মোদী মন্ত্রিসভায় প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ আলুওয়ালিয়ার

মোদী মন্ত্রিসভায় প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ আলুওয়ালিয়ার

রাজ্যের আরও এক সাংসদ এবার ঠাঁই পেলেন মোদী মন্ত্রিসভায়। বাবুল সুপ্রিয় পর এবার এসএস আলুওয়ালিয়া। আজ প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন দার্জিলিংয়ের বিজেপি সাংসদ এসএস আলুওয়ালিয়া। এর আগে ২০১০-২০১২ সালে রাজ্য

রদবদল সেরে টিম মনমোহনে এখন ৭৭ জন, রেলমন্ত্রী মল্লিকার্জুন

সাংগঠনিক রদবদলের পর, কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভাতেও রদবদল সেরে ফেলল টিম মনমোহন। নতুন রেলমন্ত্রী হলেন মল্লিকার্জুন খাড়গে। বস্ত্রমন্ত্রকের দায়িত্ব পেয়েছেন কে এস রাও। আবাসন ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রকের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে গিরিজা ব্যাসকে। সড়ক মন্ত্রী হয়েছে অস্কার ফার্নান্ডেজ। শিস রাম ওলাকে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রকের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এর আগে ওলা এবং ফার্নান্ডেজ প্রথম ইউপিএ সরকারে মন্ত্রী ছিলেন। রাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে নতুন দায়িত্ব পেয়েছেন চারজন।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার রদবদল: পদত্যাগের ধুম মন্ত্রীদের

কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় রদবদলের ঠিক আগের দিনই ইউপিএ-২ সরকারের মন্ত্রীদের মধ্যে পদত্যাগের ধুম পড়ে গেল। শুক্রবারে এস এম কৃষ্ণর পর আজ প্রধানমন্ত্রীর

বাসভবনেলাইন দিয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরা পদত্যাগপত্র জমা দেওয়া শুরু করে দিয়েছেন। এই পদত্যাগের সমারোহ আসলে ২০১৪-র লোকসভা নির্বাচনের আগেই প্রধানমন্ত্রীকে

ইচ্ছামত মন্ত্রিসভা গুছিয়ে নেওয়ার স্বাধীনতা দিল।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় রাহুল ব্রিগেডের প্রবেশের সম্ভাবনা প্রবল

রদবদলের ফলে কি কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় জায়গা করে নেবে টিম রাহুলের একাধিক সদস্য? দিল্লির রাজনৈতিক মহলে ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে জল্পনা। কারণ, রাহুল ব্রিগেডের

অনেকেই দীর্ঘদিন ধরে সামলে আসছেন দলের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব। এবার তাদের মধ্যে থেকে কার ভাগ্যে শিঁকে ছিড়তে চলেছে, তার জন্য অপেক্ষা আপাতত রবিবার

পর্যন্ত। শুরু হয়েছে বেশ কিছুদিন আগে থেকেই। কারণ, ধীরে ধীরে দায়িত্ব বাড়ানো হচ্ছিল রাহুল গান্ধীর। এবার কি তাহলে একেবারে মন্ত্রিসভায়? সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই

মন্ত্রী হওয়া নিয়ে সোনিয়া তনয়ের সঙ্গে কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু, দশ জনপথ এনিয়ে মুখ খুলতে নারাজ। রাহুলকে নিয়ে শুধু নয়। জল্পনা দানা বাঁধতে শুরু করেছে

তাঁর ব্রিগেডকে নিয়েও। কারণ, টিম রাহুলের বেশিরভাগ সদস্যেরই কংগ্রেসের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব সামলানোর অভিজ্ঞতা রয়েছে বেশকয়েক বছরের।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় রদবদলে গুঞ্জন রাহুল গান্ধীকে ঘিরেই

রবিবারই সম্ভবত কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় রদবদল হতে চলেছে।  মন্ত্রিসভায় সোনিয়া পুত্র রাহুল গান্ধীর অভিষেক নিয়ে এখন রাজধানীর রাজনৈতিক মহলে জোর গুঞ্জন চলছে।

তবে এই গুঞ্জন আর জল্পনাকে খানিকটা ফিকে করেছে সচিন পাইলটের মন্তব্য। মন্ত্রিত্ব বা পদের থেকে জনগণের জন্য কাজ করতেই রাহুল গান্ধী বেশি আগ্রহী  বলে মন্তব্য

করেছেন তিনি। সচিন এ কথা বলায় নতুন প্রশ্নও উঁকিঝুঁকি মারছে। প্রশ্ন উঠছে, তাহলে কি দলে আরও গুরু দায়িত্ব পেতে চলেছেন রাহুল গান্ধী ?

কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় পরিবর্তনের সম্ভাবনা রবিবার

সম্ভবত আগামী রবিবারই রদবদল হতে চলেছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার। এফডিআইয়ের বিরোধিতা করে ইউপিএ ছেড়ে বেরিয়ে এসেছে তৃণমূল কংগ্রেস। টু-জি কাণ্ডের জেরে

মন্ত্রিত্ব খোয়াতে হয়েছে এ রাজা এবং দয়ানিধি মারানকে। ফলে অনেক মন্ত্রীকেই একাধিক গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রক সামলাতে হচ্ছে। তাঁদের ভার লাঘব করতেই এবার মন্ত্রিসভায়

একাধিক নতুন মুখের দেখা মিলতে পারে।