মাস পূর্ণ মোদী সরকারের, `বিটার পিল` আর `আচ্ছে দিন` -এর মাঝে কেমন কাটল এক মাস, ২৪ ঘণ্টার বিশেষ প্রতিবেদন

পূর্ণ হল নরেন্দ্র মোদী সরকারের । দেশের মানুষের জন্য সুদিন আনার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন ভোটের আগে। এক মাসে সেই পথে কতটা এগোতে পেরেছে নরেন্দ্র মোদী সরকার? সরকার চালানোর কাজে নতুন কী করেছেন? চব্বিশ ঘণ্টার বিশেষ প্রতিবেদন।

একের পর এক বিদেশ সফরসূচিতে ঠাসা প্রধানমন্ত্রীর অ্যাপয়েন্টমেন্ট ডায়েরি

একের পর এক বিদেশ সফরসূচিতে ভরে উঠছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর অ্যাপয়েন্টমেন্টের ডায়েরি। এমাসেই ভুটানে প্রথম বিদেশ সফরে যাচ্ছেন তিনি। এরপরে একে একে তালিকায় রয়েছে জাপান, ব্রাজিল ও আমেরিকা।

বিভিন্ন রাজ্যের দাবিদাওয়া অগ্রাধিকার দিতে আধিকারিকদের নির্দেশ দিলেন প্রধানমন্ত্রী

বিভিন্ন রাজ্যের তোলা দাবিদাওয়া সংক্রান্ত বিষয়গুলিকে অগ্রাধিকার এবং সংবেদনশীলতার সঙ্গে বিবেচনা করতে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের আধিকারিকদের নির্দেশ দিলেন নরেন্দ্র মোদী। বুধবার পিএমও-র আধিকারিকদের সঙ্গে প্রথমবার বৈঠকে বসেন প্রধানমন্ত্রী। বৈঠকে দেশের যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোকে আরও জোরদার করার ওপরেই গুরুত্ব দিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী। এরই সঙ্গে মন্ত্রীদের বাজে খরচ বন্ধেরও নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।সার্ক গোষ্ঠীভুক্ত দেশগুলির প্রধানদের সঙ্গে বৈঠক আর তার পরেই মন্ত্রিসভার বৈঠক। এভাবেই চূড়ান্ত ব্যস্ততায় প্রথম দিনটি কেটেছিল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর। বুধবার দ্বিতীয় দিনেও বজায় রইল সেই একই ব্যস্ততার ধারা। প্রথম দিনেই মন্ত্রিসভার সদস্যদের বুঝিয়ে দিয়েছিলেন, কাজ ফেলে রাখা যাবে না। বুধবার সাউথব্লকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের আধিকারিকদের সঙ্গে প্রথম বৈঠকে সেই একই সুর বেধে দিলেন নরেন্দ্র মোদী। এদিনের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন সদ্যনিযুক্ত প্রধান সচিব নৃপেন্দ্র মিশ্র, দুই যুগ্ম সচিব এ কে শর্মা ও ভরত লাল সহ প্রধামন্ত্রীর কার্যালয়ের গুরুত্বপূর্ণ আধিকারিকরা। পিএমও-র আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠকে দেশের যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোকে জোরদার করার ওপরেই সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। আর এক্ষেত্রে বিভিন্ন রাজ্যের তোলা দাবিদাওয়াগুলিকে অগ্রাধিকার দিতে বলেছেন তিনি। প্রধানমন্ত্রীর দফতরের দেওয়া বিবৃতি অনুযায়ী,

কেমন হবে মোদীর মন্ত্রিসভা? রাজধানীর অলিন্দে জল্পনা তুঙ্গে

কেমন হবে নরেন্দ্র মোদীর মন্ত্রিসভা? রাজধানীর অলিন্দে তা নিয়ে জল্পনা এখন তুঙ্গে। মোদী নিজে ছোট মন্ত্রিসভা চাইলেও, শিবসেনা, টিডিপি, এলজেপির মতো শরিক দলগুলি সকলেই কেন্দ্রে ভাল মন্ত্রক পেতে চাইছে। স্বাভাবিক ভাবেই মন্ত্রিসভা গঠন নিয়ে আলোচনা আরও জোরদার হয়েছে। উঠে আসছে নানা সমীকরণ। কেন্দ্রে মন্ত্রিসভা গঠন নিয়ে তত্পরতা তুঙ্গে। কাকে কোন দায়িত্বে রাখা যায়, তা স্থির করতে পদ্মশিবিরে এখন জোর আলোচনা। ঘন ঘন বৈঠকে বসছেন বিজেপির শীর্ষ নেতারা। বিজেপির ঘনিষ্ঠ সূত্রে খবর,

শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার জন্য মমতাকে ব্যক্তিগত আমন্ত্রণ মোদীর, যাচ্ছেন না মুখ্যমন্ত্রী, অংশগ্রহণ করবেন অমিত মিত্র, মুকুল রায়

শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ব্যক্তিগতভাবে চিঠি দিলেন নরেন্দ্র মোদী। আজই এই চিঠি এসে পৌছেছে। তবে মুখ্যমন্ত্রী শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে যাচ্ছেন না। সরকারের প্রতিনিধি হয়ে যাচ্ছেন মুকুল রায় ও অমিত মিত্র। জানিয়েছেন পুরমন্ত্রী ববি হাকিম।

সংসদের সেন্ট্রাল হলে প্রশাসক নরেন্দ্র মোদীর যাত্রা শুরু

শপথ ছাব্বিশে মে। তার আগেই সংসদের সেন্ট্রাল হল থেকে যাত্রা শুরু হল প্রশাসক নরেন্দ্র মোদীর। ছকে ফেললেন সরকারের ভবিষ্যত রূপরেখা। দেশবাসীকে প্রতিশ্রুতি দিলেন দু হাজার উনিশে রিপোর্ট কার্ড পেশ করবেন তিনি।

মন্ত্রিত্ব নিয়ে চলবে না জোরাজুরি, টিম মোদীতে থাকছেন কে? বজায় ধোঁয়াশা

ছাব্বিশে মে প্রধানমন্ত্রী পদে শপথ নেবেন নরেন্দ্র মোদী। কিন্তু কে কে থাকবেন মোদী-মন্ত্রিসভায়? এনিয়ে এখনও বহাল রইল ধোঁয়াশা। দল এবং এনডিএ শরিকদের উদ্দেশে ইতিমধ্যেই ভাবী প্রধানমন্ত্রীর স্পষ্ট বার্তা, মন্ত্রিত্বের জন্য জোরাজুরি করা চলবে না। যদিও শিবসেনা থেকে এলজেপি প্রায় সব শরিক দলই মন্ত্রিত্ব নিয়ে দরবার শুরু করে দিয়েছেরাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করে মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিকভাবে সরকার গঠনের দাবি জানান নরেন্দ্র মোদী। শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানের দিনক্ষণ ঘোষণা হয়েছে। কিন্তু জানা নেই কারা মন্ত্রী হচ্ছেন । নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে সাক্ষাত্‍-পর্বে তাঁর কাছে এদিন মন্ত্রীদের নামের তালিকা চান রাষ্ট্রপতি। মন্ত্রী কারা হচ্ছেন, এ নিয়ে এখনও একটি শব্দও প্রকাশ্যে উচ্চারণ করেনি বিজেপি। ভাবী প্রধানমন্ত্রী এদিন স্পষ্ট করে দিয়েছেন, শরিকদের পাশে নিয়েই চলবে এনডিএ। তবে বিজেপি যে একক সংখ্যাগরিষ্ঠ দল, এই কথাও মনে করিয়ে দিয়েছেন।

২৬ মে প্রধানমন্ত্রী পদে শপথ নরেন্দ্র মোদীর, অপেক্ষায় সাউথ ব্লক

রাষ্ট্রপতি ভবনের ফোরকোর্টে সোমবার সন্ধে ছটায় প্রধানমন্ত্রী পদে শপথ নেবেন নরেন্দ্র মোদী। আজ বিকেল সাড়ে তিনটে নাগাদ রাষ্ট্রপতি ভবনে সরকার গঠনের দাবি নিয়ে যান মোদী । বিপুল জয়ের জন্য মোদীকে অভিনন্দন জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি। সরকার গঠনের আনুষ্ঠানিক আমন্ত্রণ জানিয়ে রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায় মোদীর কাছে মন্ত্রীদের নামের তালিকা চেয়েছেন।

আমি নরেন্দ্র মোদীর ফ্যান, আশা করি উনিই জিতবেন: প্রীতি জিন্টা

রাজনীতি নিয়ে নিজের মত প্রকাশে কোন কালেই পিছপা ছিলেন না বলি সুন্দরী প্রীতি জিন্টা। নরেন্দ্র মোদীর স্বপক্ষে এবার গলা তুললেন প্রীতি সুন্দরী। বিজেপির প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থীর জন্য বেনারসে গিয়ে পুজোয় দিয়ে এলেন তিনি।

অরবিন্দ কেজরিওয়াল

অরবিন্দ কেজরিওয়াল

গান্ধীনগর থেকে আজ মনোনয়ন জমা দেবেন আডবাণী, সঙ্গে থাকবেন মোদী

শনিবার লোকসভা নির্বাচনের মনোনয়ন পত্র জমা দিচ্ছেন বিজেপির বর্ষীয়ান নেতা এল কে আডবাণী। গুজরাতের গান্ধীনগর থেকে ভোটে লড়ছেন বিজেপি লৌহ পুরুষ। আজ দলের প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী নরেন্দ্র মোদী ও আডবাণী কন্যা প্রতিভা মনোনয়ন জমা দেওয়ার সময় পাশে থাকবেন।

কেজরিওয়ালের বিরুদ্ধে বিজেপির প্রার্থী কিরণ বেদী! মোদীর বিরুদ্ধে দাঁড়াবেন অবরিন্দ!

একই দিনে দুটো খবর। দুটো খবরই বেশ চমকপ্রদ। দুটোর বিষয় একই। দুটোর সঙ্গেই জড়িয়ে তিনটে নাম। অরবিন্দ কেজরিওয়াল তাতে কমন।

মোদীর বিরুদ্ধে নয় মহাত্মা গান্ধীর নাতি দাঁড়াচ্ছেন শীলা দীক্ষিতের ছেলের বিরুদ্ধে

মোদী নন মহাত্মা গান্ধীর নাতি দাঁড়াচ্ছেন আপের খাস তালুকেই

প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী হতে তিনি তৈরি বলে জানালেন রাহুল গান্ধী

প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী হতে রাজি হলেন রাহুল গান্ধী। কংগ্রেস সহ-সভাপতি রাহুল গান্ধী বললেন, প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী হতে তিনি তৈরি। সর্বভারতীয় এক দৈনিককে দেওয়া সাক্ষাত্‍কারে রাহুল বলেছেন, দল তাঁকে যে দায়িত্বই দিক, তিনি তা পালন করতে রাজি। প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং ইতিমধ্যে ঘোষণা করেছেন পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী হওয়ার দৌড়ে তিনি নেই।

রাহুল ফোঁস করলে, মোদী ফাঁস করছেন, হুঙ্কার রাজনীতি জমজমাট

দুর্নীতি ইস্যুতে গতকাল পালটা তুলেছিলেন রাহুল গান্ধী। আজ সেই পালটাই ফুটো করতে ময়দানে নেমে পড়লেন নরেন্দ্র মোদী। মুম্বইয়ের জনসভায় বললেন, যাদের গায়ে কেলেঙ্কারির পাঁক, আজ তারাই দুর্নীতি নিয়ে গলা ফাটাচ্ছে। একই সঙ্গে কংগ্রেসের বিরুদ্ধে বিভাজনের রাজনীতির অভিযোগ করেছেন মোদী।

মহারাষ্ট্রে আজ মহা সমাবেশ করবেন মোদী

মুম্বইয়ের বান্দ্রা কুরলা ময়দানে আজ লক্ষ মানুষের ভিড়। মোদী বলবেন। ২০১৪ লোকসভা নির্বাচনের প্রচারে বিজেপির প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী। প্রার্থী নির্বাচিত হওয়ার পর এই প্রথম বার মহারাষ্ট্র বক্তব্য রাখবেন মোদী।