সমঝোতার পথে হেঁটে কার্যত নতিস্বীকার পাক সরকারের

অবশেষে চাপের মুখে নতিস্বীকার করল পাকিস্তান সরকার। চারদিনর মাথায় সুফি নেতা তাহারুল কাদরির সঙ্গে রফার পথে হাঁটল জর্দারি প্রশাসন। গত কয়েক দিনের সরকার বিরোধী বিক্ষোভ, লং মার্চ, জমায়েত এবং হুঁশিয়ারির পর, বৃহস্পতিবার রাতে সুফি নেতা কাদরির সঙ্গে জরুরি বৈঠকে বসেন সরকার পক্ষের ১০ জন প্রতিনিধি। নেতৃত্বে ছিলেন চৌধুরী সুজাত হুসেন। সেখানেই বর্ষীয়ান নেতার দাবি মেনে নিতে রাজি হয় সরকারপক্ষ।

জোড়া সঙ্কটে দিশেহারা পাকিস্তান

দুর্নীতি মামলায় পাক প্রধানমন্ত্রী রাজা পরভেজ আশরফকে গ্রেফতারের নির্দেশ দিয়েছে পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্ট। আজ প্রধানমন্ত্রীকে আদালতে হাজির করার নির্দেশও দেওয়া হয়েছে প্রশাসনকে। অন্যদিকে সুফি নেতা মহম্মদ তাহিরুল কাদরির নেতৃত্বে দশ লক্ষ মানুষের মিছিলে মঙ্গলবার স্তব্ধ হয়ে গিয়েছিল ইসলামাবাদ। সংসদ ও প্রাদেশিক আইনসভা ভেঙে দেওয়ার দাবিতে কাদরির এই মিছিলকে ঘিরে রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় পাক রাজধানী।