শোকস্তব্ধ দেশ, আজ দিল্লিতে নিয়ে আসা হবে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি কালামের দেহ শোকস্তব্ধ দেশ, আজ দিল্লিতে নিয়ে আসা হবে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি কালামের দেহ

প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি এপিজে আবদুল কালামের জীবনাবসান। বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর। গতকাল শিলংয়ে একটি অনুষ্ঠানে ভাষণ দেওয়ার সময় অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। হাসপাতালে চিকিত্সকদের সমস্ত চেষ্টা ব্যর্থ হয়। শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। আজ বিশেষ বিমানে দিল্লি নিয়ে যাওয়া হবে তাঁর মরদেহ।মুম্বই থেকে গুয়াহাটি হয়ে সোমবার সকালেই শিলংয়ে পৌছে ছিলেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি এপিজে আব্দুল কালাম। সন্ধ্যায় আইআইএম-শিলংয়ে ভাষণ দিচ্ছেন তখন। আচমকাই তিনি অসুস্থতা বোধ করেন। মঞ্চে পড়েও যান। সঙ্গে সঙ্গেই তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় বেথেনি হাসপাতালে। সেখানেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি।  

আগুন ডানার উড়ান- ১৯৩১-২০১৫ আগুন ডানার উড়ান- ১৯৩১-২০১৫

নেহাতই নিম্নবিত্ত পরিবারের সন্তান। অল্প বয়সেই সংসারের বোঝা  কাঁধে তুলে নিয়েছিলেন। কিন্তু পড়াশোনা ছাড়েননি। পরম নিষ্ঠায় নিজেকে একটু একটু করে গড়ে তোলা সেই মানুষটিই পরবর্তীকালে হয়ে ওঠেন গোটা দেশের পথ প্রদর্শক।তামিলনাড়ুর রামেশ্বরমে এপিজে আব্দুল কালামের জন্ম ১৯৩১ সালের ১৫ অক্টোবর।বাবা জৈনুলাবেদিন, মা আসিয়াম্মা। অভাবের সংসারে ছোটবেলা আদৌ স্বাচ্ছন্দ্যে কাটেনি কালামের। সংসার চালাতে বিভিন্ন কাজ করেছেন। আবার পড়াশোনাতেও বরাবরই তিনি সেরা।তিরুচিরাপল্লীর সেন্ট জোসেফ কলেজ থেকে স্নাতক হওয়ার পরও তৃপ্তি পাননি। পরের বছরই মাদ্রাজ ইনস্টিটিউট  অফ টেকনোলজিতে এরোস্পেস ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ভর্তি হন কালাম।