ওবামার সঙ্গে আলাপচারিতায় নিজের রাজনৈতিক ও প্রশাসনিক জীবনের মিল খুঁজে পেলেন মোদী ওবামার সঙ্গে আলাপচারিতায় নিজের রাজনৈতিক ও প্রশাসনিক জীবনের মিল খুঁজে পেলেন মোদী

একান্ত আলাপচারিতায় একে অপরের রাজনৈতিক ও প্রশাসনিক জীবনে বহু মিল খুঁজে পেলেন মোদী এবং ওবামা। হোয়াইট হাউসে গতকাল প্রেসিডেন্ট ওবামার সঙ্গে নৈশভোজের বৈঠকে মিলিত হন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বিদেশমন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, নবরাত্রির উপোস থাকায় একগ্লাস জল ছাড়া মোদী কিছুই খাননি। তবে নব্বই মিনিটের আলোচনায় দুজনেই নিজেদের রাজনৈতিক ও প্রশাসনিক জীবনের অভিজ্ঞতা ভাগ করে নেন। দেখা যায়, ভারতে মোদী ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ওবামার রাজনৈতিক এবং প্রশাসনিক অভিজ্ঞতায় অদ্ভূত রকমের মিল। এছাড়া আগামী দিনে ভারত-মার্কিন কৌশলগত সম্পর্ক শক্তিশালী করার বিষয়ে একমত হন দুজনেই। আজ সরকারিভাবে বৈঠক করবেন দুই রাষ্ট্রপ্রধান। তারপর দুজনের তরফে যৌথ সাংবাদিক সম্মেলন করা হবে।    

মার্কিন দেশে মোদীর সঙ্গী শুধু চা আর লেমোনেড, ভারতের প্রধানমন্ত্রীর অপেক্ষায় কালো পতাকা মার্কিন দেশে মোদীর সঙ্গী শুধু চা আর লেমোনেড, ভারতের প্রধানমন্ত্রীর অপেক্ষায় কালো পতাকা

হাতে একশো ঘণ্টার কিছু বেশি সময়। আর তার মধ্যে পঞ্চাশেরও বেশি কর্মসূচি। এতটাই ঠাসা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আসন্ন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সফর। বার্তা হতে চলেছে, RED CARPET AND NOT RED TAPE। অর্থাত্‍ লাল ফিতের ফাঁসে আটকে পড়বে না কিছুই। মার্কিন সফরে প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সঙ্গে বৈঠক তো রয়েইছে। এছাড়াও মার্কিন রাজনীতিক, শিল্পমহলের শীর্ষ কর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন প্রধানমন্ত্রী। ভাষণ দেবেন রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সভায়। প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিন্টন এবং প্রাক্তন মার্কিন বিদেশ সচিব হিলারি ক্লিন্টনের সঙ্গে বৈঠক করবেন মোদী। দেখা করবেন ভারতীয় বংশোদ্ভুত সাউথ ক্যারোলিনার গভর্নর নিক্কি হ্যালের সঙ্গে।