জয়সা ফিল্মো মে হোতা হ্যায়, হো রহা হ্যায় হুবহু...

আজই সেই মাহেন্দ্রক্ষণ। বিয়ে করছেন নবাব-নন্দন। তাও আবার `বলিউড-পুরে`র রাজকন্যার সঙ্গে। সেই বিয়ে ঘিরে উন্মাদনার পারদ যে সপ্তম স্বর্গে বিরাজ করবে এ আর এমনকী? অভি-অ্যাশের বিগ ফ্যাট বলিউড ওয়েডিং-এর পর আসমুদ্রহিমাচলের অপলক দৃষ্টি এখন নবাবের নন্দনকাননে স্থির। রুপোলি পর্দার বাহুল্য নিয়ে বাস্তবের `নিকাহ` অনুষ্ঠানে আজ সইফিনা। আজ সন্ধেয় মুম্বই-এ নবাবের বাড়িতে `নিকাহ` সহ সইসাবুদের বাহুল্য সমাপন হবে।

সইফিনার বিয়েতে রাষ্ট্রপতি?

ছেলের বিয়েতে কোনও আয়োজনে ত্রুটি রাখছেন না নবাব-পত্নি শর্মিলা ঠাকুর। সইফিনার বিয়ের দিন যতই এগিয়ে আসছে উৎসবের ব্যস্ততায় ততই মাতছে পতৌদি-প্রাঙ্গন। অতিথি-তালিকার দায়িত্ব নিজেই সামলাচ্ছেন হবু শ্বাশুড়ি শর্মিলা ঠাকুর স্বয়ং। আর সেই সূত্রেই পতৌদি প্যালেস থেকে সরাসরি বার্তা গেছে এমনকী রাইসিনা হিলসেও। সূত্রে খবর, ১৫ মিনিটের জন্য হলেও একবার সপরিবারে বিবাহ বাসরে আসার আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে রাষ্ট্রপতিকেও। প্রণববাবুও অভিনন্দন জানিয়েছেন পতৌদি পরিবারকে। তবে সময়ের অভাবে ১৬ অক্টোবরে নিমন্ত্রণ রক্ষা করতে পারবেন কি না তা নিয়ে সংশয় রপ্যেছে বলে জানা গিয়েছে।

সম্ভবত ডিসেম্বরে বিয়ে করছেন সইফিনা

১৬ অক্টোবর তাঁদের বিয়ের দিন নিয়ে হাজারো জল্পনা চললেও তা উড়িয়ে দিয়েছিলেন সইফ আলি খান স্বয়ং। তবে ভক্তদের একেবারেই নিরাশ করেননি তিনি। অক্টোবরে বিয়ে না করলেও সম্ভবত এই বছরেরই ডিসেম্বরে তাঁরা গাঁটছড়া বাঁধতে চলেছেন বলে জানিয়েছেন পতৌদির নতুন নবাব।

অক্টোবরে বিয়ে করছেন না সইফ-করিনা?

২০০৭ থেকে ২০১২। পাঁচ বছর ধরেই চলছে সইফিনার বিয়ে নিয়ে কানাঘুষো। পাঁচ বছরে অন্তত পঞ্চাশ বার তাঁদের বিয়ের দিন ঠিক করেছিলেন ভক্তরা। প্রত্যেকবারই আশাহত হলেও এবার একেবারে ঘোড়ার মুখের খবর হওয়ায় আশায় বুক বেঁধেছিল দেশবাসী।