তৃণমূলের একুশের সমাবেশ: ভোগান্তির শহরে অবরুদ্ধ মাটির উপর-নীচ তৃণমূলের একুশের সমাবেশ: ভোগান্তির শহরে অবরুদ্ধ মাটির উপর-নীচ

তৃণমূলের একুশের সমাবেশ ঘিরে আজ পথেঘাটে ভিড়। ধর্মতলাগামী একের পর এক মিছিলে রাস্তায় চলা দায়। বাস-ট্যাক্সি পেলেও তা ঘণ্টার পর ঘণ্টা একই জায়গায় দাঁড়িয়ে। নড়ছে না একচুল। এই অবস্থায় শহরের লাইফ লাইন হয়ে উঠতে পারত মেট্রো। কিন্তু আজও, দরকারের সময় পরিষেবা পেলেন না যাত্রীরা।  সপ্তাহের দ্বিতীয় কাজের দিন। অথচ সকাল সকাল পথে বেরিয়ে গন্তব্যে পৌছনর চেষ্টা ব্যর্থ। একুশে জুলাই তৃণমূলের সভার জন্য রাস্তায় সাধারণ যানবাহন প্রায় নেই বললেই চলে। ট্যাক্সি গায়েব। হাতে গোনা বাস। তাতে পা রাখতেও রীতিমতো যুদ্ধ করতে হচ্ছে। যে সমস্ত রুটে অটো চলে, সেই সমস্ত রাস্তায় অটোও উধাও। রিকশাও পাওয়া যাচ্ছে না বলে অনেক জায়গা থেকেই খবর আসছে। চূড়ান্ত নাকাল হচ্ছেন নিত্যযাত্রীরা। বিভিন্ন দিক থেকে ধর্মতলার দিকে আসছে মিছিল। প্রচণ্ড গরমে রোগী নিয়ে মিছিলে আটকে পড়েছে অ্যাম্বুলেন্সও।

রেল বাজেটের পর প্রশ্নের মুখে রাজ্যের ৭ মেট্রো প্রকল্প

শহর ও শহরতলীর বকেয়া মেট্রো মেট্রোরেল প্রকল্পগুলি কি রেলের হাত থেকে সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে? জনপ্রিয়তা বজায় রাখতে এবং রেলের বোঝা কমাতে সম্ভবত বৃহস্পতিবারের সাধারণ বাজেটেই তার ইঙ্গিত দিতে চলেছে মোদি সরকার। ইস্ট-ওয়েস্ট এর ধাঁচে সবকটি প্রকল্পই দেওয়া হতে পারে রাজ্য সরকারের পুর-নগরোন্নয়ন দফতরকে। ফলে প্রকল্পগুলির ভবিষ্যত নিয়ে সম্পূর্ণ অন্ধকারে মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষ। মোদি সরকারের প্রথম রেল বাজেটে বরাদ্দ হয়নি একটাকাও। লোকসভা ভোটের আগের অন্তবর্তী বাজেটের বরাদ্দ টাকায় খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে চলছে কাজ। কলকাতা ও শহরতলীর বুকে চলা ৭টি মেট্রো প্রকল্পের ভবিষ্যত নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।

কাল থেকে বাড়ছে মেট্রোর ভাড়া, এবার থেকে ২৫ থেকে ৩০ কিলোমিটার যেতে দিতে হবে ৩০টাকা

দমদম থেকে শ্যামবাজার যেতে আজ চার টাকার টিকিটি কেটেছেন। কাল কিন্তু দিতে হবে পাঁচ টাকা। কেননা, কাল থেকেই মেট্রো রেলের নতুন ভাড়া চালু হচ্ছে। পাঁচ কিলোমিটার পর্যন্ত এক টাকা বেশি ভাড়ায় ছাড় মিলবে। কিন্তু কবি সুভাষ থেকে নোয়াপাড়া পর্যন্ত যেতে ১৪ টাকার পরিবর্তে গুনতে হবে ২৫ টাকা। পুজোর ঠিক আগেই মেট্রোর ভাড়া বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিল রেলমন্ত্রক। ভাড়াবৃদ্ধির প্রয়োজনীয়তা মেনে নিলেও ভাড়া পুনর্বিন্যাসের জন্য উদ্যোগী হন খোদ রেল প্রতিমন্ত্রী অধীর চৌধুরী। এরপরেই মেট্রোর বর্ধিত ভাড়া পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত হয়।