কলকাতা পুর নির্বাচনে প্রার্থী তালিকায়  হার তৃণমূলের, বাম ৭১, তৃণমূল ৬৬ কলকাতা পুর নির্বাচনে প্রার্থী তালিকায় হার তৃণমূলের, বাম ৭১, তৃণমূল ৬৬

৮ মার্চ কলকাতা পুরনির্বাচনের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করেছিল তৃণমূল কংগ্রেস। ঠিক তার এক সপ্তাহ পর প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করল বামেরা। সেখানেই তৃণমূলকে পরাস্ত করল বামেরা। ১৪৪ টি আসনের ১২৫ টি আসনের প্রার্থীর নাম ঘোষণা করল বামেরা। যার মধ্যে ৭১ টি আসনে বামেদের প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে মহিলারা। এখানেই জয়ী বামেরা।  তৃণমূলের প্রার্থী তালিকায় মহিলা প্রার্থীর সংখ্যা ৬৬। যা কলকাতা পুরসভার নিরিখে ৪২%।  বামেদের  ঘোষিত প্রার্থী তালিকার প্রায় ৭০ % আসনে বামেরা প্রাধান্য দিল মহিলাদের। ২১ জন রয়েছেন সংখ্যালঘু।

রবিবার সিপিআইএমের ব্রিগেড সমাবেশে আসবেন ১০ লক্ষ মানুষ, দাবি বিমান বসুর রবিবার সিপিআইএমের ব্রিগেড সমাবেশে আসবেন ১০ লক্ষ মানুষ, দাবি বিমান বসুর

রবিবার ব্রিগেড ময়দানে সমাবেশ করবে সিপিআইএম। দলের সম্পাদক বিমান বসু আজ দাবি করেছেন, ১০ লক্ষ মানুষের সমাবেশ হবে ওই দিন।  দলীয় সম্মেলন উপলক্ষ্যেই সমাবেশ। তবে সিপিআইএম নেতারা চাইছেন, সমাবেশকে সামনে রেখে পুরভোটের আগে সংগঠনকে চাঙ্গা করতে। একের পর এক ভোটে কোনঠাসা হচ্ছে সিপিআইএম। তারই মধ্যে সামনে বড় পরীক্ষা  কলকাতাসহ চুরানব্বইটি  পুরসভার নির্বাচন। বলা যায় মিনি বিধানসভা ভোট। চাঙ্গা সংগঠন ছাড়া এতগুলি নির্বাচন মোকাবিলা করা কঠিন।  সিপিআইএম নেতারা চাইছেন,  রাজ্য সম্মেলন উপলক্ষ্যে ব্রিগেড সমাবেশকে ব্যাপক চেহারা দিতে। তারা মনে করছেন, সফল ব্রিগেড সমাবেশ পুরভোটে কর্মীদের ময়দানে নামাতে উজ্জীবিত  করবে।  

রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে বামেদের অনাস্থা প্রস্তাব গ্রহণ করলেন স্পিকার রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে বামেদের অনাস্থা প্রস্তাব গ্রহণ করলেন স্পিকার

রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে বামেদের আনা অনাস্থা প্রস্তাব গ্রহণ করলেন বিধানসভার স্পিকার। কিন্তু খারিজ হল কংগ্রেস ও বিজেপির অনাস্থা। আর এরই জেরে বিধানসভায় তৃণমূলের সঙ্গে বামেদের গোপন সমঝোতার অভিযোগ তুলল  কংগ্রেস, বিজেপি।   আইনশৃঙ্খলার অবনতি এবং অপশাসনের অভিযোগ তুলে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে সরব বিরোধী দলই সরব। কংগ্রেস, বামফ্রণ্ট এবং বিজেপি সব পক্ষই  সরকারের বিরুদ্ধে বিধানসভায় অনাস্থা প্রস্তাব আনে। কিন্তু শুধুমাত্র বামেদের প্রস্তাব গৃহীত হওয়ায় বেজায় চটেছে কংগ্রেস ও বিজেপি। তাদের অভিযোগ, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃণমূলের সঙ্গে সূর্যকান্তের বিরোধী দলের সমঝোতা হয়েছে।