সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি পদ থকে বাদ সলিসিটর জেনারেল জি সুব্রহ্মণ্যম, মোদী সরকারের সমালোচনায় কংগ্রেস

সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতির পদের জন্য প্রাক্তন সলিসিটর জেনারেল জি সুব্রহ্মণ্যমের নাম বাদ দেওয়ায় মোদী সরকারের তীব্র সমালোচনা করল কংগ্রেস। গুজরাটে মোদী জমানায় সরকারের বিরুদ্ধে সরব হওয়ার কারণেই কি এই কোপ? প্রশ্ন তুলেছে কংগ্রেস। অনড় বিজেপি অবশ্য জানিয়ে দিয়েছে, যা করা হয়েছে তার জন্য যথেষ্ট কারণ রয়েছে।কারা হবেন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি? সেই তালিকা তৈরি করতে গিয়ে সযত্নে সরিয়ে রাখা হয় প্রাক্তন সলিসিটর জেনারেল জি সুব্রহ্মণ্যমের নাম। আর এতেই তীব্র অসন্তোষ প্রকাশ করেছিলেন সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি আর এম লোঢা। এরপরই সরব হয় কংগ্রেস।

ভরা আদালতে কুণাল ঘোষের বোমা

ভরা আদালতে ফের বিস্ফোরক কুণাল ঘোষ। নাম না করে রাজ্যের এক মন্ত্রীর গ্রেফতারির দাবি জানালেন কুণাল। আজ কুণাল ঘোষ,দেবযানী মুখার্জি সুদীপ্ত সেনকে সিবিআই আলিপুর আদালতে পেশ করে। অভিযুক্তরা জামিনের আবেদন করলেও আদালত তিনজনকেই সাত জুলাই পর্যন্ত জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে।সিবিআই হেফজাতে যাওয়ার পর বৃহস্পতিবার প্রথম কুণাল ঘোষ ও সুদাপ্ত সেনের জামিনের আদেবন করে তাদের আইনজীবীরা। সিবিআই পক্ষের আইনজীবী জামিনের তীব্র বিরোধিতা করেন। শুনানি চলাকালীন বিচারক হারাধন মুখোপাধ্যায় বলেন এই কেলেঙ্কারিতে বহু মানুষ আত্মহত্যা করেছেন। সেই কথার সূত্র ধরেই বলার অনুমতি চান কুণাল ঘোষ ।

পূরণ হতে চলেছে কুণাল ঘোষের ইচ্ছা, সুদীপ্ত সেনের সামনে বসে প্রাক্তন তৃণমূল সাংসদকে জেরা করবে সিবিআই

শেষ পর্যন্ত বোধহয় ইচ্ছেপূরণ হতে চলেছে কুণাল ঘোষের। সারদাকাণ্ডে ধৃত এই তৃণমূল সাংসদ বারবার দাবি করেছিলেন তাঁকে যেন সুদীপ্ত সেনের সঙ্গে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করা হয়। এদিন আদালত সুদীপ্ত-কুণাল দুজনকেই সিবিআই হেফাজতে পাঠায়। সিবিআই সূত্রে ইঙ্গিত প্রয়োজনে সুদীপ্ত সেনের সামনেই জেরা করা হবে কুণাল ঘোষকে। গ্রেফতার হওয়ার পর থেকেই বিভিন্ন সময়ে সংবাদ মাধ্যমের সামনে সারদা নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন কুণাল ঘোষ। দাবি করেছেন তাঁকে যেন সুদীপ্ত সেনের সামনে বসিয়ে জেরা করা হয়। কিন্তু রাজ্য পুলিস বা ইডি কেউই তার ইচ্ছাপূরণ করেনি।