কৌশিক সেনের বই উদ্বোধন করে সমালোচনার বাউন্সারে ছক্কা হাঁকালেন ব্রাত্য বসু

কৌশিক সেনের বই উদ্বোধন করে সমালোচনার বাউন্সারে ছক্কা হাঁকালেন ব্রাত্য বসু

রাজনৈতিক মতাদর্শ আলাদা। কিন্তু দুই নাট্যব্যক্তিত্বকে মিলিয়ে দিল বইমেলা। কৌশিক সেনের বই উদ্বোধন করে সমালোচনার বাউন্সারে ছক্কা হাঁকালেন ব্রাত্য বসু। অন্যদিকে, যে কথা অনেক সাংবাদিকও জানেন না, তেমন কথাই নাকি নিজের বইতে লিখেছেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। ""নেত্রীর সাথে জনতার পাশে'' বইটি উদ্বোধন করলেন তৃণমূলের মহাসচিব। রাজ্যে পট পরিবর্তনের প্রাক্কালে নাগরিক আন্দোলনের জোয়ারে গা ভাসিয়েছিলেন দুই নাট্যব্যক্তিত্ব। তারপর? আলাদা হয়ে গেছে তাঁদের পথ। তৃণমূলের হয়ে ভোটে দাঁড়িয়েছেন একজন। জিতে মন্ত্রীও হয়েছেন। তিনি ব্রাত্য বসু।

বাতিল হতে চলেছে রাজ্যের কলেজগুলিতে অনলাইনে ভর্তির প্রক্রিয়া

রাজ্যের কলেজগুলিতে কেন্দ্রীয়ভাবে অনলাইনে ভর্তি প্রক্রিয়া বাতিল হতে চলেছে। উপযুক্ত পরিকাঠামো না থাকাতেই এই প্রক্রিয়া চালু করা যাচ্ছে না। দাবি শিক্ষা দফতরের। যদিও অনেকেই মনে করছেন এই পদ্ধতি চালু হলে শাসকদলের দাদাগিরির জায়গা কমে যেত। শুধু তাই নয় মোটা টাকার বিনিময়ে কলেজের সিট বিক্রিও বন্ধ হয়ে যেত। সেজন্যই এই সিদ্ধান্ত বলে অভিযোগ। রাজ্যের কলেজগুলিতে অ্যাডমিশনের ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা আনতে কেন্দ্রীয়ভাবে অনলাইনে ভর্তি প্রক্রিয়া চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। মঙ্গলবার বিদায়লগ্নে জানিয়ে গিয়েছিলেন এই শিক্ষাবর্ষ থেকে ভর্তি প্রক্রিয়া হবে অনলাইনেই।

আন্দোলনরত পরীক্ষার্থীদের লাগাতার ২০ দিনের অনশনের পর মাথা নোয়ালো কমিশন, সোমবার এসএসসির চতুর্থ দফায় কাউন্সেলিং

চাকরি লাগাতার ২০দিনের অনশন। তার চাপে পড়ে চতুর্থ দফার কাউন্সেলিংয়ের প্রতিশ্রুতি দিলেন স্কুল সার্ভিস কমিশনের চেয়ারম্যান। কিন্তু তাতেও জট পুরো কাটল না। এসএসসির চেয়ারম্যান সুবীরেশ ভট্টাচার্য আজ আন্দোলনরত পরীক্ষার্থীদের অনশন তুলে নিতে অনুরোধ করেন। ১৫০০ শূন্য পদ পূরণের জন্য, সোমবার চতুর্থ দফার কাউন্সেলিং হবে বলে জানান তিনি। সেখানে বেশিরভাগ অনশনকারী ছেলেমেয়েদেরই ডাকা হবে বলে আশ্বাস দেন তিনি। কিন্তু আন্দোলনকারীদের দাবি, প্যানেলভুক্ত সাড়ে তিন হাজার প্রার্থীকেই চাকরি দিতে হবে।