রাজ্যে সারদার ১২টি জেলায় সাড়ে ১৭ হাজার জমির হদিশ

চিটফান্ড প্রতারণার তদন্তে সারদা গোষ্ঠীর বিপুল পরিমাণ সম্পত্তির হদিশ পেল বিধাননগর পুলিস। বিধাননগর পুলিস সূত্রে খবর, রাজ্যের ১২টি জেলায় ২৫৬টি প্লটে প্রায় ১৭ হাজার ৫০০ ডেসিমেল জমি রয়েছে সারদা গোষ্ঠীর। এছাড়া পশ্চিমবঙ্গের বাইরেও একাধিক রাজ্যে জমি রয়েছে সারদা গোষ্ঠীর। সারদা গোষ্ঠীর স্থাবর সম্পত্তির বিস্তারিত তথ্য চব্বিশ ঘণ্টার হাতে।  

তরুণ কর্মীরাই আমাকে ডুবিয়েছে, আক্ষেপ সুদীপ্তর

সংস্থার শিক্ষিত কর্মীদের বিশ্বাসঘাতকতাই সারদা সাম্রাজ্যের পতনের কারণ। গোয়েন্দাদের কাছে জেরায় এমনই জানিয়েছেন সারদা কর্তা সুদীপ্ত সেন। পাশপাশি, রাজ্যে মিডিয়া টাইকুন হওয়ার সাধই যে তাঁকে ডুবিয়েছে, তাও স্বীকার করেছেন সারদা কর্তা। সারদা কর্তা সুদীপ্ত সেনকে জেরায় প্রতিদিনই সামনে আসছে নানা চাঞ্চল্যকর তথ্য। রাজ্য ছেড়ে পালানোর পর সুদীপ্ত সেন জানতে পারেন মিডল্যান্ড পার্কের অফিসের সামনে আমানতকারীরা বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন। সারদার আধিকারিকের সেনস্যার জানান তিনি ফিরে এসে সব ঠিক করে দেবেন। সুদীপ্তকে জেরা করে  দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিষ্ণুপুরে প্রায় পাঁচশো বিঘা জমির হদিস পেয়েছেন গোয়েন্দারা।

বিবৃতি পেশ করে পিঠ বাঁচানোর চেষ্টা দেবযানীর

পুলিস হেফাজতে থেকেই লিখিত বিবৃতিতে নিজের সাফাই দিলেন দেবযানী মুখোপাধ্যায়। প্রায় আড়াই পাতার এই বিবৃতিতে সারদাকাণ্ডে অভিযুক্ত দেবযানী নিজেকে নির্দোষ প্রমাণে ব্যস্ত থেকেছেন। বিবৃতির ছত্রে ছত্রে ধরা রয়েছে সেন স্যার অর্থাৎ সুদীপ্ত সেনের বিরুদ্ধে অসংখ্য অভিযোগ। কিন্তু এই বিবৃতির মধ্যেই ধরা পড়েছে একাধিক অসঙ্গতিও। ২০০৮ এর জানুয়ারিতে সারদায় যোগ দেওয়া সামান্য চাকুরে দেবযানী ওই বছরেরই জুলাই মাসে সারদার ডিরেক্টর হলেন কীভাবে, তা বিবৃতিতে উল্লেখ করেননি তিনি। প্রশ্ন উঠছে, পুলিস হেফাজতে থাকাকালীন একজন অভিযুক্ত আদৌ কি বিবৃতি দিতে পারেন?  

চিটফান্ড বিরোধী বিলে সই রাজ্যপালের

চিটফান্ড বিরোধী নতুন বিলে সই করলেন রাজ্যপাল এম কে নারায়ণ। রবিবার দিল্লি বিমানবন্দরে গিয়ে  বিলে রাজ্যপালের সই করিয়ে আনেন রাজ্যের অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র। তাঁর সঙ্গে বিমানবন্দরে হাজির ছিলেন মুখ্যসচিব ও অর্থসচিব। আগামিকালই এই বিল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন অমিত মিত্র। খুব শিগগিরি যাতে বিলে রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের অনুমোদন পাওয়া যায় সেজন্য সরকার সবরকম চেষ্টা চালাচ্ছে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী। 

সারদা ধাক্কায় বিধানসভায় পেশ নতুন বিল, আপত্তি বামেদের

চিটফান্ড নিয়ে নতুন বিলে চিটফান্ডের দৌরাত্ম্য রুখতে নতুন বিল আনল সরকার। বিলপাসের আগে ভোটাভুটিতে বামেরা অংশ নিলেও ভোটদানে বিরত থেকেছে কংগ্রেস। বিল নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর ভাষণের সময় কয়েকটি বিষয়ে তাঁর উত্তরে সন্তুষ্ট হতে পারেননি বামেরা। সেই কারনে ওয়াক আউটও করে বামেরা। বিল পাসের পর বিরোধী দলনেতা সূর্যকান্ত মিশ্র জানিয়েছেন বিলের বিরোধীতা করতে চান নি তাঁরা। তারা চেয়েছিলেন সংশোধনী আনতে।

সুদীপ্ত সেনের বিরুদ্ধে আরও একটি মামলা

সারদা-কাণ্ডে সিবিআই তদন্তের দাবিতে হাইকোর্টে দায়ের হল আরও একটি জনস্বার্থ মামলা। প্রধান বিচারপতি অরুণ মিশ্র ও বিচারপতি জয়মাল্য বাগচির ডিভিশন বেঞ্চে প্রদেশ কংগ্রেসের আইনজীবী সেলের তরফে আজ জনস্বার্থ মামলাটি দায়ের করা হয়। আবেদনকারী নরেন্দ্র প্রসাদ গুপ্তার আবেদনের ভিত্তিতে ২মে এই মামলার শুনানি হবে।

সারদাকে কোম্পানি বেচতে প্রভাবিত করেছিলেন শুভাপ্রসন্ন

নিজের মালিকানাধীন ঋণগ্রস্ত একটি সংস্থা বিপুল টাকায় সারদা গোষ্ঠীকে কিনে নিতে বাধ্য করেছিলেন চিত্রশিল্পী শুভাপ্রসন্ন। এমনই অভিযোগ উঠেছে শিল্পীর বিরুদ্ধে। ২০০৯ সালে দেবকৃপা নামে একটি সংস্থা কেনেন  শুভাপ্রসন্ন। কিন্তু মাস কয়েকের মধ্যেই কার্যত নিলামে ওঠার দশা হয় ওই সংস্থার। অভিযোগ, রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে কয়েক কোটি টাকায়  সারদা গোষ্ঠীকে সেই সংস্থা বিক্রি করেন শুভাপ্রসন্ন। 

সারদা আতঙ্ক: জেলায় জেলায় হাহাকার আর বিক্ষোভ জোরাল হচ্ছে

সারদা গোষ্ঠীর প্রতারণার খবর ছড়িয়ে পড়তেই জেলায় জেলায় হাহাকার আর বিক্ষোভ আরও জোরালো হচ্ছ। হুগলির পোলবায় সারদা গোষ্ঠীর গ্লোবাল মোটর্সের কর্মীরা কারখানা খোলার দাবিতে অনশন শুরু করেছেন। আলিপুরদুয়ারের ফালাকাটার জটেশ্বর গ্রামে অন্য একটি চিটফান্ডে টাকা রেখে সবর্স্ব খুইয়েছেন গ্রামের গরীব কৃষকরা। ঘটনার পর থেকেই বেপাত্তা নামগোত্রহীন ওই চিটফান্ডের মালিক।

মুখ্যমন্ত্রী বলছেন, `আমি কিছু জানতাম না`

কলকাতায় এসে এ বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে গেছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সচিন পাইলটও। ফলে, মুখ্যমন্ত্রীর `জানতাম না` তত্ত্ব ধোপে টিকছে না বলেই অভিযোগ ওয়াকিবহাল মহলের। সারদা গোষ্ঠীর বেআইনি কারবার সম্পর্কে আগে ধারণা ছিল না তাঁর। এমনই দাবি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। কিন্তু, ২০১০এই দশেই সারদার বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়ে সেবিকে চিঠি দিয়েছিল বামফ্রন্ট সরকার। রাজ্যে চিটফান্ড সংস্থার বাড়বাড়ন্ত নিয়ে একাধিকবার সরব হয়েছে তারা।

সল্টলেক থেকে জাল বিছিয়েছিলেন সুদীপ্ত

সল্টলেক থেকেই রাজ্যের প্রত্যন্ত এলাকাতেও প্রতারণার জাল ছড়িয়ে দিয়েছিলেন সুদীপ্ত সেন। তদন্তে নেমে এমন তথ্যই এসেছে পুলিসের হাতে। শুধুমাত্র সল্টলেক এলাকাতেই তাঁর সাতটি সম্পত্তির হদিস পাওয়া গিয়েছে। এরমধ্যে কোনওটিতে গভীর রাত পর্যন্ত চলত বৈঠক, কোথাও রাখা হত গুরুত্বপূর্ণ নথি। নির্দিষ্ট কয়েকজন পদাধিকারীর সই করা এন্ট্রি পাস নিয়েই মিলত ভেতরে ঢোকার অনুমতি ।

তিন মাসের মধ্যে আমানতকারীদের টাকা ফেরানোর নির্দেশ সেবির

তিন মাসের মধ্যে সারদার সমস্ত আমানতকারীকে টাকা ফেরত দেওয়ার নির্দেশ দিল সিকিউরিটি অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ বোর্ড অফ ইন্ডিয়া বা সেবি। সেবির তরফে প্রকাশিক এক নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, আমানতকারীর টাকা ফেরত না দেওয়া পর্যন্ত দেশের সমস্ত শেয়ার বাজারে সারদা গোষ্ঠীর প্রবেশ নিষিদ্ধ থাকবে। সুদীপ্ত সেন ও দেবযানী মুখোরাধ্যায় গ্রেফতার হওয়ার পরে পাওনা টাকা মেটানোর দাবি তুলছেন সারদা গোষ্ঠীর এজেন্টরাও।

সারদার গ্লোবাল মোটর্স কারখানা ক্রোক করল ব্যাঙ্ক

সারদা গোষ্ঠীর হাতে থাকা গ্লোবাল মোটর্স কারখানা ক্রোক করল ঋণ দেওয়া সাতটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক। পোলবার কারখানায় নোটিস ঝোলাতে গিয়ে বিক্ষোভের মুখে পড়তে হয় ব্যাঙ্কের আধিকারিকদের।

হুগলিতে সারদার কারখানা সিল করাকে কেন্দ্র করে তীব্র উত্তেজনা

হুগলির পোলবাতে সারদা গোষ্ঠীর মোটর সাইকেল কারখানা সিল করাকে কেন্দ্র করে তীব্র উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। আজ কারখানা সিল করতে যান সাতটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের প্রতিনিধিরা। জানা গিয়েছে ভুয়ো কাগজ দেখিয়ে সাতটি ব্যাঙ্কের কাছেই কারখানা বন্ধক রেখে ঋণ নিয়েছিল কারখানা কর্তৃপক্ষ।