রেজ্জাক মোল্লার রিলিজ নিয়ে দেবী শেঠিকে চিঠি ক্ষুব্ধ সুজনের

মেরুদণ্ডে গুরুতর আঘাত থাকলেও চাপে পড়ে আবদুর রেজ্জাক মোল্লাকে ছেড়ে দিতে চেয়েছিল আর এন টেগোর হাসপাতাল। সিপিআইএমের তরফে আগেই এই অভিযোগ করা হয়। এ বার লিখিত অভিযোগ জানিয়ে হাসপাতালের কর্ণধার ডক্টর দেবী শেঠীকে চিঠি দিলেন দলের দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা জেলা সম্পাদক সুজন চক্রবর্তী।

রেজ্জাক মোল্লাকে দেখে গেলেন বুদ্ধদেব

অসুস্থ রেজ্জাক মোল্লাকে দেখতে আজ হাসপাতালে গেলেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। বেলা ১টা নাগাদ হাসপাতালে পৌঁছন রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। সঙ্গে ছিলেন সুজন চক্রবর্তী। মেরুদণ্ড গুরুতর চোট নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি তিনি।

অসুস্থ রেজ্জাকের রিলিজ নিয়ে প্রশ্ন তুলছে এমআরআই রিপোর্ট

এমআরআই রিপোর্ট বলছে, মেরুদণ্ডে গুরুতর আঘাত লেগেছে রেজ্জাক মোল্লার। তবু সোমবারই হাসপাতাল থেকে তাঁকে ছেড়ে দেওয়ার কথা বলা হয়েছিল। কেন? তবে কি চাপে পড়েই ওই সিদ্ধান্ত নিয়েছিল আর এন টেগোর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ?