এক বছরের মধ্যে রাজ্যে তথ্য প্রযুক্তি ক্ষেত্রে নয়া ৫০ হাজার কর্মসংস্থান, দাবি অমিত মিত্রর এক বছরের মধ্যে রাজ্যে তথ্য প্রযুক্তি ক্ষেত্রে নয়া ৫০ হাজার কর্মসংস্থান, দাবি অমিত মিত্রর

রাজ্যের তথ্য প্রযুক্তির ক্ষেত্রে এক বছরের মধ্যে পঞ্চাশ হাজার নতুন চাকরি হবে ।  দাবি অমিত মিত্রের। শুক্রবার ন্যাসকমের এক অনুষ্ঠানে রাজ্যের অর্থমন্ত্রী বলেন, উইপ্রো,কগনিজেন্ট, টিসিএসের মতো বড়সড় তথ্য প্রযুক্তি সংস্থা তাদের ব্যবসার প্রসার ঘটাচ্ছে এরাজ্যে।তথ্য প্রযুক্তি ক্ষেত্রে কয়েক বছরের খরা কাটিয়ে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে ভারত। যার প্রভাব পড়ছে এরাজ্যেও। কয়েক বছর ধরেই সল্টলেকের সেক্টর  ফাইভে একের পর এক ছোটো সংস্থা বন্ধ হয়ে গেছে। বড় সংস্থাগুলিও তাদের প্রসার ঘটায় নি। এরাজ্যে বিনিয়োগ করবে বলেও পিছিয়ে গেছে টিসিএস, উইপ্রোর মতো তথ্য প্রযুক্তি সংস্থা। তবে, রাজ্যের শিল্প তথা তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী অমিত মিত্রের দাবি, পরিস্থিতির অনেকটাই বদল হয়েছে। উইপ্রো, কগনিজেন্ট, টিসিএসের মতো সংস্থা তাদের ব্যবসার সম্প্রসারণ করছে এরাজ্যে।

কৃষিতে বিনিয়োগের লক্ষ্যে সয়েল ব্যাঙ্ক তৈরির পথে রাজ্য কৃষিতে বিনিয়োগের লক্ষ্যে সয়েল ব্যাঙ্ক তৈরির পথে রাজ্য

ল্যান্ড ব্যাঙ্কের পর এবার সয়েল ব্যাঙ্ক। শিল্পের পর কৃষিতেও বিনিয়োগকারীদের আকৃষ্ট করতে রাজ্যের এই নতুন উদ্যোগ। সয়েল ব্যাঙ্ক থেকে পছন্দের জমি বাছাই করে  বিনিয়োগ করতে পারবেন শিল্পপতিরা। তবে এক্ষেত্রে বিনিয়োগ হবে কৃষিভিত্তিক শিল্পে। শিল্পে বিনিয়োগ টানতে সরকারে আসার পরেই  ল্যান্ড ব্যাঙ্ক তৈরিতে জোর দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। উদ্দেশ্য ছিল, শিল্পপতিদের পছন্দমতো জমিতে বিনিয়োগের সুযোগ করে দেওয়া।  সেই উদ্দেশ্য অবশ্য খুব একটা সফল হয়নি। সাড়ে তিন বছরে রাজ্যে শিল্পে বড় ধরনের বিনিয়োগ বিশেষ আসেনি। তবে কৃষিতে বিনিয়োগের বেশ কিছু প্রস্তাব এসেছে রাজ্যের হাতে। আগামী ছয় ও সাত জানুয়ারি রাজ্যে বড় ধরনের শিল্প সম্মেলনের আয়োজন করেছে সরকার। অন্য শিল্পের পাশাপাশি সেখানে খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ ও কৃষিভিত্তিক শিল্পেও  বিনিয়োগের প্রস্তাব আসার সম্ভাবনা রয়েছে।