হালিশহরে গিয়ে ভোটে আক্রান্ত তিন বছরের শিশুকে দেখে এলেন বিরোধীরা

হালিশহরে গিয়ে ভোটে আক্রান্ত তিন বছরের শিশুকে দেখে এলেন বিরোধীরা

হালিশহরের বারেন্দ্রপল্লিতে গিয়ে ভোটে আক্রান্ত তিন বছরের শিশুকে দেখে এলেন বিরোধীরা। আজ বেলা একটা নাগাদ দেবশ্রী ঘোষের বাড়িতে যান প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী। আধঘণ্টা পরে পৌছে যান বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু। পচিশে এপ্রিল উত্তর চব্বিশ পরগনার ভোটের আগে দেবশ্রী ঘোষকে হুমকি দেওয়া হয়। মারধর করা হয় তাঁর তিন বছরের শিশুসন্তানকে। ওই ঘটনায় তৃণমূলের বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ ওঠে। সমালোচনায় সরব হয় বিভিন্ন মহল।

ভোট পরবর্তী হিংসায় উত্তপ্ত হালিশহর ভোট পরবর্তী হিংসায় উত্তপ্ত হালিশহর

ভোট পরবর্তী হিংসায় উত্তপ্ত হালিশহর। রাতে ৭ নম্বর ওয়ার্ডের দত্তপাড়ায় ২ তৃণমূলকর্মীর ওপর হামলা। দলীয় কার্যালয় সংলগ্ন মাঠে বসে গল্প করার সময়েই আক্রান্ত হন পাপন সাহা ও সঞ্জয় দে নামে ২ যুবক। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, হঠাত্‍ই একটি টোটোতে করে এলাকায় হানা দেয় ৫ দুষ্কৃতী।  নাম করে খোঁজ শুরু হয় পাপনের। বিপদের আঁচ পেয়ে  উর্ধবশ্বাসে দৌড়তে শুরু করেন পাপন। এরপরেই তাকে লক্ষ্য করে ৫ রাউন্ড গুলি চালায়  দুষ্কৃতীরা। পিঠে গুলি লাগায় মাটিতে লুটিয়ে পড়েন পাপন। এরপরেই পাপনের সঙ্গে থাকা সঞ্জয়ের মাথায় রিভলবারের বাঁট দিয়ে আঘাত করে দুষ্কৃতীরা। গুরুতর জখম হন তিনিও।

চাপের মুখেও প্রত্যাহার করেননি মনোনয়ন, তাই ভাঙচুর হালিশহরে সিপিআইএম প্রার্থীর বাড়িতে

চাপের মুখেও মনোনয়ন প্রত্যাহার করতে রাজি হননি। তারই জেরে সিপিআইএম প্রার্থীর বাড়িতে লুঠপাটের অভিযোগ উঠল হালিশহরে। অভিযোগের নিশানায় তৃণমূল।

হালিশহরের ঘটনায় নয়া মোড়

ছাতনাতলায় গুলি করে খুনে অভিযোগ দায়ের হল পাত্রী ও তাঁর পরিবারের বিরুদ্ধে। এবার প্রতারণা ও খুনের অভিযোগ দায়ের করলেন হালিশহরের ওই মর্মান্তিক ঘটনায় মূল অভিযুক্ত রাজীব বসুর পরিবার। পাত্রপক্ষের তরফেও রবিবার সরকার পরিবারের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হয়েছিল।