শনিবার রাতে ফুটবল বিশ্বের চোখ ন্যু ক্যাম্পের দিকে শনিবার রাতে ফুটবল বিশ্বের চোখ ন্যু ক্যাম্পের দিকে

শনিবার রাতে  ফুটবল বিশ্বের চোখ ন্যু ক্যাম্পের দিকে। ক্লাব ফুটবলের সেরা ম্যাচে মুখোমুখি বার্সেলোনা ও রিয়াল মাদ্রিদ। স্প্যানিশ লা লিগার এই ম্যাচ ঘিরে টানটান উত্তেজনা। একদিকে মেসি,সুয়ারেজ,নেইমার। অন্যদিকে রোনাল্ডো,বেল,বেনজেমা। স্ট্র্যাটেজির লড়াইয়ে এই প্রজন্মের  দুই তরুণ কোচ লুই এনরিকে ও জিনেদিন জিদান। এল ক্লাসিকোয় ছড়িয়ে ছিটিয়ে নানা রং,নানা ডুয়েল। টানা ৩৯টি ম্যাচ অপরাজিত থেকে স্নায়ুর ম্যাচে নামছে ক্যাটালিয়ান্সরা। লা লিগা জয়ের দৌড়ে ফেভারিট বার্সেলোনা। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বদের থেকে ইতিমধ্যে দশ পয়েন্টে এগিয়ে এনরিকে ব্রিগেড। অন্যদিকে ছন্দ খোঁজার চেষ্টায় রিয়াল। দায়িত্ব নিয়েই নানা সমস্যার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন জিদান। এতটা এগিয়ে থেকে শেষ কবে  এল ক্লাসিকোয় নেমেছে বার্সেলোনা সেটা মনে করা যাচ্ছে না। তবে ম্যাচটা যে এল ক্লাসিকো। এই লড়াইয়ের গুরুত্বই আলাদা। সর্বশক্তি নিয়ে ঝাঁপাচ্ছে বার্সা। গোলের জন্য ত্রিফলা MSN কে নামাচ্ছেন এনরিকে। রিয়ালকে হারিয়েই লা লিগার খেতাব পকেটে পুড়ে ফেলতে চায় বার্সেলোনা। পিছিয়ে থাকলেও লড়াইয়ের হুঙ্কার ছাড়ছে রিয়াল। মেগা ম্যাচে জিদান তাকিয়ে সেই রোনাল্ডো,বেনজেমাদের দিকে। টানটান উত্তেজনার ম্যাচেও বাড়তি আবেগ থাকছে। কিংবদন্তী জোহান ক্রুয়েফের মৃত্যুর পর প্রথমবার মাঠে নামছে বার্সেলোনা। মেসিদের জার্সিতে লেখা থাকবে ধন্যবাদ ক্রুয়েফ। সব মিলিয়ে ন্যু ক্যাম্পে জিততে মরিয়া বার্সেলোনা।

কেন রিয়াল ছাড়তে চাইছেন CR7? কেন রিয়াল ছাড়তে চাইছেন CR7?

রিয়াল ছাড়ার জল্পনা আরও একবার উস্কে দিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। সম্প্রতি সিআর সেভেন জানিয়েছেন ফুটবল কেরিয়ার শেষ হওয়ার আগে তার মেজর লিগ সকারে খেলার সম্ভাবনা রয়েছে। কয়েক মাস আগে পর্তুগিজ তারকার মুখেই শোনা গিয়েছিল যে এমএলএস অথবা কাতারে তার খেলার সম্ভাবনা কম। তবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে খেলা নিয়ে নিজের ধারণা বদলেছেন সিআর সেভেন। রোনাল্ডো বলেছেন এমএলএসে খেলার মানের অনেক উন্নতি হয়েছে। ভবিষ্যতে এই লিগে তার খেলার সম্ভাবনা রয়েছে। রোনাল্ডোর এই মন্তব্য রিয়াল মাদ্রিদকে চাপে ফেলে দেওয়ার পক্ষে যথেষ্ট। এর আগেও রোনাল্ডোর রিয়াল মাদ্রিদ ছাড়ার জল্পনা ছিল, কিন্তু রিয়ালেই ছিলেন CR7।

রোনাল্ডোকে কোনও মতেই ছাড়া হবে না, জানিয়ে দিলেন জিদান রোনাল্ডোকে কোনও মতেই ছাড়া হবে না, জানিয়ে দিলেন জিদান

দলের সেরা অস্ত্র ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোকে কোনও মতেই ছাড়া হবে না। পরিস্কার জানিয়ে দিলেন রিয়াল মাদ্রিদের নতুন কোচ জিনেদিন জিদান। তিনি যতদিন রিয়ালের হটসিটে থাকবেন ততদিন সিআর সেভেনের ক্লাব ছাড়ার প্রশ্নই নেই। সাফ বক্তব্য জিদানের। রিয়াল মাদ্রিদে থাকা নিয়ে অতীতে বারবার অনিশ্চয়তা প্রকাশ করেছেন পর্তুগিজ তারকা। প্রাক্তন কোচ রাফা বেনিতেজের সঙ্গে রোনাল্ডোর বিরোধ চরমে ওঠে। রিয়ালে যে তিনি ভাল নেই, সেটা বুঝিয়ে দেন সিআর সেভেন। কোচ বদলের পর রোনাল্ডোকে নিয়ে অবস্থান স্পষ্ট করে দিলেন জিদান। অনিশ্চয়তার মেঘ দুরে সরিয়ে রোনাল্ডোকে নিজের পছন্দের পজিশনে খোলা মনে খেলতে দিতে চান রিয়ালের নতুন কোচ। শনিবার রাতে লা লিগার ম্যাচে প্রথমবার কোচ হিসেবে রিয়ালের বেঞ্চে বসবেন জিদান।

সমালোচকদের একহাত নিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো সমালোচকদের একহাত নিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো

সমালোচকদের একহাত নিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। নীরবতা ভেঙে দীর্ঘ সময়ের পর মুখ খুললেন সিআর সেভেন। আর মুখ খুলতেই পর্তুগিজ তারকা যেন অ্যাংরি ইয়াং ম্যান। ফুটবল কেরিয়ারে তার সাফল্যকে ঈর্ষা করেন অনেকেই। তাই তাকে নিয়ে বারবার কথা হয়।সমালোচকদের এভাবেই তোপ দাগলেন রোনাল্ডো। তিনি জন্মেছেন সেরা হওয়ার জন্য। কয়েকজনের মন্তব্য তার খেলার ওপর প্রভাব ফেলতে পারবে না। একই সঙ্গে একজন ফুটবলারের পক্ষে সবাইকে খুশি করা সম্ভব নয়, সাফ কথা রিয়াল মাদ্রিদের এক নম্বর তারকার। শেষ বছরে ইউরোপে সবচেয়ে বেশি গোল করে মেসিকে পিছয়ে ফেলে দিয়েছেন রোনাল্ডো। ফিফার বর্ষসেরা ফুটবলারের মুকুটও পর্তুগিজ তারকার মাথায়। এরপরও রিয়াল মাদ্রিদে সিআর সেফেনকে নিয়ে জল্পনা দীর্ঘ সময় ধরেই। তার জেরেই হয়তো রোনাল্ডোর এই ধরণের মন্তব্য। একই সঙ্গে অবসর নেওয়ার পর রাজার মতো তিনি থাকতে চান বলে জানিয়েছেন সিআর সেভেন। 

কঠিন গ্রুপ, কিন্তু জিতবে রিয়ালই: CR7 কঠিন গ্রুপ, কিন্তু জিতবে রিয়ালই: CR7

কঠিন গ্রুপে থাকা সত্বেও চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। রিয়াল মাদ্রিদ তারকার মতে এবছর তাঁদের কঠিন গ্রুপে রাখা হয়েছে। রিয়ালের গ্রুপে রয়েছে লিগ ওয়ান চ্যাম্পিয়ন প্যারিস সেইন্ট জার্মেইন, ইউক্রেইন প্রিমিয়ার লিগে রানার্স আপ শাখতার ডোনেস্ক এবং সুইডিশ চ্যাম্পিয়ন মালমো। রোনাল্ডো আশাবাদী কঠিন চ্যালেঞ্জ পেরিয়ে চ্যাম্পিয়ন হবে রিয়ালই। দুহাজার চোদ্দ সালে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল রিয়াল মাদ্রিদ। অপর দিকে গ্রুপ ই-তে বার্সেলোনার সঙ্গে রয়েছে এএস রোমা, বায়ের লেভারকুসেন এবং বেট বোরিসভ।

১২ বছরে ৯ বার কোচ ছাটাই করল রিয়াল মাদ্রিদ ১২ বছরে ৯ বার কোচ ছাটাই করল রিয়াল মাদ্রিদ

একবছর আগে তাঁর কোচিংয়েই চ্যাম্পিয়ন্স লিগ চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল রিয়াল মাদ্রিদ। একবছর একদিনের মাথায় চিত্রটাই গেল পাল্টে। কার্লো আন্সেলোত্তিকে ছেঁটে ফেলল রিয়াল মাদ্রিদ। ক্লাবের সভাপতি হিসাবে বারো বছরে নজন কোচকে ছেঁটে ফেললেন ফ্লোরেন্টিনো পেরেজ। এবছর কোনও ট্রফি জিততে পারেনি রিয়াল মাদ্রিদ। লা লিগা চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বার্সেলোনা। জুভেন্টাসের কাছে হেরে  চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে ছিটকে গেছিল রিয়াল। ফলে চাপ বাড়ছিল আন্সেলোত্তির উপর। আগামী মরসুমের শেষ পর্যন্ত আন্সেলোত্তির সঙ্গে চুক্তি ছিল রিয়ালের। কিন্ত তার আগেই তাঁকে ছেঁটে ফেলা হল। এবার সম্ভবত নাপোলি কোচ রাফায়েল বেনিটেজকে রোনাল্ডোদের কোচ হিসাবে নিয়োগ করা হবে।

১৬ বছর বয়সে ক্লাব ফুটবলে অভিষেক মার্টিন ওডেগার্ডের ১৬ বছর বয়সে ক্লাব ফুটবলে অভিষেক মার্টিন ওডেগার্ডের

১৬ বছর বয়সে ক্লাব ফুটবলে অভিষেক করে বিশ্বরেকর্ড করলেন মার্টিন ওডেগার্ড। ক্লাবের ইতিহাসে সবচেয়ে কম বয়সী ফুটবলার হিসাবে রিয়ালের হয়ে অভিষেক হল নরওয়ের এই ফুটবলারের। রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে অভিষেক ম্যাচেই রেকর্ড গড়ে ফেললেন মার্টিন ওডেগার্ড। মাত্র ষোল বছর বয়সে রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে মাঠে নামলেন তিনি। গেটাফের বিরুদ্ধে ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর পরিবর্ত হিসাবে মাঠে নেমেছিলেন ওডেগার্ড। ইউরোপের সেরা ক্লাবগুলিকে টেক্কা দিয়ে এবছরই ওডাগার্ডের সঙ্গে চুক্তি করেছে রিয়াল মাদ্রিদ। গেরথ বেল, ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর এই নয়া সতীর্থকে নিয়ে উন্মাদনা তুঙ্গে। এর আগে খুব কম বয়সেই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে অভিষেক করেছিলেন ওয়েন রুনি।

'রিয়াল কোচ' কি জিদান? 'রিয়াল কোচ' কি জিদান?

আগামী মরসুমে কি ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোদের কোচ হতে চলেছেন জিনেদিন জিদান? পরিস্থিতি যা তাতে এমনই ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে। রিয়াল মাদ্রিদ কোচের পদ হারাতে পারেন কার্লো আন্সেলোত্তি। জুভেন্টাসের কাছে হেরে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে ছিটকে যেতে হয়েছে রিয়াল মাদ্রিদকে। চোখে জল নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয়েছিল আন্সেলোত্তিকে। এমনকি ম্যাচে তাঁর স্ট্র্যাটেজি নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন দলের ফুটবলাররা। এবছর এখনও পর্যন্ত কোনও ট্রফি জিততে পারেননি রিয়াল মাদ্রিদ। চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে ছিটকে যাওয়ার পর লা লিগা জয়ের আশাও কার্যত শেষ রিয়ালের। আন্সেলোত্তি নিজেও মনে করছেন আগামী বছর তাঁকে সরিয়ে দিতে পারে ক্লাব। ইতিমধ্যেই জিদানের হয়ে রিয়াল কর্তাদের কাছে সওয়াল করেছেন অনেকেই। বর্তমানে রিয়ালের বি দলের কোচের পদে রয়েছেন জিদান। তাই আন্সেলোত্তির উত্তরসূরি হওয়ার দৌড়ে জিদান যে অনেকটাই এগিয়ে মানছে ফুটবল বিশ্ব।