উত্তরবঙ্গে বন্যা নিয়ন্ত্রণে কেন্দ্রের দ্বারস্থ রাজ্য

উত্তরবঙ্গের বন্যা নিয়ন্ত্রণে কেন্দ্রের কাছে দরবার করবে রাজ্য। জলদাপাড়ায় উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন পর্ষদের সঙ্গে বৈঠক সেরে আজ একথা জানান মুখ্যমন্ত্রী। একই সঙ্গে আদিবাসী উন্নয়ন পর্ষদের সঙ্গেও এদিনবৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী। আদিবাসীদের উন্নয়নে উনিশটি জেলায় আদিবাসী কেন্দ্র তৈরি হবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।বৃহস্পতিবার জলদা পাড়া টুরিস্ট লজে প্রশাসনিক বৈঠক সারলেন মুখ্যমন্ত্রী। প্রথম বৈঠক ছিল আদিবাসী উন্নয়ন পর্ষদের সঙ্গে। বৈঠক শেষে মুখ্যমন্ত্রী জানান উনিশটি জেলায় আদিবাসী সেন্টার তৈরি হবে। তথ্য বিপনীর কাজ করবে এই সব আদিবাসী সেন্টার।

বন্যা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে গোপীবল্লভপুরে মমতা, মুখ্যমন্ত্রীর নালিশের জেরে জল ছাড়ার পরিমাণ কমাল ডিভিসি

বন্যা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে গোপীবল্লভপুর পৌঁছে গিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। শুরু হয়েছে ত্রাণ বিলির কাজ। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত বাড়ি পুনর্গঠনের জন্য পনেরো হাজার টাকা আর্থিক সাহায্যের কথা ঘোষণা করেছেন তিনি। বিডিওদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বিডিওদের ব্লক ছেড়ে না যাওয়ার নির্দেশও দিয়েছেন। আজ  দাঁতন ও নয়াগ্রামেও যেতে পারেন মুখ্যমন্ত্রী। গতকাল রাতেই ঝাড়গ্রাম পৌঁছন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রীর নিরাপত্তা নিয়ে আজ যথেষ্টই সতর্ক প্রশাসন। পশ্চিম মেদিনীপুরের পাশাপাশি পূর্ব মেদিনীপুরেও বন্যাদুর্গত এলাকা পরিদর্শনে যেতে পারেন তিনি। ত্রাণ পরিষেবা নিয়ে বৈঠক করতে পারেন জেলা প্রশাসনের কর্তাদের সঙ্গে।