সারদা কাঁটা

সারদা কাণ্ডের গোটা দেশ তোলপাড়। শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা, মন্ত্রী, সাংসদরা প্রত্যক্ষভাবে জড়িয়ে পড়ার মিলল সারদা কেলেঙ্কারিতে। এদিকে রাজ্যের মানুষ সর্বসান্ত হয়ে পড়লেন। মমতা ব্যানার্জির সবচেয়ে বড় `ইউএসপি` সততার ইস্যু বড় ধাক্কা খেল। এই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই এসে পড়ল পঞ্চায়েত ভোট। সারদা কাণ্ডের প্রভাব এবারের পঞ্চায়েত ভোটে পড়বে কী? এই প্রশ্নে আপনার মতামত জানান

অবাধ সম্ভব!

এবারের পঞ্চায়েত ভোটে ৬০০০-র বেশী আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস নতুন রেকর্ড গড়েছে। জেলায় জেলায় বিরোধী দলের প্রার্থীদের প্রচারে বাধা, মারধরের ঘটনাও প্রতিদিন ঘটে চলেছে। এমন অবস্থায় কী সত্যিই অবাধ ভোট সম্ভব। প্রার্থীরা যদি প্রচারের সুযোগ না পান তাহলে কি করে অবাধ ভোট সম্ভব, উঠছে প্রশ্ন। ভোটের কদিন আগে কেন্দ্রীয় বাহিনী এসে কি শাসকদলের `সন্ত্রাস`রুখতে পারবে! না কি অবধা ভোট দেখতে চলেছে রাজ্য। এই প্রশ্নে আপনার মতামত জানান-

খেজুরিতে নিষিদ্ধ সিপিআইএম, `সদর্পে` ঘোষণা শুভেন্দুর

পঞ্চায়েত ভোট তিনিই করাবেন। খেজুরিতে  নিষিদ্ধ থাকবে সিপিআইএম। জায়গা হবে না কংগ্রেস-বিজেপি কোনও দলেরই। প্রকাশ্য জনসভায় হুমকি দিলেন শুভেন্দু অধিকারী। তৃণমূল সাংসদের হুমকির কড়া সমালোচনা করেছেন বিরোধীরা। পূর্ব মেদিনীপুরের খেজুরির কামারদায় তৃণমূলের সভায় শুভেন্দু অধিকারীর মুখে শোনা গেল এরকমই নানা বক্তব্য।

পঞ্চায়েত ভোটে একক লড়াইয়ের সিদ্ধান্ত কংগ্রেসের

ইঙ্গিত ছিল আগেই। তৃণমূলের সঙ্গে জোট ভেঙে পঞ্চায়েত নির্বাচনে একা লড়াইয়ের সিদ্ধান্ত নিল প্রদেশ কংগ্রেস। পঞ্চায়েত নির্বাচনের রণকৌশল ঠিক করতে বৃহস্পতিবার বিধানভবনে প্রদেশ কংগ্রেসের কর্মসমিতির বর্ধিত সভা বসে। দলের সমস্ত সাংসদ, বিধায়ক সহ সমস্ত নেতৃত্বই পঞ্চায়েতে তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের সিদ্ধান্তের সঙ্গে সহমত প্রকাশ করেন। এরপরই আনুষ্ঠানিকভাবে সেই সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি প্রদীপ ভট্টাচার্য।