কলেজে আর নতুন করে পার্শ্ব শিক্ষক নিয়োগ হবে না, বিধানসভায় জানালেন শিক্ষামন্ত্রী

কলেজে আর নতুন করে পার্শ্ব শিক্ষক নিয়োগ হবে না, বিধানসভায় জানালেন শিক্ষামন্ত্রী

কলেজে আর নতুন করে পার্শ্ব শিক্ষক নিয়োগ হবে না এইরাজ্যে। বিধানসভায় বিরোধীদের প্রশ্নের জবাবে একথা জানান শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তিনি বলেন এই মুহূর্তে রাজ্যে ৫ হাজার ১৩৭ জন পার্শ্বশিক্ষক রয়েছে। যাদের মধ্যে বারোশোর বেশি শিক্ষকের নিয়োগ ইউজিসির নিয়ম মেনে হয়নি। ২০০৫ সাল থেকে পরিসংখ্যান দিয়ে তিনি দেখান এই রাজ্যে ক্রমে লাফিয়ে বেড়েছে পার্শ্ব শিক্ষকের সংখ্যা।

যাদবপুরে বিক্ষোভের ঘটনায় ছাত্রছাত্রীদেরই কাউন্সেলিংয়ের সওয়াল শিক্ষামন্ত্রীর যাদবপুরে বিক্ষোভের ঘটনায় ছাত্রছাত্রীদেরই কাউন্সেলিংয়ের সওয়াল শিক্ষামন্ত্রীর

যাদবপুরে বিক্ষোভের ঘটনায় ছাত্রছাত্রীদেরই কাউন্সেলিংয়ের সওয়াল করলেন শিক্ষামন্ত্রী। এর আগেও কাউন্সেলিংয়ের কথা বলতে শোনা গেছে মুখ্যমন্ত্রীকে। অভিযুক্তের পক্ষে দাঁড়িয়ে পুলিসের কাউন্সিলিংয়ের কথা বলেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। এবার বিক্ষোভকারীদের কাউন্সেলিংয়ের সওয়াল শিক্ষামন্ত্রীর। কিন্তু বারবার কেন কাউন্সেলিংয়ের পরামর্শ ? যাদবপুরে ছাত্র বিক্ষোভ। পুলিসের ক্ষমা চাওয়ার দাবিতে দীর্ঘ প্রায় কুড়ি ঘণ্টা যাদবপুর থানার সামনে অবস্থান।

শিক্ষকদের ক্লাসেও যেতে হবে, কড়া দাওয়াই মন্ত্রীর শিক্ষকদের ক্লাসেও যেতে হবে, কড়া দাওয়াই মন্ত্রীর

শিক্ষকদের দাবিদাওয়া সম্পর্কে সরকার সচেতন। কিন্তু শিক্ষকরা কি দায়বদ্ধ নিজেদের দায়িত্ব সম্পর্কে? খোদ রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রীর গলায় শোনা গেল এমন কথা। মন্ত্রীর আবেদন, শিক্ষকদের মূল কাজ ক্লাস নেওয়া। তা সবার আগে করা উচিত তাঁদের।    

'রাজরোষেই' কি প্রেসিডেন্সি ছাড়া রেজিস্ট্রার প্রবীর দাশগুপ্ত, উঠছে প্রশ্ন 'রাজরোষেই' কি প্রেসিডেন্সি ছাড়া রেজিস্ট্রার প্রবীর দাশগুপ্ত, উঠছে প্রশ্ন

প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রারকে আচমকা বদলির নির্দেশ দিল শিক্ষা দফতর।  হঠাত্‍ই রেজিস্ট্রার প্রবীর দাশগুপ্তকে  দুর্গাপুরে বদলি করে দেওয়া হয়েছে। প্রেসিডেন্সিতে হামলার  ঘটনায় শাসক দলের রোষের মুখে পড়েছিলেন রেজিস্ট্রার।  প্রকাশ্যেই তাঁকে নিশানা করেছিলেন তৃণমূল নেতা পার্থ চট্টোপাধ্যায়। এবারে পার্থ চট্টোপাধ্যায় শিক্ষামন্ত্রী হওয়ার পর প্রবীর দাশগুপ্তের হঠাত্‍-বদলি  নিয়ে তাই প্রশ্ন উঠেছেবিভিন্ন মহলে। প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে হামলার ঘটনায় প্রকাশ্যে মুখ খুলে শাসক দলের রোষের মুখে পড়েছিলেন রেজিস্ট্রার প্রবীর দাশগুপ্ত।

নিরাপত্তা নেই, তাই মন্ত্রীর কোপে সংসদ নির্বাচন

আগামী ৬ মাস নির্বাচন বন্ধ রাখার জন্য বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের কাছে আর্জি জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী। তাঁর যুক্তি, কয়েক দিনের মধ্যেই রাজ্যের বিভিন্ন স্কুল কলেজে বোর্ড পরীক্ষা শুরু হচ্ছে। মাদ্রাসা, মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক সহ বিভিন্ন পরীক্ষা কেন্দ্রে যেহেতু ব্যাপক পুলিসি নিরাপত্তার প্রয়োজন, সেই কারণে নির্বাচন কেন্দ্রে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা দেওয়া সম্ভব হবে না। কোনও নির্দিষ্ট ঘটনা নয়, রাজ্য জুড়ে ছাত্র নির্বাচন সুষ্ঠু ভাবে পরিচালনা করার জন্যই এই আর্জি বলেও জানিয়েছেন তিনি। এর ফলে গার্ডেনরিচের হরিমোহন ঘোষ কলেজ সহ সব কলেজেই নির্বাচন বন্ধ হয়ে গেল। আগামী নির্বাচন পর্যন্ত পুরোনো ছাত্র সংসদই পরিবর্তন হবে না।

চাকরি সংকটে প্রাথমিক শিক্ষক-শিক্ষিকারা

ফের চাকরি নিয়ে সংকটে পড়তে চলেছেন রাজ্যের কয়েক হাজার প্রাথমিক শিক্ষক শিক্ষিকা। শিক্ষা অধিকার আইন অনুযায়ী শিক্ষকদের নির্দিষ্ট যোগ্যতা অর্জনের ব্যবস্থা এখনও না হওয়াতেই এই সমস্যায় পড়তে হবে তাদের । শুধুমাত্র রাজ্য সরকারের টালবাহানাতেই এমন পরিস্থিত তৈরি হয়েছে বলেই ইতিমধ্যেই অভিযোগ উঠতে শুরু করেছে।

আমলাদের ক্ষমতা ছেঁটে এসএসসি প্রশ্নপত্রের দায়িত্ব চেয়ারম্যানদের

এসএসসির প্রশ্নপত্র বিভ্রাটের জেরে ব্যবস্থাই বদলে ফেলছে কর্তৃপক্ষ। পরীক্ষার জন্য আর ট্রেজারিতে প্রশ্নপত্র পাঠাতে নারাজ স্কুল সার্ভিস কমিশন। আগামী ২ সেপ্টেম্বর স্কুল সার্ভিস কমিশনের যে ৫টি কেন্দ্রে আবার পরীক্ষা হবে সেখানে একটি বাদে প্রত্যেকটিতেই কমিশনের আঞ্চলিক প্রধানরা সরাসরি প্রশ্নপত্র পৌঁছে দেবেন।

ফের হবে স্কুল সার্ভিস তদন্ত, জানালেন শিক্ষামন্ত্রী

স্কুল সার্ভিস কমিশনের তদন্ত রিপোর্টে খুশি না হয়ে শেষপর্যন্ত নিজেরাই তদন্ত করার সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য সরকার। আজ নিউ আলিপুর কলেজে এক অনুষ্ঠানে শিক্ষা মন্ত্রী ব্রাত্য বসু বলেন, স্কুল সার্ভিস কমিশনের তরফে যে রিপোর্ট জমা দেওয়া হয়েছে সেখানেও কারও নামে নির্দিষ্টভাবে অভিযোগ দায়ের করা হয়নি।

এসএসসি বিভ্রাটে কমিশনের রিপোর্ট খারিজ স্কুলশিক্ষামন্ত্রীর

পরীক্ষা বিভ্রাট নিয়ে স্কুল সার্ভিস কমিশনের তদন্ত রিপোর্ট ফিরিয়ে দিলেন শিক্ষামন্ত্রী। তাঁর অভিযোগ, গাফিলতির ফলে এই ঘটনা ঘটেছে বলা হলেও, কারা গাফিলতির সঙ্গে যুক্ত এবং এই গাফিলতি ইচ্ছাকৃত কিনা সেবিষয়ে রিপোর্টে নির্দিষ্টভাবে কিছুই বলা নেই। দোষীদের চিহ্নিত করে তিনদিনের মধ্যে ফের কমিশনকে রিপোর্ট জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন স্কুলশিক্ষামন্ত্রী।

কলেজ নির্বাচন নিয়ে ডিভিশন বেঞ্চের দ্বারস্থ কমিশন

কলেজ নির্বাচন পরিচালনার ভার কার হাতে থাকবে, তা নিয়ে এবার মামলা দায়ের হল কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চে। হাইকোর্টের নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে ডিভিশন বেঞ্চে মামলা করেছে রাজ্য নির্বাচন কমিশন। কলেজ নির্বাচন পরিচালনা করতে নারাজ রাজ্য নির্বাচন কমিশন। সেই মর্মেই আজ এই মামলা রুজু করা হয়েছে।

শিক্ষামন্ত্রীর বক্তব্যের বিপরীত পথে হাঁটল স্কুলশিক্ষা দফতর

২৮ ফেব্রুয়ারি ধর্মঘটে সরকারি কর্মীদের গরহাজিরা নিয়ে সরকারের অবস্থানের উল্টো কথা বলেছিলেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। এবার, শিক্ষমন্ত্রীর বক্তব্যের সম্পূর্ণ বিপরীতে গিয়ে ২৮ ফেব্রুয়ারি ধর্মঘটেরি দিন অনুপস্থিতদের ক্ষেত্রে ব্যবস্থা নেওয়ার পথে স্কুলশিক্ষা দফতর।

সিদ্ধান্ত হল না বৈঠকে

অধ্যাপকদের অবসরের বয়স ৬৫ করা বা পদোন্নতি সংক্রান্ত কোনও বিষয়েই সিদ্ধান্ত হল না মন্ত্রিসভার বৈঠকে। বুধবার দুপুরে শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে দীর্ঘক্ষণ বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শিক্ষামন্ত্রী জানিয়েছিলেন, এই বৈঠকেই দুটি বিষয় নিয়ে আলোচনা হবে এবং পরে মন্ত্রিসভায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

জেলাওয়ারি একই দিনে ছাত্র সংসদ নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য সরকার

কলেজে কলেজে ছাত্র সংঘর্ষ এড়াতে জেলাওয়ারি একই দিনে ছাত্র সংসদ নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য সরকার। বৃহস্পতিবার শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু জানান নির্বাচন কমিশনের পরামর্শ মেনে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

প্রেসিডেন্সিতে চালু হচ্ছে ৪ নতুন অধ্যাপক পদ

প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে চালু হচ্ছে ৪টি নতুন অধ্যাপক পদ। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, জগদীশ চন্দ্র বসু, স্বামী বিবেকানন্দ এবং নেতাজী সুভাষচন্দ্র বসুর নামে এই চারটি বিশেষ অধ্যাপকপদ চালু করার আর্জি জানিয়েছিল মেন্টর গ্রুপ।

উচ্চমাধ্যমিকে ফিরছে মেধাতালিকা

মুখ্যমন্ত্রী এবং শিক্ষামন্ত্রীর ইচ্ছানুসারে রাজ্যে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিকে মেধাতালিকা ফিরতে চলেছে। ৩১ অক্টোবর মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী, মধ্যশিক্ষা পর্ষদ এবং উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের বৈঠকে এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়।

শিক্ষাসংসদে নিয়োগ ঘিরে বিতর্কে শিক্ষামন্ত্রী

উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষাসংসদে এক ব্যক্তির নিয়োগকে ঘিরে বিতর্কে জড়ালেন শিক্ষামন্ত্রী। অভিযোগ, সংসদের সভাপতির আপ্তসহায়ক পদে নিয়োজিত হয়েছেন অষ্টমশ্রেণি পাস করা এক ব্যক্তি।