মুম্বই হামলার চক্রীদের বিরুদ্ধে  ব্যবস্থা নিক পাকিস্তান, ইসলামাবাদকে কড়া বার্তা ওয়াশিংটনের মুম্বই হামলার চক্রীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিক পাকিস্তান, ইসলামাবাদকে কড়া বার্তা ওয়াশিংটনের

মুম্বই হামলার চক্রীদের বিরুদ্ধে পাকিস্তানকে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে বলল আমেরিকা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আমেরিকা সফরের ঠিক আগে মার্কিন বিদেশসচিব জন কেরির সঙ্গে বৈঠকে বসেন বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ।  যুদ্ধ কৌশল ও বাণিজ্য সংক্রান্ত এই বৈঠকের পর যৌথ বিবৃতি প্রকাশ করা হয়। তাতে বলা হয়েছে, ছাব্বিশ এগারোর সঙ্গে জড়িত যে জঙ্গিরা পাকিস্তানে রয়েছে, কিন্তু এখনও ধরা পড়েনি, তাদের সকলকে খুঁজে বের করে বিচারের কাঠগড়ায় তুলতে হবে। ভারত-মার্কিন যৌথ বিবৃতিতে গুরুদাসপুর ও উধমপুরে জঙ্গি হামলারও নিন্দা করা হয়েছে। দুটি হামলারই ছক কষা হয় পাকিস্তানের মাটিতে। উপমহাদেশে সন্ত্রাস দমনে দিল্লিকে আরও বেশি সামরিক সহায়তা দিতে রাজি হয়েছে ওয়াশিংটন। ঠিক হয়েছে, এই বিষয়ে ভারতের সঙ্গে আলোচনা করেই এগোবে আমেরিকা। এ নিয়ে দু-দেশের মধ্যে নিয়মিত বৈঠকও হবে। হাফিজ সইদ, জাকিউর রহমান লকভি, দাউদ ইব্রাহিম, টাইগার মেমনের মতো মোস্ট ওয়ান্টেড সন্ত্রাসবাদীদের সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য ফের ওয়াশিংটনকে দিয়েছে দিল্লি। 

এনএসএ বৈঠক নিয়ে সীমান্তের দুই পারে চাপানউতোর তুঙ্গে, ভেস্তেই যাবে কি বৈঠক? চলছে জল্পনা এনএসএ বৈঠক নিয়ে সীমান্তের দুই পারে চাপানউতোর তুঙ্গে, ভেস্তেই যাবে কি বৈঠক? চলছে জল্পনা

ভারত-পাক জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা পর্যায়ের বৈঠক কার্যত ভেস্তে যাওয়ার মুখে। সিমলা চুক্তি এবং উফা সমঝোতা মেনে বৈঠকে রাজি কিনা তা জানাতে পাকিস্তানকে আজ রাত বারোটা পর্যন্ত সময় দিয়েছেন সুষমা স্বরাজ। সূত্রের খবর, পাকিস্তান তা মানতে রাজি নয়। ফলে, বৈঠক বাতিল হওয়ার আনুষ্ঠানিক ঘোষণাই এখন শুধুমাত্র বাকি বলে মনে করা হচ্ছে। রবিবার দিল্লিতে জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভালের সঙ্গে পাক জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা সরতাজ আজিজ বৈঠকে বসবেন বলে ঠিক হয়। কিন্তু, শনিবারও দিনভর বৈঠকের আলোচ্যসূচি নিয়ে চলল দু-দেশের চাপানউতোর। সীমান্তের এপারে-ওপারে সাংবাদিক বৈঠকে চলল ব্যাপক গোলাগুলি।