অন্ধ্রপ্রদেশে ২০ জন চন্দনকাঠ পাচারকারীর মৃত্যুর পুলিসি রিপোর্ট চাইল জাতীয় মানবাধিকার কমিশন

অন্ধ্রপ্রদেশে ২০ জন চন্দনকাঠ পাচারকারীর মৃত্যুর পুলিসি রিপোর্ট চাইল জাতীয় মানবাধিকার কমিশন

চিত্তুরের জঙ্গলে পুলিসের গুলিতে ২০ জন চন্দনকাঠ পাচারকারীর মৃত্যুর ঘটনায় অন্ধ্রপ্রদেশ সরকারকে নোটিস দিল জাতীয় মানবাধিকার কমিশন। এঘটনায় পুলিসের ভূমিকা সম্পর্কে ২ সপ্তাহের মধ্যে অন্ধ্রের মুখ্যসচিব ও প

রাজ্যে মানবাধিকার কমিশনের স্থায়ী চেয়ারম্যানের পক্ষে সওয়াল রাজ্যপালের রাজ্যে মানবাধিকার কমিশনের স্থায়ী চেয়ারম্যানের পক্ষে সওয়াল রাজ্যপালের

রাজ্য মানবাধিকার কমিশনের স্থায়ী চেয়ারম্যানের পক্ষে সওয়াল করলেন রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী। অন্যদিকে বিশ্ব মানবাধিকার দিবসে রাজ্য মানবাধিকার কমিশনের সাম্প্রতিক কাজে মোটেই খুশি নন কমিশনের প্রাক্তন চেয়ারম্যান অশোক গাঙ্গুলি।

অশোক গাঙ্গুলির পাশে কলকাতা হাইকোর্টের আইনজীবীরা

অপসারণ বিতর্কে অশোক গাঙ্গুলির পাশে দাঁড়ালেন কলকাতা হাইকোর্টের আইনজীবীরা। আজ হাইকোর্টের মূল গেটের সামনে থেকে ক্ষুদিরাম অনুশীলন কেন্দ্র পর্যন্ত মৌন মিছিল করলেন তারা। নির্দিষ্ট তথ্যপ্রমাণ ছাড়াই কেন তাকে অপসারণের চেষ্টা চলছে, সে প্রশ্ন তুললেন আইনজীবীরা।

অশোক গাঙ্গুলি বিতর্কে রাষ্ট্রপতির হস্তক্ষেপ, কেন্দ্রের কাছে বিস্তারিত তথ্য চেয়ে পাঠালেন

অশোক গাঙ্গুলি বিতর্কে হস্তক্ষেপ করলেন রাষ্ট্রপতি। রাজ্য মানাবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ সম্পর্কে কেন্দ্রের কাছে বিস্তারিত তথ্য চাইলেন প্রণব মুখোপাধ্যায়। এই ঘটনায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের মত জানতে চেয়েছেন তিনি।

যৌন হেনস্থাকাণ্ডে আরও বিপাকে অশোক গাঙ্গুলি, নিগৃহীতার জবানবন্দীতে উঠে এল বিস্ফোরক তথ্য

যৌন হেনস্থাকাণ্ডে আরও চাপে অশোক গাঙ্গুলি। আদালতে দেওয়া নিগৃহীতার জবানবন্দি প্রকাশ্যে নিয়ে এলেন অতিরিক্ত সলিসিটর জেনারেল ইন্দিরা জয়সিং। এর ফলে সামনে চলে এসেছে বেশকিছু বিস্ফোরক অভিযোগ। সর্বভারতীয় একটি ইংরেজি দৈনিকে ছাপা ওই জবানবন্দি অনুযায়ী, ঘটনার দিন হোটেলের ঘরে নিজে মদ্যপান করেছিলেন অশোক গাঙ্গুলি। তাঁকেও মদ্যপানের জন্য বারবার তিনি চাপ দিচ্ছিলেন। তাঁর সৌন্দর্যের প্রতি আকর্ষিত হয়েছেন বলেও বারবার দাবি করছিলেন সুপ্রিমকোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি।

অশোক গাঙ্গুলির পদত্যাগের দাবিতে বিজেপির সঙ্গে গলা মেলাল তৃণমূল, উত্তাল সাংসদ

রাজ্য মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারপার্সন অশোক গাঙ্গুলির পদত্যাগের জন্য চাপ বাড়ছে। অশোক গাঙ্গুলির পদত্যাগের দাবিতে আজ লোকসভা উত্তাল হয়ে ওঠে। বিজেপি ও তৃণমূল একযোগে এতদিন চাপ বাড়ছিল সংসদের বাইরে। এবার সংসদের ভিতরেও তা চলে এল। রাজ্য মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারপার্সনের পদ থেকে অশোক গাঙ্গুলির ইস্তফা চেয়ে শুক্রবার শুরুতেই উত্তাল হয়ে ওঠে লোকসভা। অশোক গাঙ্গুলির পদত্যাগ নিয়ে আলোচনা চান বিরোধী দলনেত্রী সুষমা স্বরাজ। যৌন নির্যাতনে অভিযুক্ত হওয়ার পরেও অশোক গাঙ্গুলি কেন মানবাধিকার কমিশনের পদে, তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তিনি।

যৌন নিগ্রহের ঘটনায় প্রাথমিক সাক্ষ্যপ্রমাণ মানবধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান অশোক গাঙ্গুলি বিরুদ্ধে , জানাল সুপ্রিমকোর্টের প্যানেল

সুপ্রিমকোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি অশোক গাঙ্গুলির বিরুদ্ধে যৌন নির্যাতনের অভিযোগের তদন্তের দায়িত্বে থাকা সুপ্রিমকোর্টের তিন সদস্যের প্যানেল জানাল, প্রাথমিক সাক্ষ্যপ্রমাণ অনুযায়ী আপাতদৃষ্টিতে (প্রাইমা ফেসি) এই ঘটনায় অভিযুক্ত অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি অভিযোগকারিনীর সঙ্গে অবাঞ্ছিত যৌন সম্পর্ক তৈরি করার চেষ্টা করেছিলেন।

রাজ্য মানবাধিকার কমিশনের সদস্য হচ্ছেন প্রাক্তন ডিজি নপরাজিত মুখোপাধ্যায়

রাজ্য মানবাধিকার কমিশনের সদস্য করা হল প্রাক্তন ডিজি নপরাজিত মুখোপাধ্যায়কে। আজ মুখ্যমন্ত্রী, বিধানসভার অধ্যক্ষ ও বিরোধী দলনেতার বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়েছে। প্রাক্তন পুলিস কর্তাকে মানবাধিকার কমিশনে আনায় আপত্তি জানিয়েছেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা সূর্যকান্ত মিশ্র।রাজ্য মানবাধিকার কমিশনের সদস্য করা হল প্রাক্তন ডিজি নপরাজিত মুখোপাধ্যায়কে।আজ বিধানসভায় বৈঠক করেন অধ্যক্ষ, মুখ্যমন্ত্রী ও বিরোধী দলনেতা। সেই বৈঠকেই প্রাক্তন ডিজিকে সদস্য করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছে।তবে, প্রাক্তন এক পুলিস কর্তাকে রাজ্য মানবাধিকার কমিশনে আনায় প্রশ্ন তোলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা সূর্যকান্ত মিশ্র।

পুলিসের গাফিলতিই সুদীপ্ত গুপ্তর মৃত্যুর কারণ, জানাল মানবধিকার কমিশন

পুলিস সতর্ক থাকলে এসএফআই নেতা সুদীপ্ত গুপ্তর মৃত্যু এড়ানো যেত। পুলিসের গাফিলতিতেই সুদীপ্তর মৃত্যু হয়েছে। রাজ্যের অস্বস্তি বাড়িয়ে এই মন্তব্য করল রাজ্য মানবাধিকার কমিশ। সেই কারণে সরকারকে ১০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণের নির্দেশ দিয়েছে মানবাধিকার কমিশন।

অশোক গঙ্গোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে কেন্দ্রকে চিঠি রাজ্যের

রাজ্য মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান অশোক গঙ্গোপাধ্যায় সঠিক তথ্য দিয়েছেন কিনা তা জানতে চেয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক এবং বিদেশমন্ত্রককে চিঠি দিচ্ছে রাজ্য।গত মাসে পাকিস্তানে একটি সেমিনারে অংশ নিতে যান অশোকবাবু। তাঁর এই সফরকে ঘিরে প্রশ্ন ওঠে।

উপাচার্য, প্রত্যক্ষদর্শীদের সঙ্গে কথা বলে শুরু মানবাধিকারের তদন্ত

প্রেসিডেন্সিকাণ্ডে আজ থেকে পৃথক তদন্ত শুরু করল রাজ্য মানবাধিকার কমিশন। ভাঙচুরের ঘটনার তদন্তে আজ প্রেসিডেন্সিতে গেলেন মানবাধিকার কমিশন নিযুক্ত তদন্ত কমিটির প্রধান অমল মুখোপাধ্যায়। উপাচার্য মালবিকা সরকারের সঙ্গে কথা বলেন অমল মুখোপাধ্যায়। বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপকদের সঙ্গেও কথা বলবেন তিনি। এরপর বেকার ল্যাব ঘুরে দেখতে পারেন অমল মুখোপাধ্যায়।

গানে, কথায়, চোখের জলে স্মরণে সুদীপ্ত

নজরল মঞ্চে সুদীপ্ত গুপ্তের স্মরণসভা। গানে, কথায়, চোখের জলে নিহত ছাত্রনেতাকে স্মরণ করলেন সবাই। উপচে পড়া ভিড়ে অনেকেই ভিতরে জায়গা পেলেন না। বাইরে সুদীপ্তর ছবিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানালেন তাঁরা।

মানবধিকার কমিশনে সুদীপ্তর মৃত্যুর রিপোর্ট জমা দিতে ব্যর্থ পুলিস

আজ মানবাধিকার কমিশনে সুদীপ্ত গুপ্তের মৃত্যু রহস্যের তদন্ত রিপোর্ট জমা দিতে পারছে না কলকাতা পুলিস। ফরেনসিক রিপোর্ট না আসাতেই তদন্ত শেষ হয়নি বলে দাবি পুলিসের। সেক্ষেত্রে অসমাপ্ত তদন্ত রিপোর্ট জমা দিয়ে বাড়তি সময় চাইতে পারে পুলিস।

সুদীপ্তর মৃত্যু নিয়ে কাটছে না ধোঁয়াশা, শ্লথ তদন্ত

সুদীপ্ত গুপ্তর মৃত্যুর ঘটনা নিয়ে তদন্তকারীদের মধ্যেই বেশ কিছু ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে। ফলে তদন্তের কাজও খুব বেশি দূর এগোয়নি। অন্যদিকে এই ঘটনাতেই আজ রাজ্য মানবাধিকার কমিশনে গিয়ে বয়ান দিয়েছেন ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ডোনা গুপ্ত। সুদীপ্তর মৃত্যুতে মোট তিনটি মামলা দায়ের হয়েছে। বাসচালকের বিরুদ্ধে বেপরোয়া গাড়ি চালানো এবং গাফিলতির কারেণে খুনের দায়ে মামলা হয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শীর বয়ানের ভিত্তিতে অনিচ্ছাকৃত খুনের মামলা দায়ের হয়েছে। আর এসএফআই কর্মী সমর্থকদের বিরুদ্ধে সংঘর্ষ এবং খুনের চেষ্টার অভিযোগে মামলা দায়ের হয়েছে।

ল্যাম্পপোস্টে ধাক্কা? হিসেব মিলছে না পুলিসের তত্ত্বের

ল্যাম্পপোস্টে ধাক্কা লেগেই সুদীপ্ত গুপ্তর মৃত্যু হয়েছে বলে দাবি করেছেন পুলিসকর্তারা। সেই দাবির পক্ষে ময়নাতদন্তের রিপোর্টকেও হাতিয়ার করেছেন তাঁরা। কিন্তু বেশকিছু প্রশ্নের উত্তর মিলছে না। যে কারণে সুদীপ্তর মৃত্যুকে ঘিরে রহস্য রয়েই গেছে।

সুবিচারের আশায় রাজ্যপালের দ্বারস্থ নিহত ছাত্রনেতার পরিবার

সুবিচারের আশায় এবার রাজ্যপালের দ্বারস্থ হল নিহত ছাত্রনেতা সুদীপ্ত গুপ্তের পরিবার। আজ বিকেল পাঁচটায় রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করেন সুদীপ্তর বাবা প্রণব গুপ্ত, দিদি সুমিতা সেনগুপ্ত এবং তাঁর স্বামী। সঙ্গে ছিলেন বিরোধী দলনেতা সূর্যকান্ত মিশ্র।