এবারের ভোটে রাজ্যের নজরে উদয়ন ও রেজ্জাক

এবারের ভোটে রাজ্যের নজরে উদয়ন ও রেজ্জাক

৬ দফায় সাতদিন ভোট। ফল ঘোষণা আগামী ১৯ মে। আর তাই এখন রাজ্যের ২৯৪টি বিধানসভা কেন্দ্রের প্রার্থীদের ভাগ্য বন্দি রয়েছে বিভিন্ন স্ট্রংরুমে।

সিপিএম পার্টির নাটবল্টুটাই ঢিলে হয়ে গেছে, বললেন রেজ্জাক মোল্লা! সিপিএম পার্টির নাটবল্টুটাই ঢিলে হয়ে গেছে, বললেন রেজ্জাক মোল্লা!

সিপিএম পার্টির নাটবল্টুটাই ঢিলে হয়ে গেছে। তাই তারা বুর্জোয়া পার্টি কংগ্রেসের হাত ধরেছে। চব্বিশ ঘণ্টার স্টুডিওয় জোট নিয়ে এমনই বিস্ফোরক মন্তব্য রেজ্জাক মোল্লার।

 নেতৃত্বের চাপে ভাঙড়ে এক মঞ্চে আরাবুল ইসলাম ও রেজ্জাক মোল্লা নেতৃত্বের চাপে ভাঙড়ে এক মঞ্চে আরাবুল ইসলাম ও রেজ্জাক মোল্লা

  নেতৃত্বের চাপে ভাঙড়ে এক মঞ্চে আরাবুল ইসলাম ও রেজ্জাক মোল্লা। ভাঙড়ে পাকপোল বাজারে দলীয় কর্মীদের নিয়ে সভা করলেন দুজনে। গত পরশুই ভাঙড়ের দ্বন্দ্ব মেটাতে আরাবুল ইসলাম , কাইজার আহামেদ এবং রেজ্জাক মোল্লাকে এক সঙ্গে বসিয়ে মিটিং করেন শোভন চট্টোপাধ্যায়।  সংঘাত মেটাতে আরাবুল ইসলামকে সভাপতি করে ভাঙড়ের জন্য গড়া হয় নির্বাচনী কমিটি।  কনভেনর করা হয় কাইজারকে। তার পরেই গতকাল একসঙ্গে ভাঙড় রাজনীতির দুই যুযুধান আরবুল-রেজ্জাক। যদিও সভায় ছিলেন না কাইজার আহমেদ।

তৃণমূলে যোগ রেজ্জাক, লক্ষ্মীরতন শুক্লা, ডালমিয়া কন্যা বৈশালীর তৃণমূলে যোগ রেজ্জাক, লক্ষ্মীরতন শুক্লা, ডালমিয়া কন্যা বৈশালীর

শেষ পর্যন্ত তৃণমূলেই যোগ দিলেন রেজ্জাক মোল্লা। দল চাইলে পূর্ব ক্যানিং নয় ভাঙড় থেকেও ভোটে লড়তে রাজি। তৃণমূলে যোগ দিলেন জগমোহন ডালমিয়ার মেয়ে বৈশালী এবং ক্রিকেটার লক্ষ্মীরতন শুক্লাও। দু-জনই বিধানসভায় টিকিট পেতে পারেন।

কথা রাখেনি নেতারা, তাই নিজেরাই জোট বাধছে ক্যানিংয়ের 'বিক্ষুব্ধ' সিপিআইএমরা   কথা রাখেনি নেতারা, তাই নিজেরাই জোট বাধছে ক্যানিংয়ের 'বিক্ষুব্ধ' সিপিআইএমরা

সিপিআইএমের হয়ে মাঠে ঘাটে কাজ করেছেন। কমিটি গড়ে দিয়েছিলেন রেজ্জাক মোল্লা। এখন ক্যানিং পূর্বের বিধায়ক দল থেকে বহিষ্কৃত। অভিযোগ, যোগাযোগ রাখেনি সিপিআইএম নেতারাও। দলের হয়ে লড়তে প্রস্তুত ভাঙড়ের এই যুবকরা। প্রশ্ন একটাই নেতৃত্ব দেবে কে?

এবার টার্গেট রেজ্জাক মোল্লা?

সুজন চক্রবর্তীর পর রেজ্জাক মোল্লা শাসকের নিশানায়। ২৯ মার্চ বারুইপুর থানার অধীনে সূর্যপুর গ্রামে একটি বিচিত্রানুষ্ঠানে যান সিপিআইএম বিধায়ক রেজ্জাক মোল্লা। সেখানে তিনি বক্তৃতা দেন। এরপর ওই অনুষ্ঠানে বিদ্যুৎ সংযোজন ছিন্ন করে দেওয়া হয়। অভিযোগ এরপর ওই অনুষ্ঠানে বেছে বেছে সিপিআইএম কর্মীদের মারধর করে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। ঘটনাস্থলে পুলিস পৌঁছালেও পুলিস শুধুমাত্র সিপিআইএম কর্মীদের গ্রেফতার করে বলে অভিযোগ। ৩০ তারিখ ওই অঞ্চলের এক মহিলার বাড়িতে ভাংচুর করা হয়। এই ঘটনায় ১৩জনের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়। এফ আই আরে শেষ নামটি রেজ্জাক মোল্লার।

নির্ঘণ্ট ঘোষণা রাজ্যের, ভাঙড়েই ভোট যুদ্ধে নামল বামেরা

২৬ এপ্রিল জেলায় পঞ্চায়েত ভোটের ঘোষণার পরেই দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ভোটপ্রচারে নামল সিপিআইএম নেতৃত্ব। রাজ্যে রাজনৈতিক হিংসার প্রতিবাদ, ঘরছাড়া দলীয় কর্মীদের ঘরে ফেরানোর দাবি সহ একাধিক ইস্যুতে আজ ভাঙড়ে মিছিল-সমাবেশের ডাক দিয়েছে সিপিআইএম।

ময়দানে রেজ্জাক, আক্রমণের কেন্দ্রস্থলেই সভা আজ

আজ থেকে পঞ্চায়েত ভোটের লড়াইয়ে রাজনৈতিক ময়দানে নেমে পড়তে চলেছেন রেজ্জাক মোল্লা। যেখানে তিনি আক্রান্ত হয়েছিলেন সেই ভাঙড়েই আজ সভা করবেন তিনি। উপস্থিত থাকবেন সূর্যকান্ত মিশ্র, গৌতম দেব, সুজন চক্রবর্তীরা।

আরাবুলের জামিন খারিজ করল আদালত

আরাবুল ইসলামের জামিনের আবেদন খারিজ করল বারুইপুর আদালত। ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত তাঁকে জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক। তথ্যপ্রমাণ প্রভাবিত হওয়ার সম্ভাবনা থেকে আরাবুলের জামিনের আবেদন নাকোচ করে আদালত।

বামেদের ধিক্কার মিছিলে জনজোয়ার

রেজ্জাক মোল্লা সহ দলীয় কর্মীদের আক্রমণের প্রতিবাদে রাজ্যজুড়ে ধিক্কার দিবস পালন করল বামেরা। কলকাতায় প্রতিবাদ মিছিলের শুরুতে ছিলেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। উপস্থিত ছিলেন বিমান বসু, সূর্যকান্ত মিশ্র সহ শীর্ষ বাম নেতারা। ধর্মতলা থেকে শিয়ালদা পর্যন্ত মিছিলে পা মেলান অসংখ্য মানুষ। 

আরাবুলের পাশেই পার্থ, মহাকরণেই দলীয় কর্মসূচী ঘোষণা

বামনঘাটার বাম কর্মী-সমর্থকদের ওপর হামলার ঘটনায় আরাবুল ইসলামের পাশেই দাঁড়ালেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তাঁর অভিযোগ, সিপিআইএম সমর্থকেরাই অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়েছে আরাবুলের ওপর। আহত হওয়ায় আরাবুলকে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছে। সিপিআইএম রাজ্যজুড়ে নৈরাজ্য সৃষ্টি করছে বলে তাঁর অভিযোগ। মহাকরণে আজ আইনশৃঙ্খলা নিয়ে বৈঠকে হাজির ছিলেন পুলিস-প্রশাসনের উচ্চপদস্থ কর্তারা।

বামেদের উপর গুলি চলল বামনঘাটায়

ফের অগ্নিগর্ভ ভাঙড়। এবার বামনঘাটায়। গুলি, বোমা, বাসে আগুন, ভাঙচুর। সিপিআইএম নেতাদের অভিযোগ, আলিপুরে বিক্ষোভ সভায় আসার পথে তাঁদের সমর্থক বোঝাই বাসগুলির উপর হামলা চালায় আরাবুল ইসলামের নেতৃত্বে তৃণমূল কর্মীরা। হামলায় অন্তত ৬ জন সিপিআইএম সমর্থক গুলিবিদ্ধ। জখম আরও বেশ কয়েকজন। আগুন দেওয়া হয় ১২টি বাসে। ভাঙচুর হয়েছে আরও বেশ কয়েকটি বাস। প্রত্যক্ষদর্শীদের বক্তব্য, পিছন থেকে সিপিআইএমের মিছিলে ইটবৃষ্টি শুরু হয়। বাঁশ দিয়ে গাড়ি ভাঙচুর চলে। রাস্তায় ফেলে বহু বাম কর্মী সমর্থককে মারধর করা হয়। চালানো হয় গুলি, ব্যাপক বোমাবাজিও হয়েছে। প্রাণভয়ে অনেকে পালিয়ে যান। পরপর দাঁড়িয়ে থাকা গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়।

হাসপাতালে রেজ্জাক, চলছে রাজনৈতিক চাপান-উতর

রেজ্জাক মোল্লাকে হাসপাতালে রাখা হবে কি না তা নিয়ে চলছে রাজনৈতিক চাপান-উতর। রেজ্জাক মোল্লার ওপর হামলা নিয়ে গুরুতর অভিযোগ তুললেন সিপিআইএম নেতারা। তাঁদের অভিযোগ, প্রবীণ বিধায়ককে ছেড়ে দেওয়ার জন্য হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে চাপ দিচ্ছে রাজ্য সরকার। অন্যদিকে, আজ বিকেলে তাঁকে দেখতে গিয়ে শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন বাড়ির লোকের অনুরোধেই তাঁকে হাসপাতালে রাখা হয়েছে।

পুলিসি পাহারায় সভা মঞ্চে নিরুত্তাপ আরাবুল

রবিবারই থানায় তাঁর নামে এফআইআর দায়ের হয়েছে। অথচ সোমবার প্রকাশ্যে তিনি সভা করলেন। পুলিসের পাহাড়ায়। এতসব কাণ্ড যাঁকে ঘিরে, সেই আরাবুল ইসলাম কিন্তু নিরুত্তাপ। উল্টে তাঁর প্রশ্ন, সিপিআইএমের কোনও মিটিং-এ যদি তিনি ঢুকে পড়তেন তাহলে তাঁকে কি রসগোল্লা ছোঁড়া হত না? আজ ভাঙরের ঘটকপুকুরে গতকালের ঘটনার প্রতিবাদে সভা করেন আরাবুল ইসলাম।