হকার উচ্ছেদ ঘিরে রণক্ষেত্র হয়ে উঠল আসানসোল স্টেশন

হকার উচ্ছেদ ঘিরে রণক্ষেত্র হয়ে উঠল আসানসোল স্টেশন

হকার উচ্ছেদ ঘিরে রণক্ষেত্র হয়ে উঠল আসানসোল স্টেশন। ভাঙচুর চলে স্টেশন চত্বর, বুকিং কাউন্টার ও আর পি এফ পোস্টে। হকার ইউনিয়নের দুই নেতাকে গ্রেফতার করায় পরিস্থিতি আরও ঘোরালো হয়ে ওঠে। এক মহিলা যাত্রী সহ সাতজন হকার আহত হন। জখম হন সাত RPF কর্মী। হকার উচ্ছেদ ঘিরেই উত্তপ্ত হয়ে উঠল আসানসোল স্টেশন। গত ছয় মাস ধরেই হকারদের বসতে দেওয়া নিয়ে রেলের সঙ্গে টানাপোড়েন চলছিল।  মঙ্গলবার সকালে হকার ইউনিয়নের নেতা গোপাল সিনহা সহ দুজনকে গ্রেফতার করে RPF। এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই যেন আগুনে ঘি পড়ে। স্টেশনের এ মাথা থেকে ওমাথা তাণ্ডব চালান হকাররা। ভাঙচুর চলে RPF-এর ওয়েস্ট পোস্টে। পাঁচ , ছয়,সাত নম্বর প্ল্যাটফর্মে নির্বিচারে চলে ভাঙচুর।  

সিন্ডিকেটের জুলুমে আবার কাজ বন্ধ আসানসোলে সিন্ডিকেটের জুলুমে আবার কাজ বন্ধ আসানসোলে

সিন্ডিকেটের জুলুমে আবার কাজ বন্ধ। ঘটনাস্থল আবার সেই আসানসোল। গত বছর জুন মাসে শ্রমভবন নির্মাণের কাজ বন্ধ করে দিয়েছিল সিন্ডিকেটের মাতব্বররা। এবার খাস আদালত চত্বরে বন্ধ হয়ে গেল নতুন ভবন তৈরির কাজ। সিন্ডিকেটের দাবি, যাবতীয় নির্মাণ সামগ্রী তাদের কাছ থেকেই কিনতে হবে। অভিযোগ, নির্মাণস্থলে গিয়ে হুমকিও দেয় তারা। তারপরই কাজ বন্ধ রেখে চলে যান শ্রমিকরা। নতুন জেলা হতে চলেছে আসানসোল। আসানসোল আদালতও তাই জেলা আদালতে পরিণত হবে। সেইমতো কোর্ট চত্বরে ভবন বাড়ানো হচ্ছে। । গত সেপ্টেম্বরে নতুন ভবন তৈরির বরাত পায় একটি ঠিকাদার সংস্থা। চলতি বছর অক্টোবরে কাজ শেষ হওয়ার কথা। কিন্তু আদালত চত্বরে এমন হুমকির পর কাজ কতটা এগোবে তা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে। পূর্ত দফতরে লিখিত অভিযোগ জানিয়েছে ঠিকাদার সংস্থা।

নতুন ভবন উদ্বোধন করতে গিয়ে এলাকাবাসীর ক্ষোভের মুখে বাবুল সুপ্রিয় নতুন ভবন উদ্বোধন করতে গিয়ে এলাকাবাসীর ক্ষোভের মুখে বাবুল সুপ্রিয়

নতুন ভবন উদ্বোধন করতে গিয়ে এলাকাবাসীর ক্ষোভের মুখে পড়লেন কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। এঘটনা ঘটেছে আসানসোলের সালানপুরের সিধাবাড়িতে। মাস কয়েক আগে ওই গ্রামে মত্‍স্য প্রকল্পের উদ্বোধন করেন বাবুল। আজ মত্‍স্যজীবীদের থাকার জন্য নতুন ভবনের উদ্বোধন করতে যান তিনি। উদ্বোধনের পরই নতুন রাস্তা, নর্দমা তৈরি সহ একাধিক দাবিতে কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রীকে ঘিরে শুরু হয় বিক্ষোভ। যদিও এলাকার উন্নয়নে রাজ্য সরকারের অসহযোগিতাকেই দায়ী করেছেন বাবুল সুপ্রিয়। তবে, কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রীর অবশ্য এমন অভিজ্ঞতা ছিল না। এবার সেই অভিজ্ঞতাও হয়ে গেল, অন্য প্ল্যাটফর্ম থেকে রাজনীতিতে আসা বাবুল সুপ্রিয়র।

 এবার পারিবারিক বিবাদের জেরেও বোমাবাজি আসানসোলে এবার পারিবারিক বিবাদের জেরেও বোমাবাজি আসানসোলে

এবার পারিবারিক বিবাদের জেরেও বোমাবাজি আসানসোলে। রানিসায়রে বোমাবাজিতে জখম একই পরিবারের চারজন। জানা গেছে রাতে হঠাতই বাড়ির ছাদে পর পর বোমা পড়তে শুরু করে। ঘটনার জেরে জখম হন বাড়িতে বসবাসকারী আদিবাসী পরিবারের চারজন। আহতদের মধ্যে তিনজন মহিলা সহ এক শিশুও। ইতিমধ্যেই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে জখমদের। ঘটনার তদন্তও শুরু করলেও এখনও কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিস। বরং, ঘটনায় খানিকটা অবাকই হয়েছে স্থানীয়রা। সামান্য পারিবারিক বিবাদেও যদি বোমাবাজি চলে, তাহলে সমাজবিরোধীরা কী করবে! এটা ভেবেই শঙ্কিত স্থানীয় বাসিন্দারা। ঘটনার সঠিক কারণ, খুঁজে বের করছে পুলিশ।