নারদের স্টিং অপারেশন নিয়ে কে কী বললেন

নারদের স্টিং অপারেশন নিয়ে কে কী বললেন

নারদ নিউজের স্টিং অপারেশনকে হাতিয়ার করে সরব বিরোধীরা। আজ সাংবাদিক সম্মেলন করে ২৫ মিনিটের ফুটেজ দেখান বিজেপি নেতা সিদ্ধার্থনাথ সিং। তাঁর দাবি, ফুটেজ থেকেই স্পষ্ট দুর্নীতিতে ডুবে আছে তৃণমূল সরকার। ফুটেজ নিয়ে সরব বামেরা শিবিরও। কমিশনের কাছে প্রয়োজনে ভোট স্থগিত রাখার আর্জি জানাচ্ছে বামেরা। তৃণমূল শিবিরের পাল্টা যুক্তি, রাজনৈতিকভাবে মোকাবিলা করতে না পেরে ষড়যন্ত্র করছে বিরোধী শিবির। গোটা ভিডিওটাই আদতে ভুয়ো। নারদ নিউজের এডিটর ম্যাথিউ স্যামুয়েলের পাল্টা দাবি, তাদের হাতে ৫২ ঘণ্টার ফুটেজ রয়েছে। যদিও, ফুটেজ খতিয়ে দেখেনি ২৪ ঘণ্টা।

রাজ্যে বিধানসভা ভোটের দিন ঘোষণার দিনেই, ফুরফুরা শরিফে হাজির তৃণমূল নেতারা রাজ্যে বিধানসভা ভোটের দিন ঘোষণার দিনেই, ফুরফুরা শরিফে হাজির তৃণমূল নেতারা

রাজ্যে বিধানসভা ভোটের দিন ঘোষণার দিনেই, ফুরফুরা শরিফে হাজির তৃণমূল নেতারা। গতকাল রাতেই ফুরফুরা শরিফে পৌছে যান তৃণমূলের দুই শীর্ষ নেতা মুকুল রায় এবং ফিরহাদ হাকিম। ত্বহা সিদ্দিকির সঙ্গে দেখা করেন তাঁরা। প্রায় দু-ঘণ্টা কথা হয় দুপক্ষের। তৃণমূল নেতাদের দাবি, এটি নিছক সৌজন্য সাক্ষাত্‍। রাজনীতি-বিষয়ে কোনও কথা হয়নি বলে জানান মুকুল রায়। রাজ্যে বাম-কংগ্রেস জোট প্রসঙ্গে কটাক্ষের সুর শোনা যায় তাঁর গলায়। বলেন, জোট সম্পূর্ণ অনৈতিক। দুই নেতারই বক্তব্য ছিল, সংখ্যালঘু উন্নয়নের অনেক কাজ এখনও বাকি। তৃণমূলের সরকারই তা করবে।

প্রায় ১ বছর বাদে তৃণমূলের মিছিলে হাঁটলেন মুকুল রায় প্রায় ১ বছর বাদে তৃণমূলের মিছিলে হাঁটলেন মুকুল রায়

আজ ফের তৃণমূলের মিছিলে দেখা গেল মুকুল রায়কে। সকাল নটা নাগাদ কাঁচড়াপাড়ায় শুভ্রাংশু রায়ের সমর্থনে মিছিল বের করবে তৃণমূল। সেই মিছিলে হাঁটবেন মুকুল রায়ও। প্রায় এক বছর পর ফের তৃণমূলের মিছিল দেখা যাবে মুকুল রায়কে। এবং ছেলের হয়ে প্রচারে নামার মধ্যে দিয়েই শুরু হচ্ছে এই নতুন পর্বের।  ইতিমধ্যে নানা ঘটনাবালীর মধ্যে দিয়ে তৃণমূলের সঙ্গে দূরত্ব কমেছে তাঁর। কলকাতায় গুলাম আলির অনুষ্ঠানে মমতা ব্যানার্জির গাড়িতেই আসেন মুকুল।  দূরত্ব কমার পর্বে  দলের কাজে প্রথম তাঁকে দেখা গেছে নাজমা হেপতুল্লার কাছে দলের সাংসদদের ডেপুটেশনেক সময়। সাংসদ হিসাবেই এই ডেপুটেশনে হাজির ছিলেন মুকুল। কাল  সম্পূর্ণ হল বৃত্ত। তৃণমূল ভবনে দলনেত্রীর সঙ্গে বৈঠকও করেন তিনি। এবার ছেলের হয়েই প্রচারে নেমে দলের মিছিলে যোগ দেবেন তিনি।

এবার তৃণমূলের মিছিলে দেখা যাবে মুকুল রায়কে এবার তৃণমূলের মিছিলে দেখা যাবে মুকুল রায়কে

এবার তৃণমূলের মিছিলে দেখা যাবে মুকুল রায়কে। এমাসের তিরিশ তারিখ কাঁচড়াপাড়ায় শুভ্রাংশু রায়ের সমর্থনে মিছিল করবে তৃণমূল। সেই মিছিলে হাঁটবেন মুকুল রায়। প্রায় এক বছর পর ফের তৃণমূলের মিছিল দেখা যাবে মুকুল রায়কে। এবং ছেলের হয়ে প্রচারে নামার মধ্যে দিয়েই শুরু হচ্ছে নতুন পর্ব।  ইতিমধ্যে নানা ঘটনাবালীর মধ্যে দিয়ে তৃণমূলের সঙ্গে দূরত্ব কমেছে তাঁর। কলকাতায় গুলাম আলির অনুষ্ঠানে মমতা ব্যানার্জির গাড়িতেই আসেন মুকুল।  দূরত্ব কমার পর্বে  দলের কাজে প্রথম তাঁকে দেখা গেছে নাজমা হেপতুল্লার কাছে দলের সাংসদদের ডেপুটেশনেক সময়। সাংসদ হিসাবেই এই ডেপুটেশনে হাজির ছিলেন মুকুল। এবার ছেলের হয়েই প্রচারে নেমে দলের মিছিলে যোগ দেবেন তিনি।

ফের মমতার গাড়িতে সওয়ার মুকুল ফের মমতার গাড়িতে সওয়ার মুকুল

ফের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের গাড়িতে মুকুল রায়। নেতাজি ইন্ডোরে গুলাম আলির অনুষ্ঠান। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের গাড়িতে চেপেই নেতাজি ইন্ডোরে গেলেন মুকুল । ঘটনাচক্রে যেদিন সিজিও কমপ্লেক্সের সামনে দিনভর সারদা ইস্যুতে তৃণমূলের বিরুদ্ধে তোপ দাগছেন বামেরা, ঠিক সেদিনই  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের গাড়িতে  মুকুল রায়। নতুন বছরের প্রথম দিনে তৃণমূলের প্রতিষ্ঠা দিবসে, প্রায় ন মাস পর, কালীঘাটে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়িতে গিয়েছিলেন মুকুল। সেদিন দুজনের মধ্যে কথা হয় প্রায়  ঘণ্টাখানেক। আর আজ  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের গাড়িতে চেপেই নেতাজি ইন্ডোরে গেলেন মুকুল। তাহলে বিচ্ছেদ পর্ব ঘুচে গিয়ে সম্পূর্ণ হল কি বৃত্ত?

 শক্তিশালী মন্ত্রিসভা তৈরিই এখন তৃণমূলের মেন টার্গেট শক্তিশালী মন্ত্রিসভা তৈরিই এখন তৃণমূলের মেন টার্গেট

বিরোধী শিবিরে জোট হবে কি না তা নিয়ে যখন জল্পনা তুঙ্গে, ঠিক তখনই মন্ত্রিসভা কী হবে ভাবতে ব্যস্ত তৃণমূল। দলের জন্মদিনে এমনই মন্তব্য সুব্রত বক্সির। জোট জল্পনাকে কার্যত আমল না দিয়ে তাঁর দাবি, শক্তিশালী মন্ত্রিসভা তৈরিই এখন তাঁদের মেন টার্গেট। কংগ্রেস-সিপিএমের জোট হবে? এখনও জল্পনা। হাত মেলাচ্ছে বাম-কংগ্রেস? তবে এই জোট জল্পনাকে  শাসকদল আদৌ পাত্তা দিতে নারাজ। নন্দীগ্রামের সভার মঞ্চে দাঁড়িয়েই শুভেন্দু অধিকারিকে  পরবর্তী মন্ত্রিসভার সদস্য হিসাবে ঘোষণা করে দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দলের প্রতিষ্ঠাদিবসে দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদকও হাঁটলেন সেই পথে। জোট জল্পনাকে আমল দিতে নারাজ মুকুল রায়ও।