কোচবিহার হোমকাণ্ডে বিতর্ক তুঙ্গে, অভিযোগ, প্রশাসনিক নিষ্ক্রিয়তার

কোচবিহার হোমকাণ্ডে বিতর্ক তুঙ্গে, অভিযোগ, প্রশাসনিক নিষ্ক্রিয়তার

কোচবিহার হোমকাণ্ডে বিতর্ক তুঙ্গে। অভিযোগ, পুলিস ও প্রশাসনিক নিষ্ক্রিয়তার। মাথাভাঙায় তৃণমূল বিধায়ক হিতেন বর্মণের স্ত্রীর হোম মাতৃ আশ্রয়ের আবাসিক শিশুদের এখনও উদ্ধার করা গেল না। গত বৃহস্পতিবারই রাজ্য

ফের বিতর্কে পুনর্বাসন কেন্দ্র, আবাসিকদের ওপর অকথ্য অত্যাচারের অভিযোগ

ফের বিতর্কে পুনর্বাসন কেন্দ্র, আবাসিকদের ওপর অকথ্য অত্যাচারের অভিযোগ

ফের বিতর্কে পুনর্বাসন কেন্দ্র। আবাসিকদের ওপর অকথ্য অত্যাচারের অভিযোগ এবার সোনারপুরের জীবনজ্যোতি ফাউন্ডেশন। হাতকড়া পরিয়ে রড দিয়ে বেধড়ক মারধর করা হয় বলে অভিয়োগ করেছেন আবাসিকরা। পুনর্বাসন কেন্দ্রের

হোমের মধ্যেই বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করলেন চার আবাসিক তরুণী!

হোমের মধ্যেই বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করলেন চার আবাসিক তরুণী!

হোমে অব্যবস্থা নিয়ে বারবার অভিযোগ। বহুবার সরব। তবু ফল না হওয়ায়, হোমের মধ্যেই বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করলেন চার আবাসিক তরুণী। এঘটনা ঘিরে তীব্র চাঞ্চল্য কোচবিহারের বানেশ্বরের শর্ট স্টে হোমে।

সল্টলেকের দত্তাবাদে শিশুকে বেধরক মারধরের অভিযোগ গ্রেফতার বাবা-মা!

সল্টলেকের দত্তাবাদে শিশুকে বেধরক মারধরের অভিযোগ গ্রেফতার বাবা-মা!

সল্টলেকের দত্তাবাদে শিশুকে বেধরক মারধরের অভিযোগ গ্রেফতার বাবা ও মা। নির্যাতিত শিশুর আপাতত ঠাঁই হল সরকারি হোমে। অভিযোগ, আট বছরের শিশুকে দিয়ে কাপড় কাচানো, বাসন ধোয়ানো, খাবার পৌছানো, ঘরের যাবতীয় কাজ

নাকতালার হোমে তিন কিশোরীর আত্মহত্যার চেষ্টা

মানসিক নির্যাতনের অভিযোগে ফের কাঠগড়ায় সরকার অনুমোদিত হোম। বৃহস্পতিবার সকালে নাকতলার আনন্দ আশ্রম হোমে আত্মহত্যার চেষ্টা করে তিন আবাসিক কিশোরী। পরিবারের অভিযোগ, হোমে নির্যাতনের শিকার ওই কিশোরীরা। যদিও

সংলাপ কাণ্ডে বিচারকের রিপোর্টের কপি ২৪ ঘণ্টার হাতে

নোদাখালির হোমে কিশোরীর ওপর অমানবিক অত্যাচারের ঘটনায় হোমের থেকে দুর্ব্যবহার পেয়ে সোনারপুর থানায় ছুটে গিয়েছিলেন নির্যাতিতা কিশোরীর পরিজনেরা। তাদের অভিযোগ, সংলাপের বিরুদ্ধে এফআইআর নিতে অস্বীকার করে

হোমে নারকীয় অত্যাচারের শিকার কিশোরী, ২৪ ঘণ্টা এক্সকিলুসিভ

হোমের খাবার খেতে আপত্তি করেছিল এক কিশোরী। গভীর রাতে হোমের এক কর্মীর প্রস্তাব মত হোমের বাইরে যেতেও সে রাজি হয়নি। পরিণামে জুটল নৃশংস অত্যাচার। লোহার রড গরম করে পুড়িয়ে দেওয়া হল কিশোরীর গোপন অঙ্গ।