জোট ছাড়াও ইতিমধ্যেই প্ল্যান বিও ছকে ফেলেছেন রাজ্য সিপিএমের শীর্ষনেতারা জোট ছাড়াও ইতিমধ্যেই প্ল্যান বিও ছকে ফেলেছেন রাজ্য সিপিএমের শীর্ষনেতারা

দোরগোড়ায় বিধানসভা নির্বাচন। দিল্লিতে জোরদার জোট তত্পরতা। বামসঙ্গ চেয়ে দরবার প্রদেশ নেতৃত্বের। বল এখন সোনিয়া গান্ধীর কোর্টে। তবে শুধুই কংগ্রেস নয় রাজ্যের বাম শিবিরের নজরও এখন দশ জনপথেই। তবে শুধুই জোটের ওপর ভরসা করে দুহাজার ষোলোর শক্তিপরীক্ষায় নামতে নারাজ  বামেরা। প্ল্যান এ বাম-কংগ্রেস জোট হলেও ইতিমধ্যেই প্ল্যান বিও ছকে ফেলেছেন রাজ্য সিপিএমের শীর্ষনেতারা।  কীরকম সেই প্ল্যান বি? অ্যাকশন প্ল্যানের নিরিখে বাছাই করা কেন্দ্রগুলিকে ভাগ করা হয়েছে তিনটি পর্যায়ে। কলকাতা বিধানসভার এগারোটি কেন্দ্রকে ভাগ করা হয়েছে সন্ত্রাস এবং  সাংগঠনিক শক্তির ভিত্তিতে। তৃতীয় পর্যায়ে রাখা হয়েছে এমন কেন্দ্রগুলিকে যেখানে সন্ত্রাসের আশঙ্কার পাশাপাশিই দুর্বল বামেদের সাংগঠনিক শক্তিও। এবং সেই নিরিখেই ইতিমধ্যেই ঠিক হয়ে গেছে কে কে হবেন সেনাপতি। কে কে হচ্ছেন ভোট যুদ্ধে সেনাপতি।চলুন একনজরে দেখে নেওয়া যাক:

ন্যাশনাল হেরাল্ড মামলায় সুপ্রিম কোর্টে পিটিশন ফাইল করলেন রাহুল-সোনিয়া ন্যাশনাল হেরাল্ড মামলায় সুপ্রিম কোর্টে পিটিশন ফাইল করলেন রাহুল-সোনিয়া

ন্যাশনাল হেরাল্ড মামলায় দিল্লি হাই কোর্টের রায়ের বিরোধিতা করে সুপ্রিম কোর্টে পিটিশন ফাইল করলেন রাহুল-সোনিয়া। সোনিয়া-রাহুলের পাশাপাশি পিটিশন দাখিল করেছেন শ্যাম পিত্রোদা ও সুমন দুবে। এর আগে দিল্লি হাইকোর্টে হাজিরা এড়ানোর যাবতীয় চেষ্টা বিফলে যায় সনিয়া-রাহুলের। বিজেপি নেতা সুব্রহ্মণ্যম স্বামীর অভিযোগ ইয়ং ইন্ডিয়া লিমিটেডের সিংহভাগ শেয়ার গান্ধী পরিবারের।  সোনিয়া, রাহুলের বিরুদ্ধে  কাগজের কোটি কোটি টাকার সম্পত্তি আত্মসাতের অভিযোগ ওঠে। দুহাজার চোদ্দোর অগাস্টে সোনিয়া ও রাহুলকে সশরীরে হাজিরার নির্দেশ দেয় আদালত।  ন্যাশনাল হেরাল্ড মামলায় পাতিয়ালা হাউস কোর্টে  নিঃশর্তে জামিন পেয়েছেন সোনিয়া ও রাহুল গান্ধী। মামলার পরবর্তী শুনানি হবে বিশে ফেব্রুয়ারি দুপুর দুটোয়।