রাজনীতিকে ছাপিয়ে জিতল মানবিকতা

রাজনীতিকে ছাপিয়ে জিতল মানবিকতা

রাজনীতিকে ছাপিয়ে জিতল মানবিকতা। বিজয় মিছিলের জন্য টাকা তোলা হয়েছিল। সাড়ম্বরে মিছিলের প্রস্তুতিও শেষ। হঠাতই শেষ মুহূর্তে সিদ্ধান্ত বদল। চাঁদার টাকায় পাত্রস্থ করা হল এলাকারই এক দুঃস্থ তরুণীকে। বর্ধমানের দেওয়ানদিঘির ঘটনা। কাণ্ডারীর ভূমিকায় তৃণমূলের মহিলা সেল। বিপুল সংখ্যা গরিষ্ঠতা নিয়ে দ্বিতীয় বারের জন্য রাজ্যে সরকার গড়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। উত্‍সবের প্রস্তুতি হিসাবে বর্ধমানের দেওয়ানদিঘিতে বিজয় মিছিলের জন্য চাঁদা তোলাও শুরু হয়েছিল। মিছিলের প্রস্তুতিও শেষ। হঠাতই উদ্যোক্তাদের নজরে পড়ে ভিন্ন ছবি। এলাকারই বাসিন্দা লক্ষ্মী সাউ। মা মারা যাবার পর বাবা বাড়ি ছেড়ে অন্যত্র সংসার পেতেছেন। অন্যের বাড়িতে পরিচারিকার কাজ করে কোনওরকমে দিন গুজরান হয় লক্ষ্মীর । দুঃস্থ তরুণীর ভবিষ্যতের কথা ভেবে সিদ্ধান্ত বদলাতে দুবার ভাবেননি এলাকার মহিলা তৃণমূল সেলের সদস্যরা। শনিবার  মঙ্গলকোটের বাসিন্দা রাজেন্দ্রপ্রসাদ পালের সঙ্গে স্থানীয় মন্দিরে চার হাত এক হল লক্ষ্মীর।

রিলিজের মুখেই সেন্সর বোর্ডে আটকে গেল 'উড়তা পাঞ্জাব' রিলিজের মুখেই সেন্সর বোর্ডে আটকে গেল 'উড়তা পাঞ্জাব'

বড় ব্যানার, নামী স্টারকাস্ট থাকা সত্ত্বেও রিলিজের মুখেই সেন্সর বোর্ডে আটকে গেল উড়তা পাঞ্জাব। সেন্সর বোর্ডের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ফুঁসছে বি টাউন। ডায়লগ ও টাইটেল কার্ড বাদ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে CBFC. প্রথম বাছাইয়ে বাদ পড়েছিল ৪০ টি দৃশ্য। এবার দাবি, টাইটেল কার্ডে পাঞ্জাব প্রদেশের নামটি বাদ দিতে হবে। ছবির নাম রাখতে হবে উড়তা। বাদ দিতে হবে ড্রাগ নেওয়ার সিকোয়েন্স।

 এক ঝলকে দেখে নিন ১৯৮৪ সাল থেকে মমতার রাজনৈতিক কেরিয়ার এক ঝলকে দেখে নিন ১৯৮৪ সাল থেকে মমতার রাজনৈতিক কেরিয়ার

আজ দ্বিতীয়বার পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এক ঝলকে দেখে নিন, মমতার রাজনৈতিক কেরিয়ার।

দখল রাজনীতির জন্য নানুরে গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত তৃণমূলকর্মী দখল রাজনীতির জন্য নানুরে গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত তৃণমূলকর্মী

ফের দখল রাজনীতির জন্য মৃত্যু হল নানুরে। গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা গেলেন এক তৃণমূলকর্মী। ভোট মেটার পর দিন কয়েক নানুর শান্ত ছিল। ফল প্রকাশের পর আবার অশান্তি। তৃণমূলের গোষ্ঠী সংঘর্ষে এখন অগ্নিগর্ভ নানুর। সিঙ্গি গ্রামে আজ বোমাবাজি হয়। একটি তৃণমূল কার্যালয় পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। গ্রামে হানা দিচ্ছে বন্দুকবাহিনী। শান্তি নেই। খালি রক্ত। শুধুই দখল। একটাই চাহিদা, প্রশ্নহীন আনুগত্য চাইছে রাজনীতি।

জেলায় জেলায় বিক্ষিপ্ত রাজনৈতিক সংঘর্ষ চলছেই জেলায় জেলায় বিক্ষিপ্ত রাজনৈতিক সংঘর্ষ চলছেই

প্রথম দফার দ্বিতীয় দিনের ভোটপর্ব মিটলেও জেলায় জেলায় বিক্ষিপ্ত রাজনৈতিক সংঘর্ষ চলছেই। কোথাও বিজেপি প্রার্থীকে লক্ষ্য করে গুলি তো কোথাও হামলা সিপিএমের কার্যালয়ে। বিরোধী দলের কর্মীদের মারধরেরও অভিযোগ উঠেছে।

সিপিএম নেতা মহম্মদ সেলিমের গলায় হুমকির সুর সিপিএম নেতা মহম্মদ সেলিমের গলায় হুমকির সুর

এবার বদলার কথা সিপিএমের মুখেও। লাভপুরের সভায় সিপিএম নেতা মহম্মদ সেলিমের গলায় রীতিমতো হুমকির সুর। বললেন, ভোটের পরে খুনি-জল্লাদদের হিসাব নেবে সিপিএম। মহম্মদ সেলিমের বিরুদ্ধে কমিশনে যাচ্ছে তৃণমূল।

মোদীর নিশানায় মমতা, উড়ালপুল থেকে সিন্ডিকেট, বাদ গেল না কিছু মোদীর নিশানায় মমতা, উড়ালপুল থেকে সিন্ডিকেট, বাদ গেল না কিছু

মাদারিহাটের সভামঞ্চ থেকে আগাগোড়া মুখ্যমন্ত্রীকে নিশানা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তাঁর অভিযোগ, উড়ালপুল দুর্ঘটনায় মৃত্যু নিয়েও রাজনীতি করছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। উদ্ধারকাজ কিংবা মৃতদের পাশে দাঁড়ানোর পরিবর্তে মুখ্যমন্ত্রী ব্যস্ত বামেদের ঘাড়ে দায় চাপাতে। 

দেশলাইয়ের খোলের মতো চিড়ে চ্যাপটা হয়ে গেল বহু গাড়ি দেশলাইয়ের খোলের মতো চিড়ে চ্যাপটা হয়ে গেল বহু গাড়ি

ওপরে তৈরি হচ্ছে উড়ালপুল। কিন্তু নির্মীয়মাণ উড়ালপুলের নীচ দিয়ে অবাধে ছিল গাড়ি চলাচল। গাড়ি পার্ক করাও থাকত বিবেকানন্দ রোড ফ্লাইওভারের নীচে। বৃহস্পতিবার দুপুরে হুড়মুড়িয়ে সেই গাড়ির ওপর ভেঙে পড়ল উড়ালপুল। দেশলাইয়ের খোলের মতো চিড়ে চ্যাপটা হয়ে গেল বহু গাড়ি। 

কিছু বোঝার আগেই কয়েকশো টন সিমেন্টের চাঙড়ের তলায় চাপা অসংখ্য জীবন! কিছু বোঝার আগেই কয়েকশো টন সিমেন্টের চাঙড়ের তলায় চাপা অসংখ্য জীবন!

শহরের বুকে ভয়াবহ উড়ালপুড় বিপর্যয়। ব্যস্ত সময়ে ভেঙে পড়ল পোস্তার বিবেকানন্দ উড়ালপুলের একাংশ। ধ্বংসস্তূপের তলায় আটকে পড়েন অসংখ্য মানুষ। বিকেল পর্যন্ত ২৪ জনের দেহ উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। আহত অসংখ্য।

শোক-উদ্বেগ আর হাহাকারের মধ্যে ঢুকেই পড়ল রাজনীতি শোক-উদ্বেগ আর হাহাকারের মধ্যে ঢুকেই পড়ল রাজনীতি

শহরে এতবড় দুর্ঘটনা। সফর কাটছাঁট করে মুখ্যমন্ত্রী সোজা পৌছে গেলেন পোস্তায়। ঝাঁপিয়ে পড়ল সব রাজনৈতিক দল। অঘটনের ময়দানেও চলল রাজনীতির চাপানউতোর।

নারদের স্টিং অপারেশন নিয়ে কে কী বললেন নারদের স্টিং অপারেশন নিয়ে কে কী বললেন

নারদ নিউজের স্টিং অপারেশনকে হাতিয়ার করে সরব বিরোধীরা। আজ সাংবাদিক সম্মেলন করে ২৫ মিনিটের ফুটেজ দেখান বিজেপি নেতা সিদ্ধার্থনাথ সিং। তাঁর দাবি, ফুটেজ থেকেই স্পষ্ট দুর্নীতিতে ডুবে আছে তৃণমূল সরকার। ফুটেজ নিয়ে সরব বামেরা শিবিরও। কমিশনের কাছে প্রয়োজনে ভোট স্থগিত রাখার আর্জি জানাচ্ছে বামেরা। তৃণমূল শিবিরের পাল্টা যুক্তি, রাজনৈতিকভাবে মোকাবিলা করতে না পেরে ষড়যন্ত্র করছে বিরোধী শিবির। গোটা ভিডিওটাই আদতে ভুয়ো। নারদ নিউজের এডিটর ম্যাথিউ স্যামুয়েলের পাল্টা দাবি, তাদের হাতে ৫২ ঘণ্টার ফুটেজ রয়েছে। যদিও, ফুটেজ খতিয়ে দেখেনি ২৪ ঘণ্টা।

নেতাজি ফাইল প্রকাশের পর নেহরুর চিঠি নিয়েই উত্তাল জাতীয় রাজনীতি নেতাজি ফাইল প্রকাশের পর নেহরুর চিঠি নিয়েই উত্তাল জাতীয় রাজনীতি

নেতাজি যুদ্ধপরাধী! ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী এটলিকে লেখা চিঠিতে এমনটাই নাকি লিখেছিলেন জওহরলাল নেহরু! আর এই নথি সামনে আসতেই শুরু হয়েছে বিতর্ক। কংগ্রেসের দাবি  চিঠিটি জাল! চিঠিতে নেই নেহরুর কোনও সইও। তাইহোকু বিমান দুর্ঘটনাতেই কী নেতাজির মৃত্যু হয়েছিল? পঁয়তাল্লিশের আঠারোই অগাস্টের পরও কী জীবিত ছিলেন সুভাষচন্দ্র বসু? বিমান দুর্ঘটনায় সুভাষচন্দ্রের মৃত্যু হয়েছে এমনটা সম্ভবত বিশ্বাস করতে পারেননি নেহরু। আর তাই চিঠি লিখে বসেছিলেন তত্কালীন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ক্লেমেন্স এটলিকে। নেতাজি ফাইল প্রকাশ্যে আসায় সামনে এসছে এমনই একটি চিঠি। আর সেই চিঠি ঘিরেই উত্তাল জাতীয় রাজনীতি। পয়তাল্লিশেরই ডিসেম্বরে এটলিকে  নেহরু লিখছেন , বিশ্বস্ত সূত্রে তিনি জানতে পেরেছেন, এটলির চোখে যুদ্ধপরাধী  সুভাষ চন্দ্র বসু কে রাশিয়ায় ঢোকার অনুমতি দিয়েছেন স্টালিন।আর এ চিঠি সামনে আসতেই উঠছে একের পর এক প্রশ্ন?

২০১৫ সালে যে ৫ রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব লাভের গুড় ঘরে তুললেন ২০১৫ সালে যে ৫ রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব লাভের গুড় ঘরে তুললেন

২০১৫ তে কোন রাজনৈতিক নেতারা কাটালেন খুব ভালো? কাঁদের প্রভাব প্রতিপত্তি বাড়ল আগের থেকেও? এই প্রতিবেদনে আমরা এমনই ৫ জনকে নিয়ে আলোচনা করব।