নজিরবিহীন জটিলতা, আইনি পথের সওয়ারি নির্বাচন কমিশন

পঞ্চায়েত ভোট নিয়ে আদালতে যাচ্ছে নির্বাচন কমিশন। সোম অথবা মঙ্গলবার আদালতে মামলা দায়ের করতে চলেছে কমিশন। সোমবারই রাজ্যের চিঠির জবাব দেবে কমিশন। এর আগে তৃণমূলের তরফ থেকে মুকুল রায়ের প্রচ্ছন্ন হুমকির পরেও আজ বিজ্ঞপ্তি জারি করেনি কমিশন। ফলে ২৬, ৩০ এপ্রিল ভোটের সম্ভাবনা কার্যত নেই। নির্বাচন অমিশনের নিয়ম অনুয়ায়ী ভোটের ২৮ থেকে ৩৫ দিন আগে বিজ্ঞপ্তি জারি করতে হয় কমিশনকে। নিয়ম মেনে ২৬ তারিখ ভোট করতে হলে আজই বিজ্ঞপ্তি জারির শেষ দিন ছিল। ফলে আজ কমিশন বিজ্ঞপ্তি জারি না করায় রাজ্য সরকারের ঘোষিত নির্ঘণ্ট মেনে ভোট করা কার্যত অসম্ভব। 

রাজ্যে পঞ্চায়েত ভোট ২৬ ও ৩০ এপ্রিল: সুব্রত

রাজ্য নির্বাচন কমিশনের প্রস্তাব অগ্রাহ্য করে পঞ্চায়েত ভোটের দিন ঘোষণা করল রাজ্য সরকার। ২৬ ও ৩০ এপ্রিল দু`দফায় ভোটের প্রস্তাব দিল রাজ্য। এই মর্মে আজই রাজ্য নির্বাচন কমিশনকে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখার্জির ঘোষণা অনুযায়ী, বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনীর প্রস্তাবও মানছে না রাজ্য সরকার। মালদা, মুর্শিদাবাদ, উত্তর দিনাজপুরে ভোটের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে ৩০ এপ্রিল। বাকি জেলাগুলিতে ভোট হবে ২৬ এপ্রিল। সিপিআইএম জানিয়েছে, নির্বাচন কমিশনের ঘোষণা শুনেই তারা এব্যাপারে মন্তব্য করবে। কংগ্রেসের মতে,  রাজ্যের এই ঘোষণা প্রহসন। 

Live Streaming of Lalbaugcha Raja