আন্তর্জাতিক যোগ দিবস পালনে সেজে উঠেছে নয়াদিল্লি

আন্তর্জাতিক যোগ দিবস পালনে সেজে উঠেছে নয়াদিল্লি

আন্তর্জাতিক যোগ দিবস পালনে সেজে উঠেছে নয়াদিল্লি। তবে প্রধানমন্ত্রী এবছর চণ্ডীগড়ের ক্যাপিটল কমপ্লেক্সের অনুষ্ঠানে অংশ নিচ্ছেন। তার জন্য কড়া নিরাপত্তায় মুড়ে ফেলা হয়েছে ফরাসি স্থপতি লে কর্বুসের পরিকল্পনায় তৈরি হওয়া এই ভবন। চণ্ডীগড় ছাড়াও পঞ্জাব এবং হরিয়ানা থেকে মোট ৩০ হাজার ছাত্রছাত্রী যোগদিবসের অনুষ্ঠানে যোগাসন পরিবেশন করবেন।

মেডিক্যালে অভিন্ন জয়েন্টে কেন্দ্রের অর্ডিন্যান্সে সই করলেন রাষ্ট্রপতি মেডিক্যালে অভিন্ন জয়েন্টে কেন্দ্রের অর্ডিন্যান্সে সই করলেন রাষ্ট্রপতি

অবশেষে কাটল জট। মেডিক্যালে অভিন্ন জয়েন্টে কেন্দ্রের অর্ডিন্যান্সে সই করলেন রাষ্ট্রপতি। ফলে, বিভিন্ন রাজ্য এবছরের মতো মেডিক্যালে ভর্তির জন্য আলাদা জয়েন্ট পরীক্ষা নিতে পারবে। 

অর্ডিন্যান্স নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের ব্যাখ্যা ও আইন বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ চান রাষ্ট্রপতি অর্ডিন্যান্স নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের ব্যাখ্যা ও আইন বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ চান রাষ্ট্রপতি

অর্ডিন্যান্সে সই করার আগে কেন্দ্রীয় সরকারের ব্যাখ্যা চাইলেন রাষ্ট্রপতি। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে দেশজুড়ে মেডিক্যালে অভিন্ন প্রবেশিকা পরীক্ষা নিতে রাজি হয়েছে কেন্দ্র। কিন্তু এই বছর নয়, এই ব্যবস্থা কার্যকর হবে আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকে।

গণ ধর্ষিতা মেয়েটির প্রথম ধর্ষক হতে চাইলেন হবু প্রেসিডেন্ট গণ ধর্ষিতা মেয়েটির প্রথম ধর্ষক হতে চাইলেন হবু প্রেসিডেন্ট

আর কয়েকদিন পরই নির্বাচন। সেই নির্বাচনে নির্বাচিত হবেন দেশের রাষ্টপতি। তাই শেষ বেলায় জোর কদমে চলছে প্রচার। কিন্তু প্রচারে একি কথা বললেন তিনি! আজ বাদে কাল যিনি দেশের রাষ্ট্রপতি হতে পারেন তিনি কিনা আফশোস করছেন এক সুন্দরীকে ধর্ষণ করতে না পারার জন্য! ছিঃ ছিঃ... এ কি লজ্জা।

রাষ্ট্রপতি পদে প্রধানমন্ত্রীর পছন্দ বিগ বি! রাষ্ট্রপতি পদে প্রধানমন্ত্রীর পছন্দ বিগ বি!

ভারতের ১৪তম রাষ্ট্রপতি হতে পারেন বিগ বি। বেশ কিছুদিন ধরেই এমন একটা খবর কানে আসছে। এই খবরের সূত্রপাত করেছিলেন বিজেপি সাংসদ শত্রুঘ্ন সিনহা। তবে সেটা তো ছিল কথার পিঠে কথা। কিন্তু এবার এ খবর এসেছে খোদ প্রধানমন্ত্রীর ঘর থেকে।

উত্তরাখণ্ডে জারি হয়ে গেল রাষ্ট্রপতি শাসন উত্তরাখণ্ডে জারি হয়ে গেল রাষ্ট্রপতি শাসন

অরুণাচলের পর এবার পালা উত্তরাখণ্ডের। উত্তরের এই রাজ্যে জারি হয়ে গেল রাষ্ট্রপতি শাসন। মূলত রাজ্যপালের রিপোর্টের ভিত্তিতেই রাষ্ট্রপতি শাসনের সুপারিশে সিলমোহর দিলেন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি।

বিগ বি কে দেশের রাষ্ট্রপতি হিসেবে দেখতে চান বন্ধু শত্রুঘ্ন বিগ বি কে দেশের রাষ্ট্রপতি হিসেবে দেখতে চান বন্ধু শত্রুঘ্ন

মেয়াদ শেষ হতে আর বেশি দিন বাকি নেই। আগামী বছরের মাঝামাঝি সময় পর্যন্তই রাষ্ট্রপতি পদে থাকবেন প্রণব মুখার্জি। এখন থেকেই তাই শুরু হয়ে গিয়েছে গুঞ্জন, কে হবেন দেশের পরবর্তী রাষ্ট্রপতি। কোনও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব নাকি সম্পূর্ণ ভিন্ন ধারার কেউ? উত্তরটা শুনলে চমকে উঠবেন।

স্টিং অপারেশনের ভিডিও দেখানোর পরই রাজ্যপালের কাছে রাষ্ট্রপতি শাসনের দাবি বিজেপির স্টিং অপারেশনের ভিডিও দেখানোর পরই রাজ্যপালের কাছে রাষ্ট্রপতি শাসনের দাবি বিজেপির

দলীয় দফতরে স্টিং অপারেশনের ভিডিও দেখানোর পরের দিনই পথে নামল বিজেপি। ১৪৪ ধারা ভেঙে রাজ্যপালের কাছে রাষ্ট্রপতি শাসনের দাবি জানিয়ে এলেন দলের নেতারা। মধ্য কলকাতায় দলের অফিস থেকে শুরু হয় মিছিল। গন্তব্য রাজভবন।

রাজ্যসভাতেও প্রধানমন্ত্রীর টার্গেটে কংগ্রেস রাজ্যসভাতেও প্রধানমন্ত্রীর টার্গেটে কংগ্রেস

রাজ্যসভায় রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর সংশোধনী গ্রহণ করিয়ে নিল কংগ্রেস। রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর ধন্যবাদজ্ঞাপক প্রস্তাব নিয়ে আলোচনা। লোকসভার মতোই রাজ্যসভাতেও প্রধানমন্ত্রীর টার্গেটে কংগ্রেস।

 বাবরি মসজিদ ধ্বংস প্রধানমন্ত্রী নরসিমা রাওয়ের বড় ব্যর্থতা : প্রণব মুখোপাধ্যায় বাবরি মসজিদ ধ্বংস প্রধানমন্ত্রী নরসিমা রাওয়ের বড় ব্যর্থতা : প্রণব মুখোপাধ্যায়

বাবরি মসজিদ ধংসের ঘটনা  প্রধানমন্ত্রী হিসাবে নরসিমা রাওয়ের সবচেয়ে বড় ব্যর্থতা। আত্মজীবনীতে বিস্ফোরক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়।  আত্মজীবনীর দ্বিতীয় ভাগ দ্য টারবিউল্যান্ট ইয়ারস-এ প্রণব মুখোপাধ্যায় লিখেছেন, ১৯৯২ -র ছয়ই ডিসেম্বর তিনি বম্বেতে ছিলেন। জয়রাম রমেশ তাঁকে ফোন করে বাবরি মসজিদ ধংসের খবর দেন। প্রণববাবুর মন্তব্য,সেদিনের ঘটনা সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ভাবাবেগে আঘাত করেছিল। তাঁর মতে, অনেকেই  বাবরি মসজিদ ধংসেরজন্য তত্কালীন প্রধানমন্ত্রী নরসিমা রাওকে দায়ী  করেন। প্রণববাবুর মতে, বাবরি মসজিদ ধংস নিঃসন্দেহে প্রধানমন্ত্রী হিসাবে নরসিমা রাওয়ের সবচেয়ে বড় ব্যর্থতা।  পরে একটি ঘরোয়া বৈঠকে ব্যর্থতার জন্য নরসিমা রাওয়ের কড়া সমালোচনাও করেন প্রণব। 

অরুণাচল প্রদেশে রাষ্ট্রপতি শাসনের সুপারিশ করল কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা অরুণাচল প্রদেশে রাষ্ট্রপতি শাসনের সুপারিশ করল কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা

অরুণাচল প্রদেশে রাষ্ট্রপতি শাসনের সুপারিশ করল কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা। রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের কাছে পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে মন্ত্রিসভার সুপারিশ। অরুণাচলে সাংবিধানিক সঙ্কট মেটাতে ইতিমধ্যেই হস্তক্ষেপ করেছে সুপ্রিম কোর্ট। গঠিত হয়েছে পাঁচ বিচারপতির বিশেষ সাংবিধানিক বেঞ্চ। শীর্ষ আদালতের হস্তক্ষেপের পরও রাষ্ট্রপতি শাসনের সুপারিশ করায় মোদী সরকারের সমালোচনা করেছে কংগ্রেস। গত মাসে রাজ্য সরকারের সঙ্গে কথা না বলেই রাজ্যপাল জ্যোতিপ্রসাদ রাজখোয়া বিধানসভার আগাম অধিবেশন ডেকে দেন। কংগ্রেসের মুখ্যমন্ত্রী নাবাম টুকির অনুগামীরা বিধানসভায় তালা ঝুলিয়ে দেন। পরের দিন একটি হোটেলেবিধানসভার অধিবেশন বসান বিক্ষুব্ধ কংগ্রেস বিধায়করা।

''আগের থেকে শিক্ষার মান এখন অনেকটাই পড়েছে'', রাজভবনের অনুষ্ঠানে বললেন রাষ্ট্রপতি ''আগের থেকে শিক্ষার মান এখন অনেকটাই পড়েছে'', রাজভবনের অনুষ্ঠানে বললেন রাষ্ট্রপতি

দেশের সামগ্রিক শিক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে ফের উষ্মা প্রকাশ রাষ্ট্রপতির। আজ রাজভবনে এক অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন প্রণব মুখোপাধ্যায়। তিনি বলেন, আগের থেকে শিক্ষার মান এখন অনেকটাই পড়েছে।

অসহিষ্ণুতা নিয়ে রাষ্ট্রপতি বললেন, ময়লা আমাদের মনেই অসহিষ্ণুতা নিয়ে রাষ্ট্রপতি বললেন, ময়লা আমাদের মনেই

অসহিষ্ণুতা নিয়ে ফের মুখ খুললেন রাষ্ট্রপতি।  হিংসার প্রসঙ্গ টেনে আত্ম সচেতনতায় জোর দিলেন প্রণব মুখোপাধ্যায়। বললেন, শুধু রাস্তায় নয়, ময়লা আসলে আমাদের মনেই।

সংবিধান সম্পর্কে এই ৫ টি তথ্য জানা ভারতীয়দের প্রয়োজন সংবিধান সম্পর্কে এই ৫ টি তথ্য জানা ভারতীয়দের প্রয়োজন

ভারতের সংবিধানের প্রথম দিন আজ। ২৬ নভেম্বর। পরে এই দিনটাই পরিবর্তিত হয়ে, হয় ২৬ জানুয়ারি। এমন একটা দিনে ভারতীয় সংবিধান সম্পর্কে জেনে নিন না ৫ টা এমন তথ্য, যা জানা একজন ভারতীয় হিসেবে আপনার একান্ত প্রয়োজনীয়।

ইতিহাস পড়াতে পড়াতে ইতিহাসে ডুব দিলেন রাষ্ট্রপতি, ফিরে গেলেন নিজের স্কুলের দিনে ইতিহাস পড়াতে পড়াতে ইতিহাসে ডুব দিলেন রাষ্ট্রপতি, ফিরে গেলেন নিজের স্কুলের দিনে

শিক্ষক দিবস উপলক্ষ্যে শিক্ষকের ভূমিকায় রাষ্ট্রপতি। প্রেসিডেন্সিয়াল এস্টেটে দিল্লির নামী স্কুলের ছাত্রছাত্রীদের পড়ালেন ইতিহাস। অন্যদিকে, কীর্ণাহারের শিবচন্দ্র হাইস্কুল স্মরণ করল তার প্রাক্তন ছাত্রকে।

"এখন আমার সময় হল"...আর গাইবেন না শুভ্রা "এখন আমার সময় হল"...আর গাইবেন না শুভ্রা

দেশের রাষ্ট্রপতির ঘরণী ছিলেন তিনি। প্রণব মুখার্জির দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনের তিনি ছিলেন ছায়াসঙ্গী। নেপথ্যে থেকেও স্বামীর জীবনের প্রতিটি মাইলফলকে রয়েছে তার অবদান। দীর্ঘ ৫৮ বছরের জীবনসঙ্গী। প্রতিদিন সকালে আহ্নিক সেরে তার কপালে ফুল ছুঁয়েই দিন শুরু করতেন প্রণব মুখার্জি। আজ চলে গেলেন শুভ্রা মুখার্জি।