তারকা প্রার্থী বাইচুং ভুটিয়া

তারকা প্রার্থী বাইচুং ভুটিয়া

প্রার্থীর নাম- বাইচুং ভুটিয়া

কালীবাড়িতে পুজো দিয়ে প্রচার শুরু করলেন বাইচুং কালীবাড়িতে পুজো দিয়ে প্রচার শুরু করলেন বাইচুং

দাপিয়ে রাজত্ব করেছেন ফুটবল মাঠে। এবার পা বিধানসভা ভোটের ময়দানে। সেই ময়দানে পারফরম্যান্স দিতে শুরু হয়ে গেল ওয়ার্ম আপও। ভোট প্রাচারে নেমে পড়লেন বাইচুং ভুটিয়া। আনন্দময়ী কালীবাড়িতে পুজো দিয়ে প্রচার শুরু করলেন শিলিগুড়ি কেন্দ্রে তৃণমূল প্রার্থী বাইচুং ভূটিয়া। তাঁর লড়াই বাম শিবিরের শক্তিশালী প্রার্থী অশোক ভট্টাচার্যের সঙ্গে।

ভোটারদের নজর কাড়ছেন বাইচুং ভোটারদের নজর কাড়ছেন বাইচুং

একজন একেবারে সনাতন ধারায় ভোট প্রচারে। তিনি অশোক ভট্টাচার্য। অন্যজনও ভোট চাইছেন, তবে প্রচার কৌশল সম্পূর্ণ ভিন্ন। ফুটবলার তিনি। তাই বাইচুং ভুটিয়ার স্টাইল অন্যরকম। দুজনেই লড়ছেন। কিন্তু লড়াইটা দুই দলের দুই প্রার্থীতে থেমে নেই। লড়াইটা শুধুমাত্র একটা আসনেরও নয়। লড়াইটা বামেদের শিলিগুড়ি মডেলের সঙ্গে তৃণমূল সুপ্রিমোর। তৃণমূলের বিজয় রথের চাকা আটকে গিয়েছিল শিলিগুড়ি পুরসভা ভোটে। বামেদের সেনাপতি ছিলেন অশোক ভট্টাচার্য। এবার বিধানসভা ভোটে সেই শিলিগুড়ি পুরসভার ৪৭টি ওয়ার্ডের ৩৩টি ওয়ার্ড নিয়ে গড়া শিলিগুড়ি বিধানসভা কেন্দ্রের ভোট। এবারও বামেদের সেনাপতি সেই অশোক ভট্টাচার্য।

অ্যাটলেটিকো দলে দুই অধিনায়কের যুগলবন্দী, টেকনিক্যাল অ্যাডভাইসার হলেন  বাইচুং অ্যাটলেটিকো দলে দুই অধিনায়কের যুগলবন্দী, টেকনিক্যাল অ্যাডভাইসার হলেন বাইচুং

অ্যাটলেটিকো দ্য কলকাতা দলের সঙ্গে যুক্ত হলেন বাইচুং ভুটিয়া। টেকনিক্যাল অ্যাডভাইসার হিসাবে গতবারের আইএসএল চ্যাম্পিয়ন কলকাতা দলের সঙ্গে যুক্ত হচ্ছেন তিনি।

দার্জিলিং ম্যালে নির্বাচনী জনসভায় মমতার নিশানায় মোর্চা

দার্জিলিং লোকসভা কেন্দ্রে প্রচারের শেষ লগ্নে ম্যালে জনসভা করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বহিরাগত প্রার্থীকে সমর্থনের প্রশ্নে বিঁধলেন মোর্চাকে। পাঁচ বছরে পাহাড়বাসীর বিপদে-আপদে সাংসদের দেখা মেলেনি, এই অভিযোগে কাঠগড়ায় দাঁড় করালেন বিজেপিকে। উন্নয়নের দাবিতে পাহাড়ের ভোট চাইলেন মুখ্যমন্ত্রী। বাইচুং ভুটিয়ার সমর্থনে ভোট চাইতে গিয়ে শুরুতেই পাহাড়বাসীর আবেগকে কাজে লাগানোর চেষ্টা করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

বাইচুংকে পাশে বসিয়ে বিমল গুরুংকে তীব্র ভাষায় আক্রমণ মমতার

বাইচুং ভুটিয়াকে পাশে বসিয়ে বিমল গুরুং ও তাঁর দলকে তীব্র ভাষায় বিঁধলেন মুখ্যমন্ত্রী। বিজেপি প্রার্থী সুরিন্দর সিং আলুওয়ালিয়াকে বহিরাগত বলে কটাক্ষ করেন তিনি। কেন্দ্রে নির্ণায়ক শক্তি যে তৃণমূল কংগ্রেসই হবে, ফের একবার এই দাবি করেন মুখ্যমন্ত্রী। গরুবাথানে মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত নিশানায় ছিলেন বিমল গুরুং ও গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা। এমনকী জিটিএ-র কাজ ও পৃথক গোর্খাল্যান্ড প্রসঙ্গেও মোর্চাকে তীব্র ভাষায় বিঁধেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

নির্বাচনী প্রচারে বাইচুং

নির্বাচনী প্রচার শুরু করলেন দার্জিলিং লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী বাইচুং ভুটিয়া। প্রচারে নামার আগে দলীয় কর্মী সমর্থকদের সঙ্গে মহাকাল মন্দিরে গিয়ে পুজো দেন তিনি। পাহাড়ে প্রচার শেষে আজ দুপুরেই দার্জিলিং এবং কার্শিয়াংয়ের ব্লক কমিটির সঙ্গে বৈঠক করবেন নির্বাচনী রণকৌশল নিয়ে। গতকালই শিলিগুড়ির ইন্দোর স্টেডিয়ামে উত্তরবঙ্গ উন্নয়নমন্ত্রী জানান, পাহাড়ে তৃণমূলের মূল প্রচার পর্বে থাকবেন বাইচুং ভুটিয়া। সমতলে প্রচারের দায়িত্ব সামলাবেন তিনি নিজেই ।

সমর্থন পেতে `বিনয়ী` বাইচুংয়ের ফোন বিমলকে

দার্জিলিং আসন নিয়ে মন কষাকষির মধ্যেই বিমল গুরুংকে ফোন করলেন বাইচুং ভুটিয়া। মোর্চা সভাপতিকে ফোন করে, তাঁর কাছ থেকে সমর্থন চেয়েছেন বাইচুং। দার্জিলিং আসনে প্রার্থী নির্বাচন নিয়ে মোর্চা যখন দিল্লিতে তত্পর, তখন বাইচুংয়ের এই সৌজন্যমূলক ফোনকে গুরুত্বপূর্ণ হিসেবেই ধরা হচ্ছে।

বাইচুং মোর্চাকে সঙ্গে নিয়ে ভোটে লড়ার কথা বলতেই রেগে আগুন পাহাড়ের তৃণমূল নেতা আপ্পা

পাহাড়ের তৃণমূল নেতাদের ক্ষোভের মুখে পড়লেন দার্জিলিংয়ের তৃণমূল প্রার্থী বাইচুং ভুটিয়া। আজ পাহাড়ে গিয়ে মোর্চাকে সঙ্গে নিয়ে ভোটে লড়ার কথা বাইচুং বলতেই রেগে আগুন হিল তৃণমূলের নেতা আপ্পা রাজন। ক্ষোভ সামাল দিতে তৃণমূল নেতা গৌতম দেবকে বৈঠক করতে হয়। সেই বৈঠকের পরই ভোল বদল করেন বাইচুং ভুটিয়া। দিল্লি থেকে ফিরেই পাহাড়ে পৌছে গিয়েছিলেন দার্জিলিং লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী বাইচুং ভুটিয়া। সেখানেই সাংবাদিকদের মুখোমুখি রাজনীতির এই নয়া মুখ।

ফুটবল আইকনকে সমর্থন নয়, পাহাড়ে নিজেরাই প্রার্থী দেবে মোর্চা

দার্জিলিং কেন্দ্রে বাইচুং ভুটিয়াকে সমর্থন দেবে না গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা। ওই কেন্দ্রে মোর্চা নিজেদের প্রার্থী দেবে। আজ মোর্চার এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য প্রদীপ প্রধান।

দিন ঘোষনা হতেই প্রচার শুরু জোরকদমে, প্রথম দিনেই বাইক নিয়ে পথে নামলেন বাইচুং

ভোটের দিন ঘোষণার চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যেই রাজ্যজুড়ে বইছে ভোটের হাওয়া। জেলায় জেলায় শুরু হয়ে গিয়েছে ভোটপ্রচার। কোথাও চলছে দেওয়াল লিখন। কোথাও আবার মিটিং- মিছিলে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে রাজনৈতিক দলগুলি। ভোটের নির্ঘণ্ট প্রকাশ হওয়া পর্যন্ত যেন অপেক্ষায় ছিল রাজনৈতিক দলগুলি। দিনক্ষণ ঘোষণা হতেই শুরু হয়ে গেল ভোটযুদ্ধ।

কোচ বাইচুংয়ের অনুশীলনে হাজির জিদান!

কোচ বাইচুং ভুটিয়ার প্রথম দিনের অনুশীলন দেখতে এলেন জিদান! হ্যাঁ আশ্চর্য হলেও ব্যাপরটা সত্যি। আসলে এদিন বাইচুংয়ের ক্লাবের অনুশীলনে হাজির মেহতাব হোসেন। মেহতাব তাঁর ছেলেকে নিয়ে আসেন অনুশীলনে। মেহতাবের ছেলের ডাক নাম জিদান। তাই বলাই যায় পাহাড়ি বিছের কোচ হওয়ার অভিষেক দিনটা সাক্ষী থাকলেন জিদান। জিদানকে নিয়ে হঠাত্‍ই ইস্টবেঙ্গল তাঁবুতে হাজির মেহতাব হোসেন। গ্যালারিতে বসে থাকা কোচ বাইচুংকে দেখে এগিয়ে এলেন প্রাক্তন সতীর্থ। খানিকক্ষণ আড্ডা,বাইচুং-জিদানের খুনসুটি। তারপর নির্ভেজাল ফুটবল আলোচনা।

বাইচুং এবার কোচের ভূমিকায়

ভারতীয় ফুটবলের আইকন এবার নতুন ভূমিকায়। পাহাড়ি বিছেকে এবার দেখা যাবে কোচের ভূমিকায়। বাইচুংয় ভুটিয়ার কোচ হিসাবে আত্মপ্রকাশ ঘটতে চলেছে তাঁর নিজের ক্লাব সিকিম ইউনাইটেডে। আই লিগে বাইচুংয়ের ক্লাব সিকিম ইউনাইটেড কদিন আগে প্রয়াগ ইউনাইটেডের কাছে ১০-১ গোলে হারে। এই হারের জেরেই সিকিম ইউনাইটেড ক্লাব কর্তারা কোচ বদলের দাবি জানিয়েছিলেন। বাইচুং দলের এই দুঃসময়ে কোচের দায়িত্ব নিলেন। তবে দশ গোল খাওয়া কোচ ফিলিপ ডি রাইডারকে না তাড়িয়ে ফুটবল ডায়রেক্টার করা হল। ফুটবলার হিসাবেও বাইচুং তাঁর ক্লাবের হয়ে খেলছেন।

আই লিগে সিকিম ইউনাইটেডের হয়ে নামছেন বাইচুং

আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে আগেই অবসর নিয়েছেন। তবে এখনই তিনি অবসর নিচ্ছেন না ক্লাব ফুটবল থেকে। এখন আপাতত আই লিগে তাঁর দল সিকিম ইউনাইটেডের হয়ে খেলবেন বাইচুং।