কলকাতায় বজ্র আঁটুনি, জেলায় কি ফস্কা গেরো?

কলকাতায় বজ্র আঁটুনি, জেলায় কি ফস্কা গেরো?

কলকাতায় বজ্র আঁটুনি, জেলায় কি ফস্কা গেরো? হাওড়ায় নির্বাচন কমিশনের দফতর, মোটর ভেহিক্যালস, অতিরিক্ত জেলাশাসক, মহকুমাশাসকের দফতরে উপস্থিতির হার খুবই সামান্য। সকাল দশটা থেকে সোয়া দশটার মধ্যে দেখা গেল প্রায় হাতে গোনা উপস্থিতি। বেশিরভাগ চেয়ারই ফাঁকা। দেখা মেলেনি বেশ কয়েকজন অতিরিক্ত জেলাশাসকেরও।

সিন্ডিকেট তোলাবাজি রুখতে আরও কড়া মুখ্যমন্ত্রী সিন্ডিকেট তোলাবাজি রুখতে আরও কড়া মুখ্যমন্ত্রী

সিন্ডিকেট তোলাবাজি রুখতে আরও কড়া মুখ্যমন্ত্রী। যেকোনও অভিযোগে ব্যবস্থা নিতে হবে। CMO-র আধিকারিকদের কড়া নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর। তাঁর স্পষ্ট বার্তা, সিন্ডিকেট প্রশ্নে কাউকে রেয়াত করা যাবে না। পয়লা জুলাই উত্তর চব্বিশ জেলার প্রশাসনিক বৈঠকেও সিন্ডিকেট রুখতে পুলিস প্রশাসনকে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু, তারপরেও বিভিন্ন জায়গা থেকে তোলাবাজির অভিযোগ আসতে থাকায় ক্ষুদ্ধ মুখ্যমন্ত্রী।

উত্তরপ্রদেশে হারানো জমি পেতেই কী ফের শীলা দীক্ষিতকে সামনে আনছে কংগ্রেস? উত্তরপ্রদেশে হারানো জমি পেতেই কী ফের শীলা দীক্ষিতকে সামনে আনছে কংগ্রেস?

উত্তরপ্রদেশে ক্ষমতায় ফিরতে প্রশান্ত কিশোরের পরামর্শকেই গুরুত্ব দিল কংগ্রেস। মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী করা হল দিল্লির প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী শীলা দীক্ষিতকে।  AAP ঝড়ে খুইয়েছেন কুর্সি। ঝাঁটার ঝড়ে দিল্লি থেকে উবে গিয়েছে কংগ্রেস। তাঁর পরও উত্তরপ্রদেশে তাঁর ওপরেই ভরসা রাখল হাইকমান্ড। কারণ জাতের রাজনীতি।

মহারাষ্ট্রের তীব্র খরা থেকে মুক্তি পেতে প্রযুক্তি ব্যবহার করতে চলেছে ভারত মহারাষ্ট্রের তীব্র খরা থেকে মুক্তি পেতে প্রযুক্তি ব্যবহার করতে চলেছে ভারত

চিন থেকে মেঘ আসছে ভারতে। জলভরা মেঘ। খরার দেশে নামবে সজলধারা। ধুয়ে যাবে ধরা। আবার আমরা গেয়ে উঠব, সুজলাং সুফলাং শস্য শ্যামলাং। এনএসজিতে যতই বিরোধিতা থাক, চিনসাগরে যতই যুদ্ধের মহড়ার জুজু থাক, অরুণাচলে যতই চিনের অনুপ্রবেশ থাক, বৃষ্টি নামানোর প্রশ্নে ভারতের পাশেই প্রতিবেশী দেশ।

তৃণমূল বিধায়কের পাশে বসেই মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ খারিজ করে দিল আলু ব্যবসায়ী সংগঠন! তৃণমূল বিধায়কের পাশে বসেই মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ খারিজ করে দিল আলু ব্যবসায়ী সংগঠন!

  চোদ্দ টাকা কেজি দরে আলু দেওয়া সম্ভব নয়। তৃণমূল বিধায়ককে পাশে বসিয়ে জানিয়ে দিলেন আলু ব্যবসায়ী সমিতির সম্পাদক। গতকালই মুখ্যমন্ত্রী প্রকাশ্যে ঘোষণা করেছিলেন সাধারণ মানুষের হাতে চোদ্দ টাকা কিলো দরে আলু তুলে দেওয়া হবে।

তদন্তের নির্দেশ দিলেন কিন্তু তদন্তের আগেই মমতা বলে দিলেন নারদ কাণ্ড আসলে ‘ষড়যন্ত্র’! তদন্তের নির্দেশ দিলেন কিন্তু তদন্তের আগেই মমতা বলে দিলেন নারদ কাণ্ড আসলে ‘ষড়যন্ত্র’!

  নারদ ঘুষকাণ্ডে তৃণমূলের বিরুদ্ধে ওঠা সব অভিযোগ খারিজ করে দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নেতাজি ইন্ডোরে দলের সভায় ভাষণ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, তৃণমূল টাকা নেয় না। দেখা করেত এসে টেবিলে টাকা রেখে তার ছবি তুলে বলা হচ্ছে তৃণমূল ঘুষ নিয়েছে। এটা তৃণমূলকে অসম্মান করার জন্যই করা হয়েছে। এই ষড়যন্ত্রে কারা জড়িত তা খুঁজে দেখতেই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী।

রাজ্যে রাজনৈতিক হিংসা নিয়ে এবার সরাসরি মুখ্যমন্ত্রীকে নালিশ বাম বিধায়কদের রাজ্যে রাজনৈতিক হিংসা নিয়ে এবার সরাসরি মুখ্যমন্ত্রীকে নালিশ বাম বিধায়কদের

রাজ্যে রাজনৈতিক হিংসা নিয়ে এবার সরাসরি মুখ্যমন্ত্রীকে নালিশ জানালেন বাম বিধায়করা। তাঁদের অভিযোগ, ভোট-পর্ব মিটে যাওয়ার পরেও হিংসা-গণ্ডগোল চলছেই। বিষয়টি অবিলম্বে দেখতে, পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।     

গোলাপ ছড়ানো পথে তামিলনাড়ুতে জয়ার শপথ গোলাপ ছড়ানো পথে তামিলনাড়ুতে জয়ার শপথ

তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে চতুর্থ ইনিংস শুরু করলেন জয়ললিতা।  আজ মাদ্রাস বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টিনারি হলে আরও ২৮ বিধায়কের সঙ্গে শপথ নিলেন AIADMK সুপ্রিমো। এবার আম্মার মন্ত্রিসভায় নতুন মুখ তেরোজন। তামিলনাড়ু বিধানসভা ভোটে ২৩৪টি আসনের মধ্যে এবার জয়ললিতার ঝুলিতে গেছে ১৩৪ টি আসন।  আগের বারের তুলনায় কমেছে আসন সংখ্যা। ভোট শতাংশের বিচারেও আম্মার ঘাড়ের কাছে নিঃশ্বাস ফেলছে DMK।

তৃণমূলের জয়ের সবথেকে বড় তিনটি কারণ তৃণমূলের জয়ের সবথেকে বড় তিনটি কারণ

এই প্রথমবার এ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের আগাম ফল নিয়ে কোনও নিশ্চয়তা ছিল না মানুষের মধ্যে। গতকাল পর্যন্ত যাকেই ভোটের ফল নিয়ে জিজ্ঞেস করা হয়েছে, সেই বলেছে, ঠিক বোঝা যাচ্ছে না। লড়াইটা এবার হাড্ডাহাড্ডি হবে বলে মনে হচ্ছে। আসলে প্রথম দুই দফা ভোটের পর থেকে নির্বাচন কমিশন এতটাই কড়াকড়ি করে যে, হাওয়ায় রটে যায়, মানুষের ভোট মানুষ দিয়েছে। আর মানুষের ভোটের বেশিরভাগটাই যাবে বিরোধী জোটের পক্ষে।

টার্গেট ২০১৭! ড্যামেজ কন্ট্রোলে সরতে পারেন গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী আনন্দীবেন টার্গেট ২০১৭! ড্যামেজ কন্ট্রোলে সরতে পারেন গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী আনন্দীবেন

প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর নিজে হাতেই তাঁকে বসিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রীর মসনদে। কিন্তু, গত দু'বছরে একাধিক ইস্যুতে জেরবার গুজরাতের রাজনীতি। আর তা সামলাতে রীতিমতো হিমসিম খাতে হয়েছে রাজ্যের বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী আনন্দীবেন প্যাটেল। আর তাই এবার তাঁকে সরিয়ে মুখ্যমন্ত্রীত্বে নতুন মুখ আনতে চাইছে বিজেপি। যদিও, দলের পক্ষ থেকে এব্যাপারে এখনও পর্যন্ত স্পষ্টভাবে কিছু জানানো হয়নি।

ভোটের পর কংগ্রেসের সাইন বোর্ডও বন্ধ হয়ে যাবে বলে কটাক্ষ মমতার ভোটের পর কংগ্রেসের সাইন বোর্ডও বন্ধ হয়ে যাবে বলে কটাক্ষ মমতার

বাঁকুড়া শহরে মন্তব্য করলেন রাহুল। সোনামুখীতে পাল্টা জবাব দিলেন মমতা। একই জেলায় একই দিনে দুই নেতা। দেখা হল না বটে। কিন্তু একে অপররের প্রচারজুড়ে রইলেন পরষ্পর। মুখ্যমন্ত্রীর নিশানায় রাহুল গান্ধী। দুহাজার চোদ্দোয় নাম না করে বলেছিলেন বসন্তের কোকিল। আর এবার বিঁধলেন রাহুলকে বলে। রাজ্যকে বঞ্চনার অভিযোগে।

ভোটের আগে নারদ ইস্যুতে কোণঠাসা শাসকদল ভোটের আগে নারদ ইস্যুতে কোণঠাসা শাসকদল

নারদকাণ্ডে রাজনৈতিক তরজা তুঙ্গে। স্টিংয়ের পর ক্ষমতায় থাকার নৈতিক অধিকার হারিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। টুইটারে তোপ বিরোধী দলনেতা সূর্যকান্ত মিশ্রের। তৃণমূল নেত্রীর পাল্টা দাবি, ভোটে ভরাডুবি নিশ্চিত জেনেই কুত্‍সায় মেতেছে বিরোধীরা। 

নারদ স্টিং অপারেশন নিয়ে বিরোধীদের বিঁধলেন মুখ্যমন্ত্রী নারদ স্টিং অপারেশন নিয়ে বিরোধীদের বিঁধলেন মুখ্যমন্ত্রী

নাম না করে নারদ স্টিং অপারেশন নিয়ে বিরোধীদের বিঁধলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। উত্তরবঙ্গে সভা করতে গিয়ে জোটকে কটাক্ষ করে তৃণমূল নেত্রী বলেন, তাঁর সঙ্গে পাল্লা দিতে নামলে, চুরমার হয়ে যেতে হবে। এমনকী বিরোধী শিবিরের অস্বস্তি বাড়িয়ে ভোট প্রচারে টাকার উত্‍স নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তিনি।

পাহাড়ে ঘাসফুল ফোটাতে মরিয়া তৃণমূলনেত্রী পাহাড়ে ঘাসফুল ফোটাতে মরিয়া তৃণমূলনেত্রী

পাহাড়ে ঘাসফুল ফোটাতে মরিয়া তৃণমূলনেত্রী। তাই ভোট প্রচারে তাঁর ১ নম্বর টার্গেট মোর্চা। শুধু অশান্তি বা হিংসার পরিবেশ নিয়েই নয়, কার্শিয়াংয়ের জনসভায় নির্বাচনে কালো টাকার ব্যবহার নিয়েও সরব মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রতিপক্ষকে তাঁর পাল্টা চ্যালেঞ্জ, ভয় দেখিয়ে তৃণমূলকে দমানো যাবে না। আগামিদিনে পাহাড়ে সব ভোটেই প্রার্থী দেবে তৃণমূল।

নারদকাণ্ডে জেলায় জেলায় আন্দোলন-বিক্ষোভে বিরোধীরা নারদকাণ্ডে জেলায় জেলায় আন্দোলন-বিক্ষোভে বিরোধীরা

নারদকাণ্ডে উত্তাল রাজ্য। জেলায় জেলায় আন্দোলন-বিক্ষোভে বিরোধীরা। দাবি, স্টিং অপারেশনে যাঁদের টাকা নিতে দেখা গিয়েছে, তাঁদের অবিলম্বে গ্রেফতার করে কঠোর শাস্তি দিতে হবে। উঠেছে মুখ্যমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবিও।

ভোটের আগেই প্রশাসনিক ক্যালেন্ডার তৈরি করে ফেলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়! ভোটের আগেই প্রশাসনিক ক্যালেন্ডার তৈরি করে ফেলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়!

ক্ষমতায় ফিরছেন, তিনি নিশ্চিত। ভোটের আগে তাই প্রশাসনিক ক্যালেন্ডার তৈরি করে ফেলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এ বছর কী কী কাজে জোর, তার তালিকা বই আকারে ছাপিয়ে পাঠানো হয়েছে রাজ্যের বিভিন্ন দফতরে। কন্যাশ্রী, যুবশ্রী তো থাকছেই, এ বছর আর একটি নয়, দুটি দফতর থেকে ক্লাবগুলিকে অনুদান দেওয়া হবে।