সাহস থাকলে, যেভাবে মুখ্যমন্ত্রী হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, তার জন্য ব্যবস্থা নিক কমিশন : সূর্যকান্ত সাহস থাকলে, যেভাবে মুখ্যমন্ত্রী হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, তার জন্য ব্যবস্থা নিক কমিশন : সূর্যকান্ত

আরও বড় কারণ ছিল, কিন্তু নিতান্ত ক্ষুদ্র কারণ দেখিয়ে  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে শোকজ করা হয়েছে। সাহস থাকলে, যেভাবে মুখ্যমন্ত্রী হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, তার জন্য ব্যবস্থা নিক কমিশন। শোকজ কাণ্ডে এভাবেই কমিশনের সমালোচনা করলেন সূর্যকান্ত মিশ্র। সিপিএম রাজ্য সম্পাদকের মন্তব্য, হতাশা থেকে মেজাজ হারাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী। গত আটই এপ্রিল জনসভা থেকে আসানসোলকে নতুন জেলা ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী।  ঘোষণায় আদর্শ আচরণবিধি ভাঙা হয়েছে, এই অভিযোগেই মমতাকে শোকজ করে কমিশন।  এই শোকজ নিয়ে এবার কমিশনের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন সিপিএম রাজ্য সম্পাদক।

তৃণমূলনেত্রীর বিরুদ্ধে সরাসরি ধোঁকাবাজির অভিযোগ আনলেন সোনিয়া কিন্তু মমতা কার্যত চুপ তৃণমূলনেত্রীর বিরুদ্ধে সরাসরি ধোঁকাবাজির অভিযোগ আনলেন সোনিয়া কিন্তু মমতা কার্যত চুপ

প্রধানমন্ত্রীর পর এবার কংগ্রেস সভানেত্রী। ভোটপ্রচারে বাংলায় এসে মমতাকে নাম করে বিঁধলেন সোনিয়া গান্ধী। তৃণমূলনেত্রীর বিরুদ্ধে সরাসরি ধোঁকাবাজির অভিযোগ এনেছেন তিনি। কিন্তু মমতা  কার্যত চুপ । কংগ্রেসকে নিশানা করলেও সোনিয়া গান্ধীর নাম নিলেন না তৃণমূলনেত্রী। ভোটপ্রচারে বুধবারই প্রথম রাজ্যে এলেন সোনিয়া। মমতার নাম করে তোপ কংগ্রেস সভানেত্রীর। চৈত্র শেষের খর রোদে মধ্যবঙ্গের মাটিতে দাঁড়িয়ে এভাবেই আগুন ঝরালেন সোনিয়া। মমতা কিন্তু কার্যত  চুপ । কংগ্রেসকে তুলোধোনা করলেও, সোনিয়াকে পাল্টা জবাব দেওয়ার রাস্তায় হাঁটলেন না।

স্টিং অপারেশনে যে মানুষটা হেলিয়ে দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গ, সেই 'নারদ'-এর নিজের বক্তব্য স্টিং অপারেশনে যে মানুষটা হেলিয়ে দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গ, সেই 'নারদ'-এর নিজের বক্তব্য

যে মানুষটার খবরে, ভিডিওতে চমকে উঠেছে রাজ্য থেকে দেশ, সেই মানুষটাকে চেনেন? নাম ম্যাথু স্যামুয়েল। তাঁর নারদ ওয়েব পোর্টালের এক্স ফাইল ভিডিও দেখে হেলে গেছে গোটা রাজ্যের রাজনীতি। তিনি আর তাঁর ওয়েব পোর্টাল দেখাচ্ছে এমন সব ভিডিও, যেখানে দেখা যাচ্ছে তৃণমূলের নেতা, সাংসদ, মন্ত্রীদের বান্ডিল-বান্ডিল টাকা নিতে! এই ভিডিও তো দেখে ফেলেছেন আপনিও। শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা। বামেরা বলছে, নির্বাচন পিছিয়ে দেওয়া হোক। মুখ্যমন্ত্রীর পদত্যাগই দাবি করে ফেলেছে বিজেপি। আক্রমণ করতে পিছিয়ে নেই কংগ্রেসও। আর শাসকদলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে চক্রান্তের কথা।