লাহুল স্ফীতিতে গলছে হিমবাহ, বন্যার আশঙ্কায় হিমাচল প্রদেশ

লাহুল স্ফীতিতে গলছে হিমবাহ, বন্যার আশঙ্কায় হিমাচল প্রদেশ

উষ্ণায়নের ফলে লাহুল স্ফীতিতে গলে যাচ্ছে হিমবাহ। ফলে হিমাচল প্রদেশে তৈরি হচ্ছে নতুন হ্রদ। পর্যটকদের জন্য সুখবর হলেও চিনাব নদীতে বন্যার আশঙ্কা করছে হিমাচল সরকার।

হিমাচলে জাঙ্ক ফুডে নিষদ্ধি হচ্ছে পলিথিন প্যাকেজিং

সারা শীতকাল পর্যটকদের ভিড়ে ঠাসা থাকে ভারতের এই শৈলশহর। সময়ের সঙ্গেই জনপ্রিয়তার বাড়ার সঙ্গে সঙ্গেই ক্রমশ ঘিঞ্জি, আবর্জনায় নষ্ট হয়ে যাচ্ছিল সিমলার সৌন্দর্য। আগামী ১ জুলাই থেকে তাই জাঙ্ক ফুড, বিশেষত পটেটো চিপস ও লজেন্সে পলিথিন প্যাকেজিং নিষিদ্ধ করতে চলেছে হিমাচল প্রদেশ সরকার।

উত্তরাখণ্ডের জন্য ১,০০০ কোটির আর্থিক সাহায্য ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর

উত্তরাখণ্ডের জন্য ১,০০০ কোটি টাকার কেন্দ্রীয় সাহায্য ঘোষণা করলেন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং। প্রবল বৃষ্টিতে হিমাচল রাজ্য `বড় বিপর্যয়ের` সম্মুখীন বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

বিপাশার জলে তলিয়ে গেলেন ট্রাফিক সার্জেন্ট

হিমাচল প্রদেশে ঘুরতে গিয়ে খরস্রোতা বিপাশায় তলিয়ে গেলেন কলকাতা পুলিসের ট্রাফিক সার্জেন্ট ফ্রান্সিস পীযূষ মিঞ্জ। পরিবারের সদস্য  এবং সহকর্মীদের সঙ্গে মানালি যাচ্ছিলেন ফ্রান্সিস। গতকাল দুপুরে হিমাচল প্রদেশের মান্ডু পৌঁছন তাঁরা। বিপাশা নদীতে স্নান করতে নামেন ফ্রান্সিস। তখনই ঘটে বিপত্তি।

মধুর `চেল`-এ চন্দ্রিমা

হিমালয়ের শিবালিক শৃঙ্গের ছোট্ট শহর চেল কিছুটা একাসেরে। হিমাচল প্রদেশের অন্তর্ভুক্ত হলেও এর মূল ভূখণ্ড থেকে চিরকাল নিজেকে আলাদা রাখতেই ভালোবেসেছে চেল।

হিমাচলে বাস দুর্ঘটনা, মৃত ৪২

নদীতে যাত্রী বোঝাই বাস পড়ে গিয়ে মৃত্যু হল ৪২ জনের। বুধবার রাতে হিমাচল প্রদেশে কুলু-মানালি জাতীয় সড়কের ওপর বিয়াস নদীতে উল্টে যায় বাসটি। কুলুর ডেপুটি কমিশনর জানিয়েছেন, এখনও পর্যন্ত ৪২ জনের দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ১৫ জন ভর্তি রয়েছেন হাসপাতালে। বেশ কিছু যাত্রী নদীর স্রোতে ভেসে গিয়েছে বলে আশঙ্কা তাঁর।

হিমাচলে পালাবদল?

সকালে এগিয়ে ছিল বিজেপি। তারপর হাড্ডাহাড্ডি লড়াই চললেও বেলা গড়াতেই বদলে গেল হিমাচলের চিত্র। এগিয়ে গেল কংগ্রেস। এখনও পর্যন্ত ৩৭টি আসনে এগিয়ে রয়েছে কংগ্রেস। বিজেপি এগিয়ে রয়েছে ২৪টি আসনে। আশা করা হচ্ছে আগামী তিন-চার ঘণ্টার মধ্যেই স্পষ্ট হয়ে যাবে হিমাচলের রায়। আটষট্টি আসনবিশিষ্ট হিমাচল বিধানসভার ভোটে এবার প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন মোট ৪৫৯ জন প্রার্থী। সকাল আটটায় শুরু হয়েছে ভোটগণনা।

শৈল শহরে ভোটের উন্মাদনা ঠাণ্ডাতেও কাবু হল না

আনুষ্ঠানিকভাবে শেষ হল হিমাচল প্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনের ভোট গ্রহণ। রাজ্যের ভোটে রবিবার ৭৪ শতাংশ ভোট পড়েছে। রাজ্যের মোট ৭২৫৩ টি বুথে সকাল থেকেই চোখে পড়ে লম্বা লাইন। প্রবল ঠাণ্ডাতেও ভোটারদের উত্‍সাহ খামতি ছিল না।

মাতাল মাথেরনের ডাকে

যদিও বিয়েটা হয়েছিল সেই এপ্রিলের মাঝামাঝি। কিন্তু দুজনেরই কাজের চাপ আর সময়ের চাপে বাকি পড়ে গিয়েছিল মধুচন্দ্রিমার অবকাশ। সামনে পুজো। হাতে কিছুদিন ছুটি। এই সুযোগে সেরে নেওয়া যায় ডিউ থাকা মধুযামিনী।