`পাদস্পর্শের দরকার নেই, মন দিয়ে কাজ করুন`

পাদস্পর্শের প্রয়োজন নেই। তার বদলে মন দিয়ে কাজ করুন। দলের সাংসদদের কড়া বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। শুক্রবার সংসদের সেন্ট্রাল হলে দলীয় সাংসদদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন নরেন্দ্র মোদী। উপস্থিত ছিলেন লালকৃষ্ণ আডবাণী, বেঙ্কাইয়া নাইডু, অরুণ জেটলি, সুষমা স্বরাজ সহ দলের সব সাংসদরা। নিজেদের দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করতে গেলে কী কী করতে হবে তার জন্যও সাংসদদের একগুচ্ছ পরামর্শ দিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী। ভিওঃ মন্ত্রিসভার সদস্য বা প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের শীর্ষ আমলা। প্রথম থেকেই সবার প্রতি তাঁর বার্তা ছিল কাজ করতে হবে। সেই বার্তাটাই এবার নিজের দলের সাংসদদের মধ্যে ছড়িয়ে দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ভোটে জেতার পর থেকে দলের বহু নেতা-নেত্রী তাঁকে পা ছুঁয়ে সম্মান জানিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পরেও বজায় থেকেছে সেই ধারা। নিজের দলের সাংসদদের এবার তাতে ছেদ টানার নির্দেশ দিলেন নরেন্দ্র মোদী। শুক্রবার সেন্ট্রাল হলে দলের সাংসদদের সঙ্গে বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী। সেই বৈঠকে কুড়ি মিনিটের বক্তব্যে দলের সাংসদদের উদ্দেশে তাঁর কড়া নির্দেশ, সম্মান দেখানোর জন্য তাঁর বা দলের অন্য প্রবীণ নেতাদের পা ছুঁয়ে প্রণাম করার দরকার নেই। তার বদলে মন দিয়ে কাজ করুন সাংসদরা। সূত্রের খবর, নিজেদের দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করার জন্য দলের সাংসদদের একগুচ্ছ পরামর্শও দিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী। বিজেপির সাংসদদের প্রতি তাঁর পরামর্শ,

বিভিন্ন রাজ্যের দাবিদাওয়া অগ্রাধিকার দিতে আধিকারিকদের নির্দেশ দিলেন প্রধানমন্ত্রী

বিভিন্ন রাজ্যের তোলা দাবিদাওয়া সংক্রান্ত বিষয়গুলিকে অগ্রাধিকার এবং সংবেদনশীলতার সঙ্গে বিবেচনা করতে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের আধিকারিকদের নির্দেশ দিলেন নরেন্দ্র মোদী। বুধবার পিএমও-র আধিকারিকদের সঙ্গে প্রথমবার বৈঠকে বসেন প্রধানমন্ত্রী। বৈঠকে দেশের যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোকে আরও জোরদার করার ওপরেই গুরুত্ব দিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী। এরই সঙ্গে মন্ত্রীদের বাজে খরচ বন্ধেরও নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।সার্ক গোষ্ঠীভুক্ত দেশগুলির প্রধানদের সঙ্গে বৈঠক আর তার পরেই মন্ত্রিসভার বৈঠক। এভাবেই চূড়ান্ত ব্যস্ততায় প্রথম দিনটি কেটেছিল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর। বুধবার দ্বিতীয় দিনেও বজায় রইল সেই একই ব্যস্ততার ধারা। প্রথম দিনেই মন্ত্রিসভার সদস্যদের বুঝিয়ে দিয়েছিলেন, কাজ ফেলে রাখা যাবে না। বুধবার সাউথব্লকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের আধিকারিকদের সঙ্গে প্রথম বৈঠকে সেই একই সুর বেধে দিলেন নরেন্দ্র মোদী। এদিনের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন সদ্যনিযুক্ত প্রধান সচিব নৃপেন্দ্র মিশ্র, দুই যুগ্ম সচিব এ কে শর্মা ও ভরত লাল সহ প্রধামন্ত্রীর কার্যালয়ের গুরুত্বপূর্ণ আধিকারিকরা। পিএমও-র আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠকে দেশের যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোকে জোরদার করার ওপরেই সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। আর এক্ষেত্রে বিভিন্ন রাজ্যের তোলা দাবিদাওয়াগুলিকে অগ্রাধিকার দিতে বলেছেন তিনি। প্রধানমন্ত্রীর দফতরের দেওয়া বিবৃতি অনুযায়ী,

মন্ত্রিত্ব নিয়ে চলবে না জোরাজুরি, টিম মোদীতে থাকছেন কে? বজায় ধোঁয়াশা

ছাব্বিশে মে প্রধানমন্ত্রী পদে শপথ নেবেন নরেন্দ্র মোদী। কিন্তু কে কে থাকবেন মোদী-মন্ত্রিসভায়? এনিয়ে এখনও বহাল রইল ধোঁয়াশা। দল এবং এনডিএ শরিকদের উদ্দেশে ইতিমধ্যেই ভাবী প্রধানমন্ত্রীর স্পষ্ট বার্তা, মন্ত্রিত্বের জন্য জোরাজুরি করা চলবে না। যদিও শিবসেনা থেকে এলজেপি প্রায় সব শরিক দলই মন্ত্রিত্ব নিয়ে দরবার শুরু করে দিয়েছেরাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করে মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিকভাবে সরকার গঠনের দাবি জানান নরেন্দ্র মোদী। শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানের দিনক্ষণ ঘোষণা হয়েছে। কিন্তু জানা নেই কারা মন্ত্রী হচ্ছেন । নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে সাক্ষাত্‍-পর্বে তাঁর কাছে এদিন মন্ত্রীদের নামের তালিকা চান রাষ্ট্রপতি। মন্ত্রী কারা হচ্ছেন, এ নিয়ে এখনও একটি শব্দও প্রকাশ্যে উচ্চারণ করেনি বিজেপি। ভাবী প্রধানমন্ত্রী এদিন স্পষ্ট করে দিয়েছেন, শরিকদের পাশে নিয়েই চলবে এনডিএ। তবে বিজেপি যে একক সংখ্যাগরিষ্ঠ দল, এই কথাও মনে করিয়ে দিয়েছেন।