যদি পৃথিবী থেকে হারিয়ে যায় মানুষ? (দেখুন ভিডিওতে)

যদি পৃথিবী থেকে হারিয়ে যায় মানুষ? (দেখুন ভিডিওতে)

ভাবুন তো পৃথিবীতে যদি মনুষ্যকুল না থাকে তাহলে কী হবে? কোন জায়গায় গিয়ে দাঁড়াবে পৃথিবীর পরিস্থিতি। ভাবছেন তো বিশ্বজুড়ে বিজ্ঞানের এই অগ্রগতির মাঝে এ আবার কী সব কথা। দিব্যি খেয়ে, পড়ে বেঁচে আছেন, তার মাঝে এ সব অযৌক্তিক কথা কেন?

১১ বছর পর পৃথিবীর কাছাকাছি আসছে মঙ্গল ১১ বছর পর পৃথিবীর কাছাকাছি আসছে মঙ্গল

এটা সত্যি যে ইতিহাস নিজে থেকেই বদলায়। প্রতি ১০ বছর অন্তর নতুন নতুন ইতিহাস তৈরি হতে থাকে। এমনই এক ইতিহাসের সম্মুখীন হতে চলেছেন সমগ্র পৃথিবীর মানুষ। আগামিকাল অর্থাত্‌ ৩০ মে পৃথিবীর সবচেয়ে কাছে আসতে চলেছে মঙ্গল। এই বিরল ঘটনা পৃথিবী দেখতে চলেছে ১১ বছর পর।

মঙ্গল পৃথিবীর সবথেকে কাছে আসতে চলেছে এই সপ্তাহে! মঙ্গল পৃথিবীর সবথেকে কাছে আসতে চলেছে এই সপ্তাহে!

আগামী ৩০ মে পৃথিবীর সবচেয়ে কাছে আসবে লাল গ্রহ মঙ্গল। এরপর গ্রহটি পৃথিবী থেকে ৪ কোটি ৬৭ লাখ মাইল দূরে থাকবে কয়েক সপ্তাহ ধরে। টেলিস্কোপ তো বটেই রাতের আকাশে খালি চোখেও দেখা যাবে এই ঘটনা। গত ১৩ বছরে পৃথিবী থেকে মঙ্গলকে এত বড়, এত উজ্জ্বলভাবে আর কখনও দেখা যায়নি।

বিশ্ব ব্রহ্মান্ডে আছে আরও ৯টা 'পৃথিবী'! বিশ্ব ব্রহ্মান্ডে আছে আরও ৯টা 'পৃথিবী'!

গোটা সৌরজগতে এমন একটি গ্রহের কথাই আমরা জানি যেখানে প্রাণ রয়েছে। পৃথিবী। বাকি ৯টা গ্রহে প্রাণ আছে কি নেই, সেখানে বাস করা সম্ভব কিনা এসব এখনও প্রমাণ সাপেক্ষ। মহাকাশচারীরা তা নিয়ে চালিয়ে যাচ্ছেন গবেষণা। কিন্তু সৌরজগতের বাইরে কি এমন কোনও গ্রহ আছে যেখানে বাস করা সম্ভব? নাসা বলছে আছে। একটা নয়, ৯টা। গোটা বিশ্ব ব্রহ্মান্ডে আছে আরও ৯টা 'পৃথিবী'।

খুব শিগগিরই জন্ম নিতে চলেছে আরেকটা 'পৃথিবী' খুব শিগগিরই জন্ম নিতে চলেছে আরেকটা 'পৃথিবী'

যে হারে পৃথিবীর জনসংখ্যা বাড়ছে, তাতে আর কয়েকবছর পরই মানুষ কোথায় গিয়ে থাকবে, মনের কোণে হালফিল উঁকি মারে সেই চিন্তা। তবে আর বোধহয় সে দুশ্চিন্তার কারণ নেই। কারণ আরেকটা 'পৃথিবী' জন্মাচ্ছে যে!

পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে এক সবুজ ধূমকেতু! কবে? পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে এক সবুজ ধূমকেতু! কবে?

ধেয়ে আসছে ধূমকেতু। যেমন তেমন ধূমকেতু নয়, সবুজ রঙের এক ধূমকেতু। যা দেখতে পাবেন পৃথিবীর উত্তর গোলার্ধের মানুষরা। সবুজ সে ধূমকেতুর নাম কমেট লিনিয়ার। আর ৩ দিন পর সূর্যোদয়ের আগে খালি চোখে আকাশের দিকে তাকান, দেখতে পাবেন সবুজ রঙের সেই মহাজাগতিক ‘রহস্য’কে।

রবিবার পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে অতিকায় এক গ্রহাণু! ধাক্কায় কী হবে? রবিবার পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে অতিকায় এক গ্রহাণু! ধাক্কায় কী হবে?

রবিবার অর্থাত্‍ আগামীকাল পৃথিবীর সামনে তার অস্তিত্ব রক্ষার বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে। কারণ, প্রায় ১০০ ফুটের থেকেও বেশি লম্বা এক বিরাট গ্রহাণু ধেয়ে আসছে পৃথিববীর দিকে। এই কথা জানিয়েছে নাসা। এই বিরাট গ্রহানুটি প্রচণ্ড গতিবেগে পৃথিবীর প্রায় ১৫ হাজার মাইল দূর থেকে চলে যাওয়ার কথা।

সবাইকে সাহায্য করুন সবাইকে সাহায্য করুন

বলা হয় আপনি যদি কাউকে মন থেকে সাহায্য করেন, তাহলে একদিন না একদিন তার প্রতিদান আপনি পাবেনই। এটাই নিয়ম পৃথিবীর। তবে সব সাহায্য কি আর প্রতিদানের ভিত্তিতে নির্ভর করে? এমন কোনও কোনও মানুষ এখনও পৃথিবীতে রয়েছেন যাঁরা আজও নিঃস্বার্থভাবে সাহায্য করতে ভালোবাসেন।

পৃথিবীর বুকে এক গোলা এসে পড়েছে মিনিটে ৪১,৬০০ মিটার প্রতি ঘণ্টা বেগে! পৃথিবীর বুকে এক গোলা এসে পড়েছে মিনিটে ৪১,৬০০ মিটার প্রতি ঘণ্টা বেগে!

রোজ সকালে উঠে আকাশের দিকে তাকালেই একটা সোনালি রঙয়ের বল আকাশে জ্বলজ্বল করে। ভয়ঙ্কর এই আগুনের গোলাটাকে দেখে ভয় পাওয়া তো দূরের কথা, আমরা আবার তাকে আদর করে ডাকি সূয্যি মামা। কিন্তু ভাবুন তো এই সূয্যি মামা যদি কোনওদিন রাগ করে পৃথিবীর দিকে তেড়ে আসে তবে কী হবে? গনগনে আঁচে জ্বলতে থাকা আগুনের বলটা যদি পৃথিবীর ওপর আছড়ে পড়ে, তবে আর কি আস্ত থাকবে পৃথিবী?

পৃথিবী ১ সেকেন্ড থেমে গেলে কী হবে? পৃথিবী ১ সেকেন্ড থেমে গেলে কী হবে?

চিন্তা কী আর আমাদের একটা। ফেসবুকের নতুন সেলফিটাই ক'টা লাইক পড়ল। স্ট্যাটাস আপডেটটায় কে কী কমেন্ট করল। বাজারে কী নতুন স্মার্টফোন লঞ্চ হলো। হাজারটা চিন্তা। কিন্তু এত কিছু ভাবনা চিন্তার মধ্যে ভেবে দেখেছেন কি কখনো যদি এই সব কর্মকাণ্ড থেমে যায়! মানে পৃথিবীটা যদি ১ সেকেন্ডের জন্য ঘোরা বন্ধ করে দেয় তবে কী হবে?

জলই জীবন, কিন্তু সেটা খাওয়ারও আছে গুরুত্বপূর্ণ নিয়ম জলই জীবন, কিন্তু সেটা খাওয়ারও আছে গুরুত্বপূর্ণ নিয়ম

আমরা সবাই জানি জলই জীবন। জলের জন্যই রয়েছে প্রাণ। এই পৃথিবীর তিন ভাগই তো জল। আর এক ভাগ স্থল। শুধু পৃথিবীই বা কেন। আমাদের শরীরের ৭০ শতাংশ জল। মস্তিষ্কের ক্ষেত্রেও তাই। সে সব না হয় হল। কিন্তু জানেন কী, জলটাও নিয়ম করে পান করা উচিত। তাহলেই পাবেন উপকার। অন্যথায় জল শরীরের ক্ষতিও করতে পারে। তাই এক ঝলকে জেনে নিন, জল কীভাবে পান করা উচিত।

 আজ থেকে ঠিক ১০০ বছর পর ২১১৬ সালে কেমন হবে আমাদের পৃথিবী! আজ থেকে ঠিক ১০০ বছর পর ২১১৬ সালে কেমন হবে আমাদের পৃথিবী!

টাইম মেশিনের কথা অনেক পড়েছেন। সিনেমাতে দেখেছেন। এছাড়াও আপনার কল্পনার জগতেই তো আপনি কতবার আগে পিছিয়ে ভাবেন। এবার বফিনস জানাচ্ছে, আজ থেকে ঠিক ১০০ বছর পর অর্থাত্‍ ২১১৬ সালে কেমন  হবে পৃথিবী। বলাইবাহুল্য সেই পৃথিবীর সঙ্গে নাকি আজকের পৃথিবীর কোনও মিলই থাকবে না। কী কী হবে? দেখুন এক ঝলকে।

এলিয়েন আছে, তাহলে দেখা যায় না কেন? উত্তর দিলেন গবেষকরা এলিয়েন আছে, তাহলে দেখা যায় না কেন? উত্তর দিলেন গবেষকরা

আমরা মাঝেমাঝেই শুনি, এই গ্রহে যাতায়াত রয়েছে এলিয়েনের। অথবা, এলিয়েন আছেই। কিন্তু প্রশ্ন হল, এতই যদি এলিয়েনরা আমাদের সৌরজগতে থাকে, তাহলে আমরা সাধারণ মানুষ এলিয়েনদের দেখা পাই না কেন? এই বিষয়ে নতুন একটি বক্তব্য এসেছে সামনে। অস্ট্রেলিয়ান ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির গবেষকরা দীর্ঘদিন ধরে এলিয়েনদের নিয়ে গবেষণা করার পর একটি তথ্য পেশ করেছেন। তাঁদের বক্তব্য, হতে পারে এলিয়েনরা ছিল। কিন্তু তারা আজ আর কেউ নেই। তার কারণ, পৃথিবী থেকে যেমন বেশ কিছু প্রাকৃতিক নিয়মেই ডাইনোসোররা লুপ্ত হয়ে গিয়েছে, তেমনই সৌরজগত থেকে লুপ্ত হয়ে গিয়েছে এলিয়েনরাও।

পৃথিবীর এমন ১০টি দেশ, যেখানকার তাপমাত্রার কথা ভেবেই লাগবে ঠান্ডা পৃথিবীর এমন ১০টি দেশ, যেখানকার তাপমাত্রার কথা ভেবেই লাগবে ঠান্ডা

কলকাতা সহ অন্যান্য রাজ্যগুলিতে ঠান্ডা এসে গেছে। তবে দীর্ঘ অপেক্ষার পর কলকাতাবাসী ঠান্ডার মুখ দেখেছেন পশ্চিমবঙ্গে। কিন্তু ঠান্ডা পড়েও ঠিক মনের মতো কনকনে ঠান্ডার কোনও দেখাই নেই। কিছুদিন আগে তো সবাই মনে করেছিলেন ঘরের মধ্যে এসি চালিয়ে ঠান্ডা আবহাওয়া তৈরি করবেন। কিন্তু সকলের চিন্তাতে কার্যত জল ঢেলে দিয়ে শীত আসে রাজ্যে। তবে এবার দেখে নিন পৃথিবীর এমন কিছু দেশ যেখানকার শীতল আবহাওয়ার কথা মাথায় আসলেই আপনার ঠান্ডা লাগতে শুরু করবে...

পৃথিবীর এমন দেশ যেখানে মৃত্যু হল দণ্ডণীয় অপরাধ পৃথিবীর এমন দেশ যেখানে মৃত্যু হল দণ্ডণীয় অপরাধ

পৃথিবীর মধ্যে এমন দেশ আছে যেখানে মৃত্যুকে অপরাধের সমান বলে গণ্য করা হয়। অবাক লাগলেও এটাই সত্যি। সেই দেশে মৃত্যু একটি বড় অপরাধ। ইতালির একটি ছোট শহর সেল্লিয়া, যেখানে মৃত্যু হল অপরাধ।