সমর্থনের প্রতিশ্রুতি বহেনজির, রাজ্যসভাতেও স্বস্তিতে এফডিআই

গতকাল ওয়াকআউট করে লোকসভায় সরকারের প্রতি আনুগত্য প্রকাশ করেছিলেন। আজ রাজ্যসভায় দাঁড়িয়ে খুচরো বিতর্কের ভোটাভুটিতে সরকারকে সরাসরি সমর্থনের করলেন বিএসপি সুপ্রিমো মায়াবতী। অন্যদিকে, রাজ্যসভাতেও ভোটদানে বিরত থাকবে সপা। আজ দলের পক্ষ থেকে একথা জানিয়েছেন সাংসদ নরেশ আগরওয়াল। আজ রাজ্যসভায় মায়াবতী বলেন খুচরো ব্যবসায় বিদেশী বিনিয়োগ সমর্থন না করলেও এই মুহূর্তে সরকারের পাশেই থাকবে বিএসপি। সপার ৯ সাংসদ সহ অনুপস্থিত থাকবেন ইডেনে খেলতে আসা মনোনীত সাংসদ সচিন তেন্ডুলকরও। ফলে ম্যাজিক ফিগার ১২৩ থেকে কমে দাঁড়াবে ১১৭। বসপার ১৫ সাংসদের সমর্থন পেলে ইউপিএ-র পক্ষে মোট ভোট দাঁড়াবে ১১৯।

এফডিআই ইস্যুতে আজ রাজ্যসভায় ভাগ্য পরীক্ষা কেন্দ্রের

গতকাল লোকসভায় শীতকালীন অধিবেশনের সবচাইতে বড় পরীক্ষাটা উতরে গেছে কেন্দ্রের ইউপিএ-২ সরকার। বিরোধীদের প্রস্তাব খারিজ করে এফডিআই ইস্যুতে জয় পেয়েছে কেন্দ্র। সৌজন্যে অবশ্যই 'সপা' আর 'বসপা'-র 'বন্ধুত্ব পূর্ণ' ওয়াকআউট। আজ রাজ্যসভায় খুচরো ব্যবসায় বিদেশি বিনিয়োগ ইস্যুতে আবার যুদ্ধে নামল সরকার। ইতিমধ্যে থেকে রাজ্যসভার উচ্চকক্ষে এফডিআই নিয়ে আলোচনা শুরু হয়ে গেছে। ভোটাভুটি হবে শুক্রবার। সরকারের চিন্তা বাড়িয়ে দিল সমাজবাদী পার্টি। বাজ্যসভায় সপা সরকারকে ভোট দেবে না বলে জানিয়ে দিলেন সপা নেতা নরেশ অগ্রবাল। অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রী সংবাদমাধ্যমের কাছে দাবি করেছেন লোকসভার মত রাজ্যসভাতেও জয় পাবে সরকারই। 

তাজ করিডর মামলা থেকে আপাত মুক্তি মায়াবতীর

তাজ করিডোর মামলায় আপাতত স্বস্তিতে বিএসপি নেত্রী মায়াবতী। তাঁর বিরুদ্ধে এই সংক্রান্ত সবকটি জনস্বার্থ মামলা

খারিজ করে দিল এলাহাবাদ হাইকোর্টের লখনউ বেঞ্চ। ২০০২ সালে তাজমহল সংলগ্ন এলাকার রাস্তা সৌন্দর্যায়নের

একটি প্রজেক্ট মায়াবতী সরকারের তরফ থেকে নেওয়া হয়। এই প্রজেক্টেই নিয়ে ১৭ কোটি টাকা দুর্নীতির অভিযোগ

ওঠে উত্তরপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে। এই নিয়ে মায়াবতী ও তাঁর ঘনিষ্ঠ সাংসদ নাসিমুদ্দীন সিদ্দিকির বিরুদ্ধে

৬ টি জনস্বার্থ মামলা দায়ের করা হয়। সোমবার এলাহাবাদ হাইকোর্ট এই সবকটি মামলাই খারিজ করে দিয়েছে।