চেন্নাই মেট্রোতে যাত্রীকে চড় মেরে খবরের শিরোনামে স্তালিন

চেন্নাই মেট্রোতে যাত্রীকে চড় মেরে খবরের শিরোনামে স্তালিন

চেন্নাই মেট্রোতে এক যাত্রীকে চড় কসালেন ডিএমকে নেতা এমকে স্তালিন। বৃহস্পতিবার এই চড় কাণ্ডের ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পরার পরেই ভাইরাল হয়ে যায়। ফলস্বরূপ বিরোধী রাজনৈতিক দল ও নাগরিক সমাজের তীব্র

ধুতিকে আইনি সুরক্ষা দিতে বিল আনল তামিলনাড়ু সরকার

ধুতিকে আইনি সুরক্ষা দিতে বিল আনল তামিলনাড়ু সরকার

তামিলনাড়ুর ট্র্যাডিশনাল পোশাক ধুতিকে (ভেশ্তি) আইনি সুরক্ষা দিতে এগিয়ে এল জয়ললিতা সরকার। বুধবার বিধানসভায় এই নিয়ে নয়া বিল আনল সে রাজ্যের সরকার। এই বিল অনুযায়ী কোনও ক্লাব, ট্রাস্ট, কোম্পানি বা সভাতে

মোদীর প্রশংসা করে বিজেপির সঙ্গে জোটের রাস্তা কি খুলতে চাইছেন করুণানিধি?

নরেন্দ্র মোদীর প্রশংসায় ডিএমকে প্রধান এম করুণানিধি। কঠোর পরিশ্রমী মোদী তাঁর ভাল বন্ধু। করুণানিধিকে উদ্ধৃত করে এই খবর জানিয়েছে তামিল দৈনিক দিনামালার। তবে কি নতুন শরিক পেতে চলেছে এনডিএ? গতকাল এলজেপির

রাজীব গান্ধীর হত্যাকারীদের মুক্তির বিরোধীতা করে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ কেন্দ্র

রাজীব গান্ধীর হত্যাকারীদের মুক্তির বিরোধিতা করে সুপ্রিমকোর্টের দ্বারস্থ হওয়ার পথে কেন্দ্র। এর আগে নলিনী শ্রীহরন সহ রাজীব গান্ধী হত্যা মামলায় দোষী সব্যস্ত সাতজনকে মুক্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল তামিলনাড়ু

ছেলে আলাগিরিকে দল থেকে বহিষ্কার করলেন করুণানিধি

ছেলেকে ডিএমকে থেকে বহিষ্কার করার সিদ্ধান্ত নিলেন ডিএমকে প্রধান এম করুণানিধি। ফলে নতুন ধাক্কা দক্ষিণের রাজনীতিতে। বিজয়কান্তের ডিএমডিকের সঙ্গে গাঁট বাধার জন্যই আলাগিরিকে বহিষ্কৃত হতে হল বলে মানছে দলের

আইপিএলে শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটারদের খেলার অনুমতি মিলল

আইপিএলে শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটারদের খেলার অনুমতি দিল সে দেশের ক্রিকেট বোর্ড। তবে, নিরাপত্তার কারণে তামিলনাড়ুর কোনও মাঠে তাঁরা খেলতে পারবেন না। আইপিএল-এর বিভিন্ন দলে এবার শ্রীলঙ্কার মোট তেরোজন

শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটাররা চেন্নাইতে আইপিএল খেলতে পারবেন না: জয়ললিতা

তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতা আজ প্রধানমন্ত্রীকে লেখা একটি চিঠিতে স্পষ্ট ভাবে জানিয়ে দিলেন আসন্ন আইপিএলে অংশগ্রহণকারী ১২জন শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটারকে তাঁর রাজ্যে খেলার অনুমতি তিনি দেবেন না।

সংশোধনী আনতে ব্যর্থ হওয়ায় কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তোপ ডিএমকের

শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে প্রস্তাবে সংশোধনী আনতে ব্যর্থ হওয়ায় কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছে ডিএমকে। তাদের অভিযোগ, ভারত যে প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দিয়েছে তা লঘু ও দুর্বল। ভারতের কড়া অবস্থানের দাবিতে

রাষ্ট্রসঙ্ঘে শ্রীলঙ্কার বিরোধী প্রস্তাবে ভোট ভারতের

মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগে রাষ্ট্রসঙ্ঘে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে আনা প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দিল ভারত। সাতচল্লিশ সদস্যের মানবাধিকার কাউন্সিলের ২৫টি দেশই মার্কিন ওই প্রস্তাব সমর্থন জানানোয় তা পাশ হয়ে যায়।

স্ট্যালিনের বাড়িতে হানা তুলল সিবিআই

সিবিআইকে ডিএমকে নেতা স্ট্যালিনের বাড়িতে হানার কারণ দর্শাতে বলল কেন্দ্র। কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, তল্লাসির কারণ জানিয়ে লিখিত বিবৃতি দেবে তারা। আপাতত ডিএমকে নেতার বাড়িতে তল্লাসি

আজই রাষ্ট্রসংঘে শ্রীলঙ্কা বিরোধী প্রস্তাবের ওপর ভোটাভুটি

হাতে মাত্র কয়েকটা ঘণ্টা। আজই রাষ্ট্রসংঘে শ্রীলঙ্কা বিরোধী প্রস্তাবের ওপর ভোটাভুটি। তার আগেই ভারতীয় সংসদে পাস করিয়ে নিতে হবে সেই প্রস্তাবের সংশোধনী। যদিও এ নিয়ে সর্বদল বৈঠকে ঐকমত্য হয়নি। মতানৈক্য

শ্রীলঙ্কা গণহত্যার অভিযোগ অস্বীকার সেনাপ্রধানের

এলটিটিই নির্মূল অপারেশনের সময় শ্রীলঙ্কা সেনার বিরুদ্ধে গণহত্যার অভিযোগ অস্বীকার করলেন তত্কালীন সেনাপ্রধান শরথ ফনসেকা। বিষয়টি নিয়ে তদন্তের মুখোমুখি হতেও প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন তিনি। এ দিকে, আজই

দলগুলির আপত্তিতে শ্রীলঙ্কা বিরোধী প্রস্তাব পাস করানো যাবে না: চিদাম্বরম

অধিকাংশ রাজনৈতিক দলের আপত্তি থাকায় সংসদে শ্রীলঙ্কা বিরোধী প্রস্তাব পাস করানো যাবে না। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরম আজ এই কথা জানিয়েছেন। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী জানিয়েছেন, ডিএমকে সমর্থন

ডিএমকের সমর্থন প্রত্যাহার, প্রশ্নের মুখে যুক্তরাষ্ট্রীয় ব্যবস্থার পররাষ্ট্রনীতি

পররাষ্ট্রনীতিকে ইস্যু করে ডিএমকের সমর্থন প্রত্যাহার দেশের যুক্তরাষ্ট্রীয় ব্যবস্থাকেই প্রশ্নের মুখে দাঁড় করিয়ে দিয়েছে। পররাষ্ট্রনীতিতে কেন্দ্রেরই অধিকার না তাতে রাজ্যেরও বক্তব্য থাকবে? উঠছে এমন

ইস্তফা দিলেন ডিএমকের মন্ত্রীরা

কালই ডিএমকে সুপ্রিমো করুণানিধি জানিয়ে ফিয়েছেন সমর্থন প্রত্যাহারের কথা। গত কাল রাতেই টি আর বালুর নেতৃত্বে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করে মন্ত্রিসভা থেকে ইস্তফা এবং সমর্থন প্রত্যাহারের চিঠি দিয়ে এসেছেন। আজ

সঙ্কটে নয় সরকার: চিদাম্বরম

শ্রীলঙ্কা ইস্যুতে ডিএমকে সমর্থন প্রত্যাহার করলেও সরকার চালাতে সমস্যা হবে না কেন্দ্রের। মন্ত্রিসভার দুই গুরুত্বপূর্ণ সদস্য কমলনাথ এবং মণীশ তিওয়াড়িকে পাশে নিয়ে সাংবাদিকদের এই কথা জানালেন চিদাম্বরম।