীপ ঘোষ..বিজেপি রাজ্য সভাপতির মন্তব্য ঘিরে নিন্দার ঝড় সব মহলে...

যাদবপুরে ভর্তি করানোর টেনশনের জায়গায় এখন ভর্তির পর কী হবে, সেই দুশ্চিন্তা! যাদবপুরে ভর্তি করানোর টেনশনের জায়গায় এখন ভর্তির পর কী হবে, সেই দুশ্চিন্তা!

যাদবপুরে এবিভিপিকে আটকাতে সমস্ত বাম, গণতান্ত্রিক ও ধর্মনিরপেক্ষ শক্তিকে এগিয়ে আসার ডাক দিলেন সিপিএম সাধারণ সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র। ট্যুইটে সূর্যকান্ত মিশ্র লিখেছেন-

JUকাণ্ডে অভ্যন্তরীণ রিপোর্টেও বহিরাগত তত্ত্বেই সিলমোহর JUকাণ্ডে অভ্যন্তরীণ রিপোর্টেও বহিরাগত তত্ত্বেই সিলমোহর

JU কাণ্ডে অভ্যন্তরীণ রিপোর্টেও বহিরাগত তত্ত্বেই সিলমোহর। শুক্রবার ক্যাম্পাসে বিশৃঙ্খলার জন্যে দায়ী চার বহিরাগতই। রাজ্যপালকে দেওয়া রিপোর্টে কাল জানালেন উপাচার্য। রিপোর্ট উঠে এসেছে বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য। বলা হয়েছে, যে হলে চিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছিল তা বিশ্বিদ্যালয়ের হল নয়। হলের দায়িত্ব প্রাক্তনী সংসদ। সেক্ষেত্রে প্রদর্শীর অনুমতি দেওয়া বা তা অনুমতি প্রত্যাহার করায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের হাত নেই।  দ্বিতীয়ত, বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানতে পেরে ছবিটির  প্রদর্শনীতে বারণ করে। তবে সেই নিষেধাজ্ঞা অমান্য করেই মাঠে চলতে থাকে প্রদর্শনী।

ফের একবার রাজপথে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা ফের একবার রাজপথে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা

ফের একবার রাজপথে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা। শুক্রবারের ঘটনায় দোষীদের শাস্তির দাবিতে মিছিল হল যাদবপুর থেকে গোলপার্ক পর্যন্ত। তাদের সাফ কথা, ক্যাম্পাসে কোনও সাম্প্রদায়িক শক্তিকে বরদাস্ত করা হবে না।  সোমাবার যাদবপুর এইটবি বাসস্ট্যান্ড থেকে পাল্টা মিছিল করবে ABVP।

  কী ছিল সিনেমায়? যার জন্য এত কাণ্ড ক্যাম্পাসে? কী ছিল সিনেমায়? যার জন্য এত কাণ্ড ক্যাম্পাসে?

সিনেমা দেখানো নিয়ে ধুন্ধুমার যাদবপুরের ক্যাম্পাসে। একদিকে বিবেক অগ্নিহোত্রীর ছবি বুদ্ধা ইন আ ট্রাফিক জ্যাম। অন্য দিকে ছাত্রদের পাল্টা দেখানো ডকুমেন্টরি, মুজফ্ফর নগর বাকি হ্যায়। কী ছিল সিনেমায়? যার জন্য এত কাণ্ড ক্যাম্পাসে? বিবেক অগ্নিহোত্রীর এক ঘণ্টা আট চল্লিশ মিনিটের ছবি বুদ্ধা ইন আ ট্রাফিক জ্যাম। ইতিমধ্যেই বেশ কিছু উত্সবে প্রশংসিত। এ মাসেই ছবিটি মুক্তি পাওয়ার কথা।  তার আগেই বিতর্কের কেন্দ্রে ছবিটি।  কী এমন রয়েছে বিবেকের এই নতুন ছবিতে যা ঘিরে এত বিতর্ক?

সিনেমা ঘিরে উত্তাল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় সিনেমা ঘিরে উত্তাল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়

সিনেমা ঘিরে উত্তাল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়। আজ যাদবপুর প্রাক্তনী সংসদের হলে একটি সিনেমা দেখানোর কথা ছিল। কিন্তু গতকাল পর্যন্ত তার অনুমতি মেলেনি। আজ এবিভিপি সমর্থিত ছাত্ররা সিনেমা দেখানোর অনুমতি দেওয়ার দাবি জানিয়ে মিছিল করে বিশ্ববিদ্যালয় চত্ত্বরে আসে। অনুমতি না মেলায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মাঠেই সিনেমাটি দেখানো হয়।

এগিয়ে আসছে ভোট, বাড়ছে রাজনৈতিক উত্তাপ এগিয়ে আসছে ভোট, বাড়ছে রাজনৈতিক উত্তাপ

কেন্দ্র বেহালা পশ্চিম। প্রার্থী তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়। এই কেন্দ্রে জয় নিয়ে ১০০ ভাগ নিশ্চিত তিনি। তাই প্রচারে নেমে উড়িয়ে দিলেন বাম-কংগ্রেস জোটকে। অন্যদিকে যাদবপুর দুর্গ পুনর্দখলের লড়াইয়ে সামিল সুজন চক্রবর্তী। এই লড়াইয়ে তাঁর হাতিয়ার নারদকাণ্ড।

যাদবপুরে কর্মীদের চাঙ্গা করতে একগুচ্ছ পরামর্শ সূর্যকান্ত মিশ্রর যাদবপুরে কর্মীদের চাঙ্গা করতে একগুচ্ছ পরামর্শ সূর্যকান্ত মিশ্রর

পরিবর্তন মানে অষ্টম বামফ্রন্ট সরকার নয়। গড়ে তুলতে হবে বাম গণতান্ত্রিক ধর্মনিরপেক্ষ বিকল্প সরকার। যাদবপুরের কর্মিসভায় এভাবেই কর্মী-সমর্থকদের উদ্দীপ্ত করলেন সূর্যকান্ত মিশ্র। কর্মীদের চাঙ্গা করতে একগুচ্ছ পরামর্শও দেন সিপিএম রাজ্য সম্পাদক। একদিকে পাল্টা প্রতিরোধ, অন্যদিকে মানুষের সঙ্গে মিশে ভোট চাওয়ার বার্তা দিয়েছেন তিনি। মানুষের দাওয়ায় দাওয়ায় বৈঠক করে মানুষের সঙ্গে নিবিড় সম্পর্ক গড়ে তুলতে বলেছেন সূর্যকান্ত মিশ্র। মানুষের ভোটাধিকার সুনিশ্চিত করতে সামনে থেকে লড়াইয়ের ডাক দিয়েছেন তিনি। তৃণমূল এবং বিজেপির অশুভ আঁতাঁতের অভিযোগ তুলে ফের সতর্ক করে দিয়েছেন বাম কর্মীদের। দলমত না দেখে সব গণতান্ত্রিক শক্তিকে একত্রিত করে লড়ার ডাক দিয়েছেন সূর্যকান্ত মিশ্র। তৃণমূলকে হারানোই যে মূল চ্যালেঞ্জ, জোটের পক্ষে সওয়াল করে ফের স্পষ্ট করে দিয়েছেন তিনি। যাদবপুরের বাম প্রার্থী সুজন চক্রবর্তী এবং টালিগঞ্জের বাম প্রার্থী মধুজা সেন রায়ের সমর্থনে গাঙ্গুলিবাগানের কর্মিসভায় এদিন সিপিএম রাজ্য সম্পাদক এভাবেই কর্মীদের লড়াইয়ের রূপরেখা ঠিক করে দেন।

আজ বেলা বারোটায় ঢাকুরিয়া থেকে এইট বি পর্যন্ত মিছিল ABVPর আজ বেলা বারোটায় ঢাকুরিয়া থেকে এইট বি পর্যন্ত মিছিল ABVPর

JNUয়ের পর তোলপাড় JU। দেশবিরোধী পোস্টার ঘিরে কাল ধুন্ধুমার  বিশ্ববিদ্যালয়ে ।পোস্টার ছেঁড়ার নামে ক্যাম্পাসে তাণ্ডব একদল ছাত্রের। নজিরবিহীন ঘটনায় স্তম্ভিত পড়ুয়া থেকে অধ্যাপক। আজও থমথমে ক্যাম্পাস। আজ একগুচ্ছ কর্মসুচি  যুযুধান দুই পক্ষেরই। দেশদ্রোহী স্লোগানিংয়ের প্রতিবাদে আজ বেলা বারোটায় ঢাকুরিয়া থেকে এইট বি পর্যন্ত মিছিল ABVPর। তবে কাল তাণ্ডবে যোগ আছে ABVPর । এমনটাই দাবি ছাত্রছাত্রীদের একাংশের।  সেক্ষেত্রে ফের কোনওরকম অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে তত্পর পড়ুয়ারা।  ABVPর মিছিল যাতে কোনওভাবেই ক্যাম্পাসে ঢুকতে না পারে তার জন্যে সকাল থেকেই শুরু তোড়জোড়। দশটা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সবকটি গেটে অবস্থান পড়ুয়াদের। এগারোটায় ক্যাম্পাসের ভেতরেই মিছিল মানববন্ধনের ডাক।

পোস্টার ছেঁড়ার নামে কার্যত ভাঙচুর চলল যাদবপুর ক্যাম্পাসে পোস্টার ছেঁড়ার নামে কার্যত ভাঙচুর চলল যাদবপুর ক্যাম্পাসে

পোস্টার ছেঁড়ার নামে কার্যত ভাঙচুর চলল যাদবপুর ক্যাম্পাসে। সন্ধেয় বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে ঢুকে সব পোস্টার ছিঁড়ে দেন একদল পড়ুয়া।  এধরণের ঘটনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসে নজিরবিহীন একমত ছাত্র-শিক্ষক দুপক্ষই। দেশবিরোধী স্লোগান,পোস্টার, পাল্টা মিছিল। JNU আঁচে দিনভর উত্তপ্ত যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়। সারাদিনের উত্তেজনা ক্লাইম্যাক্সে পৌছল সন্ধেয়। পোস্টার ছেঁড়ার অজুহাতে ক্যাম্পাসে দাপিয়ে বেড়াল একদল ছাত্র। আফজল-মেমন-গিলানি সমর্থনের লাগানো পোস্টারতো বটেই, ছেঁড়া হল ক্যাম্পাসে লাগানো বাকি সব পোস্টার। পড়ুয়াদের দাবি ক্যাম্পাসের ময়লা সাফ করছেন তাঁরা।

যাদবপুরের বিজয়গড়ে শুরু হল বারো ভূতের মেলা যাদবপুরের বিজয়গড়ে শুরু হল বারো ভূতের মেলা

যাদবপুরের বিজয়গড়ে শুরু হল নারায়ণের দ্বাদশ অবতার রূপে বারো ভূতের মেলা। পয়লা মাঘ থেকে শুরু হয়ে চৌঠা মাঘ পর্যন্ত চলবে মেলা। এবার পঁয়ষট্টি বছরে পা দিল এই মেলা। যাদবপুরের বিজয়গড়ে নারায়ণের দ্বাদশ রূপ মেলার একটা ইতিহাস রয়েছে। শোনা যায় দুশো তিয়াত্তর বছর আগে বাংলাদেশের রহিতপুর গ্রামের বাসিন্দা চৈতন্য ঘোষ নারায়ণের দ্বাদশ রূপ দর্শন করেন। স্বপাদেশ পেয়ে এরপরই পুজো শুরু করেন তিনি। পরবর্তী কালে চৈতন্য ঘোষের বংশধররা বাংলাদেশ থেকে এদেশে চলে আসেন। সেই থেকেই বিজয়গড়ে শুরু হয় নারায়ণের দ্বাদশ রূপ মেলা। পৌষ সংক্রান্তিতে মহিলারা সন্তানের মঙ্গল কামনায় জোড়া ডিম ও ফল দিয়ে পুজো শুরু করেন।

এবার মিছিলে ডাকলেন যাদবপুরের আন্দোলনকারী ছাত্ররা এবার মিছিলে ডাকলেন যাদবপুরের আন্দোলনকারী ছাত্ররা

নির্দিষ্ট সময়ে ছাত্র ভোট হোক যাদবপুরে। এই দাবিকে যারা সমর্থন করেন তাদের এবার মিছিলে ডাকলেন আন্দোলনকারী ছাত্ররা।আগামী মঙ্গলবার এই মিছিল হবে।এই ইস্যুতে ফের বড় আন্দোলন করলে ছাত্রদের থেকে কতটা সমর্থন মিলবে, তা বুঝতেই এই উদ্যোগ। তার পরেই নিজেদের পরবর্তী কর্মসুচি ঠিক করবেন আন্দোলনকারীরা। গতকালের সাধারণ সভায় এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ছাত্ররা। নির্দিষ্ট সময়ে ভোটের ইস্যুতে মিটিং করেছে প্রেসিডেন্সির ছাত্র সংগঠন আইসিও। তাদের দখলেই এখন প্রেসিডেন্সির ইউনিয়ন। ঠিক হয়েছে ক্লাসে ক্লাসে প্রচারের পর ছাত্রদের মত বুঝে পরবর্তী পদক্ষেপ ঠিক করবেন তাঁরা। 

 অনেক কেন আছে, তার উত্তর কারও কাছে নেই অনেক কেন আছে, তার উত্তর কারও কাছে নেই

আলোচনার প্রস্তাবেই শেষ পর্যন্ত উঠল অবস্থান। অথচ বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তো শুক্রবারই এই প্রস্তাব দেয়। তাহলে কেন সিদ্ধান্ত নিতে লেগে গেল বাহান্ন ঘণ্টা? উঠছে প্রশ্ন।শুক্রবার সন্ধে ছটা। বিশ্ববিদ্যালয় কর্মসমিতি জানিয়ে দেয় ছাত্রছাত্রীদের, নির্বাচনের দাবির সঙ্গে তাঁরা পুরোপুরি সহমত। সে ক্ষেত্রে রাজ্যপালের সঙ্গে কথা বলেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

অবশেষে ঘেরাও অবস্থান তুলে নিলেন বিক্ষোভরত ছাত্রছাত্রীরা অবশেষে ঘেরাও অবস্থান তুলে নিলেন বিক্ষোভরত ছাত্রছাত্রীরা

অবশেষে ঘেরাও অবস্থান তুলে নিলেন বিক্ষোভরত ছাত্রছাত্রীরা। বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র সংসদ নির্বাচন নিয়ে রাজ্যপাল, কলেজ পরিচালনসমিতির সঙ্গে ত্রিপাক্ষিক বৈঠকের দাবি জানিয়েছে তাঁরা। একইসঙ্গে তাঁদের দাবি জানুয়ারি মাসেই জারি করতে হবে নির্বাচনের বিজ্ঞপ্তি। নিজেদের দাবিগুলি নিয়ে ফের পরিচালন সমিতির কাছে যাচ্ছে আন্দোলনরত ছাত্রছাত্রীরা।

ভোটের দাবিতে উপাচার্য, সহ উপাচার্য, রেজিস্ট্রার, অধ্যাপক ও পরিচালন সমিতির সদস্যদের ঘেরাও ছাত্র-ছাত্রীদের ভোটের দাবিতে উপাচার্য, সহ উপাচার্য, রেজিস্ট্রার, অধ্যাপক ও পরিচালন সমিতির সদস্যদের ঘেরাও ছাত্র-ছাত্রীদের

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে ফের অশান্তি। ছাত্র সংসদের ভোট করার দাবিতে উপাচার্য, সহ উপাচার্য, রেজিস্ট্রার, অধ্যাপক  ও পরিচালন সমিতির সদস্যদের ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন ছাত্র-ছাত্রীরা। বিষয়টি নিয়ে আচার্যের সঙ্গে  সোমবার কথা বলার আশ্বাস দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। যদিও ছাত্র-ছাত্রীদের দাবি আজই নোটিফিকেশন জারি করতে হবে।বিজ্ঞপ্তি জারি না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে বলেও জানিয়েছেন তারা। গত অক্টোবরেই শিক্ষামন্ত্রী  নির্দেশ দেন মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার জন্য জুন-জুলাইয়ের আগে কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে ভোট করা যাবে না। যদিও,গত মঙ্গলবার যাদবপুর বিশ্বিদ্যালয়ের কর্মসমিতি নিজেদের নির্ঘণ্ট মেনেই ভোটের পক্ষে সিদ্ধান্ত নেয়। সরকারকে সেকথা জানানোও হয়। কিন্তু পত্রপাঠ সেই প্রস্তাব খারিজ করে শিক্ষাদফতর। এই ঘটনা,তাদের স্বাধিকারে হস্তক্ষেপ বলেই  মনে করছে বিশ্ববিদ্যালয়। সঠিক সময়ে নির্বাচনের দাবিতে আজ বিশ্ববিদ্যালয়ে মিছিল করে  ছাত্রছাত্রীরা। বৈঠকে করে বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মসমিতিও। ছাত্রদের দাবিকে সমর্থন জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক সংগঠন জুটা।