মমতার মন্ত্রিসভা, সোশ্যাল মিডিয়াতে যা এখন কৌতূহলের তুঙ্গে

মমতার মন্ত্রিসভা, সোশ্যাল মিডিয়াতে যা এখন কৌতূহলের তুঙ্গে

১৯ তারিখের জনাদেশে রাজ্যের সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষের রায় ছিল তৃণমূলের পক্ষে, ফের মসনদে 'দিদি'ই। দ্বিতীয়বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নেবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রেড রোডে অনুষ্ঠিত হবে শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান। নন্দীগ্রামের নব বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী যে মমতার মন্ত্রিসভার হেভিওয়েটদের মধ্যে একজন হতে চলেছেন, সে আভাষ ছিল অনেক আগে থেকেই। ভোট প্রচারে গিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেই বলেছিলেন, "শুভেন্দু আমাদের মন্ত্রিসভায় আসুক"। তাই এ নিয়ে সংশয়ের কোনও অবকাশই নেই। তবে এও ঠিক নারদকাণ্ডের পর মুখ্যমন্ত্রী দলের অনেক নেতা মন্ত্রীদের ওপরই 'ক্ষুব্ধ' ছিলেন। প্রকাশ্যেই তিনি জানিয়েছিলেন, "আগে জানলে টিকিট দিতেন না"। এমন অবস্থায় নারদায় অভিযুক্ত অনেকেই ফের জয়ী। তবে কি তাঁরা মন্ত্রিত্ব হারাতে চলেছেন? না আসছে রদবদল? নতুন মুখ কারা? কোনও সরকারী ঘোষণা না থাকলেও মমতার মন্ত্রিসভা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে এখন বেশ রকম হৈ চৈ। একনজরে দেখে নিন কারা হবেন নতুন সরকারের মন্ত্রী- (সোশ্যাল মিডিয়া থেকেই এই তথ্য সংগৃহীত)

মাদার টেরিজাকে সেন্টহুডে ভূষিত করার অনুষ্ঠানে রোমে আমন্ত্রিত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মাদার টেরিজাকে সেন্টহুডে ভূষিত করার অনুষ্ঠানে রোমে আমন্ত্রিত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

শুভেচ্ছার শেষ নেই। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে অভিনন্দন জানাতে প্রতিদিনই কালীঘাটে উপচে পড়ছে ভিড়। এরই মধ্যে এল রোম যাওয়ার আমন্ত্রণ। মাদার টেরিজাকে সেন্টহুডে ভূষিত করার অনুষ্ঠানে রোম যাওয়ার আমন্ত্রণ নিয়ে এলেন সিস্টার প্রেমা। আমন্ত্রণ গ্রহণ করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সাতাশে মে রেড রোডের মুক্তাঙ্গনে দ্বিতীয়বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ নেবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার আগে ব্যস্ততার শেষ নেই মমতার। প্রতিদিনই শুভেচ্ছা জানাতে আসছেন কেউ না কেউ। এরই মধ্যে এল রোম যাওয়ার আমন্ত্রণ।

তৃণমূলের জয়ের সবথেকে বড় তিনটি কারণ তৃণমূলের জয়ের সবথেকে বড় তিনটি কারণ

এই প্রথমবার এ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের আগাম ফল নিয়ে কোনও নিশ্চয়তা ছিল না মানুষের মধ্যে। গতকাল পর্যন্ত যাকেই ভোটের ফল নিয়ে জিজ্ঞেস করা হয়েছে, সেই বলেছে, ঠিক বোঝা যাচ্ছে না। লড়াইটা এবার হাড্ডাহাড্ডি হবে বলে মনে হচ্ছে। আসলে প্রথম দুই দফা ভোটের পর থেকে নির্বাচন কমিশন এতটাই কড়াকড়ি করে যে, হাওয়ায় রটে যায়, মানুষের ভোট মানুষ দিয়েছে। আর মানুষের ভোটের বেশিরভাগটাই যাবে বিরোধী জোটের পক্ষে।

ব্যর্থতায় অজুহাত না দিয়ে বামেদের দিকে আঙুল তুললেন অধীর! ব্যর্থতায় অজুহাত না দিয়ে বামেদের দিকে আঙুল তুললেন অধীর!

দুপুর ১ টা বাজতেই ভোটের ফল বুঝতে পেরে সাংবাদিক সম্মেলন করে ফেললেন কংগ্রেসের প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরি। ২০১৬-র বিধানসভা নির্বাচনের ফল প্রকাশের দিন প্রথম সাংবাদিক সম্মেলনে অধীর চৌধুরি যা বললেন -

মুখ্যমন্ত্রীর বক্তৃতার সিডি চেয়ে পাঠাল নির্বাচন কমিশন মুখ্যমন্ত্রীর বক্তৃতার সিডি চেয়ে পাঠাল নির্বাচন কমিশন

মুখ্যমন্ত্রীর বক্তৃতার সিডি চেয়ে পাঠাল নির্বাচন কমিশন। রবিবার পূর্ব মেদিনীপুরের সভায় মুখ্যমন্ত্রী পুলিসকে হুমকি দিয়েছে বলে অভিযোগ তোলে বিরোধীরা। বিধিভঙ্গের অভিযোগ এনে আজ কমিশনের দ্বারস্থ হয় বিজেপি ও বামেরা। তার পরেই সিডি চেয়ে পাঠায় CEO দফতর। কমিশন সূত্রে খবর সিডি পাঠনো হবে দিল্লিতে। পঞ্চম আর ষষ্ঠ দফার ভোটে এরকমই ভূমিকা পালন করেছে বাহিনী। খানাকুলে  ভোটারদের ব্যারিরেড করে বুথে পৌছে দেন তাঁরা।

কোচবিহারের সভা থেকে ফের বাহিনীকে তোপ মমতা বন্দ্যোপাধ্যয়ের কোচবিহারের সভা থেকে ফের বাহিনীকে তোপ মমতা বন্দ্যোপাধ্যয়ের

কোচবিহারের সভা থেকে ফের বাহিনীকে তোপ মমতা বন্দ্যোপাধ্যয়ের। অভিযোগ করলেন, সিপিএম -বিজেপির কথা শুনে চলছে বাহিনী। তবে তৃণমূলের ক্ষমতায় ফেরা নিয়ে আত্মবিশ্বাসী তৃণমূল নেত্রী। বছর ছয়েক  আগেও  জঙ্গল মহল তখন অশান্ত। মাওবাদীদের বাড়াবাড়ি। সেসময় জঙ্গল মহলে গিয়ে কেন্দ্রীয় বাহিনী প্রত্যাহারের দাবিতে সরব হন তত্কালীন বিরোধী নেত্রী। এত বছর পর সেই বাহিনীর বিরুদ্ধে ফের সরব  মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অভিযোগ সিপিএম বিজেপির কথা শুনে চলছে বাহিনী।

'চোর বললে গায়ে লাগে', অ্যাটাকিং মেজাজে মমতা 'চোর বললে গায়ে লাগে', অ্যাটাকিং মেজাজে মমতা

ষষ্ঠদফা ভোটের আগেঅ্যাটাকিং মেজাজে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।  সরাসরি অভিযোগ তুললেন সিপিএম, কংগ্রেস , বিজেপি আঁতাঁতের। বেহালার সভায় বললেন,অন্যায় করলে  চড় খেতে রাজি তিনি। তবে চোর অপবাদ সহ্য করবেন না।

'২০টি আসন পেয়ে দেখাক', জোটকে চ্যালেঞ্জ মমতার '২০টি আসন পেয়ে দেখাক', জোটকে চ্যালেঞ্জ মমতার

"ওরা বলছে ২০০-এর কাছাকাছি আসন পাবে, ২০টি পেয়ে দেখাক", রায়দিঘিতে ভোট প্রচারে গিয়ে সরাসরি সিপিএম-কংগ্রেস জোটকে চ্যালেঞ্জ জানালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিরোধীদেরকে কটাক্ষ করে তিনি বলেন," তৃণমূলকে নিয়ে টানাটানি করবেন না। ভোটের পর বলবেন না, বাঁচাও বাঁচাও।

মমতা বললেন ফের সরকার গড়ছেন, সূর্য বললেন দুশো আসন জেতার পথে তাঁরা মমতা বললেন ফের সরকার গড়ছেন, সূর্য বললেন দুশো আসন জেতার পথে তাঁরা

ওয়েব ডেস্ক সরকার গড়ার জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যা আজই পেয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। ভবানীপুরের জনসভায় দাবি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। পঞ্চম দফা হিসাবে ধরলে রাজ্যে এপর্যন্ত ভোট শেষ হয়েছে দুশো ষোল আসনে।

 মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নোটিস বিতর্কে নজিরবিহীন বার্তা নির্বাচন কমিশনের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নোটিস বিতর্কে নজিরবিহীন বার্তা নির্বাচন কমিশনের

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নোটিস বিতর্কে নজিরবিহীন বার্তা নির্বাচন কমিশনের। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে পাঠানো শো কজ নোটিসের জবাব কেন দিয়েছেন মুখ্যসচিব? তার কারণ জানতে চেয়ে মুখ্যসচিব বাসুদেব বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি দিলেন নির্বাচন কমিশনের সচিব আর কে  শ্রীবাস্তব। আগামী একুশে এপ্রিলের মধ্যে মুখ্যসচিবকে কারণ দর্শিয়ে জবাব দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

সাহস থাকলে, যেভাবে মুখ্যমন্ত্রী হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, তার জন্য ব্যবস্থা নিক কমিশন : সূর্যকান্ত সাহস থাকলে, যেভাবে মুখ্যমন্ত্রী হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, তার জন্য ব্যবস্থা নিক কমিশন : সূর্যকান্ত

আরও বড় কারণ ছিল, কিন্তু নিতান্ত ক্ষুদ্র কারণ দেখিয়ে  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে শোকজ করা হয়েছে। সাহস থাকলে, যেভাবে মুখ্যমন্ত্রী হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, তার জন্য ব্যবস্থা নিক কমিশন। শোকজ কাণ্ডে এভাবেই কমিশনের সমালোচনা করলেন সূর্যকান্ত মিশ্র। সিপিএম রাজ্য সম্পাদকের মন্তব্য, হতাশা থেকে মেজাজ হারাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী। গত আটই এপ্রিল জনসভা থেকে আসানসোলকে নতুন জেলা ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী।  ঘোষণায় আদর্শ আচরণবিধি ভাঙা হয়েছে, এই অভিযোগেই মমতাকে শোকজ করে কমিশন।  এই শোকজ নিয়ে এবার কমিশনের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন সিপিএম রাজ্য সম্পাদক।

তৃণমূলনেত্রীর বিরুদ্ধে সরাসরি ধোঁকাবাজির অভিযোগ আনলেন সোনিয়া কিন্তু মমতা কার্যত চুপ তৃণমূলনেত্রীর বিরুদ্ধে সরাসরি ধোঁকাবাজির অভিযোগ আনলেন সোনিয়া কিন্তু মমতা কার্যত চুপ

প্রধানমন্ত্রীর পর এবার কংগ্রেস সভানেত্রী। ভোটপ্রচারে বাংলায় এসে মমতাকে নাম করে বিঁধলেন সোনিয়া গান্ধী। তৃণমূলনেত্রীর বিরুদ্ধে সরাসরি ধোঁকাবাজির অভিযোগ এনেছেন তিনি। কিন্তু মমতা  কার্যত চুপ । কংগ্রেসকে নিশানা করলেও সোনিয়া গান্ধীর নাম নিলেন না তৃণমূলনেত্রী। ভোটপ্রচারে বুধবারই প্রথম রাজ্যে এলেন সোনিয়া। মমতার নাম করে তোপ কংগ্রেস সভানেত্রীর। চৈত্র শেষের খর রোদে মধ্যবঙ্গের মাটিতে দাঁড়িয়ে এভাবেই আগুন ঝরালেন সোনিয়া। মমতা কিন্তু কার্যত  চুপ । কংগ্রেসকে তুলোধোনা করলেও, সোনিয়াকে পাল্টা জবাব দেওয়ার রাস্তায় হাঁটলেন না।

মুর্শিদাবাদে দাঁড়িয়ে এবার তৃণমূলকে ভোটে জেতানোর আব্দার করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মুর্শিদাবাদে দাঁড়িয়ে এবার তৃণমূলকে ভোটে জেতানোর আব্দার করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

মুর্শিদাবাদে দাঁড়িয়ে এবার তৃণমূলকে ভোটে জেতানোর আব্দার করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেইসঙ্গে ভোটের পর বিরোধীদের আরও এবার ইঞ্চিতে ইঞ্চিতে দেখে নেওয়ার হুঁশিয়ারিও দিলেন। ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন দিন কয়েক আগেই। শুক্রবার নায়ারণগড়ে সূর্যবাবুকে হারানোর আকুল আবেদন করেছিলেন। শনিবার মুর্শিদাবাদে গিয়ে  তৃণমূলকে জেতানোর আব্দার মমতার।

মমতা ও মোদীর ভাষণের সিডি চেয়ে পাঠাল দিল্লিতে মুখ্য নির্বাচন কমিশনারের দফতর মমতা ও মোদীর ভাষণের সিডি চেয়ে পাঠাল দিল্লিতে মুখ্য নির্বাচন কমিশনারের দফতর

রাজ্যে প্রচারে এসে আসানসোলের সভায় প্রধানমন্ত্রী  কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন মুখ্যমন্ত্রীকে। পরদিনের প্রচারে প্রধানমন্ত্রীকে পাল্টা আক্রমণ করেন মুখ্যমন্ত্রী। ওই দুই সভায় দুজনের ভাষণের সিডি চেয়ে পাঠাল দি

 মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে একনায়ক বলার জন্য রাহুল গান্ধীকে কড়া ভাষায় আক্রমণ পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে একনায়ক বলার জন্য রাহুল গান্ধীকে কড়া ভাষায় আক্রমণ পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের

রাহুল গান্ধীর আক্রমণের পর তার পাল্টা জবাব দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। শুধু এতেই শেষ হয়নি তরজা। বরং, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে একনায়ক বলার জন্য রাহুল গান্ধীকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করলেন তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ও। তাঁর মন্তব্য, যেখানে একটি পরিবার কংগ্রেসকে চালায়, সেখানে রাহুল গান্ধীর মুখে এমন কথা মানায় না।